কলকাতায় বাম মিছিলে পুলিশের লাঠি, কাঁদানে গ্যাস ও জল কামান

ভারত

পরিতোষ পাল, কলকাতা থেকে | ২৩ মে ২০১৭, মঙ্গলবার
পুর নির্বাচনে সন্ত্রাস, দুর্নীতিতে জড়িত মন্ত্রী ও বিধায়কদের পদত্যাগ, কৃষককে ফসলের জন্য ন্যায্য মূল্য দেয়া সহ ১৮ দফা দাবিতে গতকাল সিপিআইএমের নেতৃত্বে ১১টি বামপন্থি সংগঠনের নবান্ন অভিযান রণক্ষেত্রের চেহারা নিয়েছিল। বামপন্থিদের অভিযোগ, পুলিশ প্ররোচনা দিয়ে অশান্তি ঘটিয়েছে। তবে পুলিশ এদিন বামকর্মী ও সমর্থকদের নবান্ন অভিমুখে যেতে দেয়নি। প্রায় ১০ হাজার পুলিশ নিয়োগ করা হযেছিল নবান্নমুখী অভিযান ঠেকাতে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য এদিন কলকাতাতেই ছিলেন না। মিছিলকারীদের ঠেকাতে পুলিশ যথেচ্ছভাবে লাঠি চালিয়েছে।
পুলিশের লাঠির আঘাতে প্রবীণ বাম নেতা কান্তি গাঙ্গুলি অসুস্থ হয়ে পথে শুয়ে পড়েন। আহত হয়েছেন অনেক বাম কর্মী। পুলিশও আহত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। সাংবাদিকদের ওপরও এদিন লাঠিচার্জ করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন সাংবাদিকরা। এদিন কলকাতা ও হাওড়ার দিক থেকে মিছিল নবান্ন অভিমুখে রওনা হওয়ার পরেই পুলিশ ব্যারিকেড দিয়ে মিছিলকারীদের আটকে দিয়েছিল। তবে এদিন নির্দিষ্ট সময়ের আগেই নবান্নে ঢোকার চেষ্টা করেছেন সুজন চক্রবর্তী, তন্ময় ভট্টাচার্যসহ পাঁচ বাম বিধায়ক। নবান্নে জোর করে ঢোকার চেষ্টা করায় পুলিশের সঙ্গে তাদের ধস্তাধস্তি হয়েছে। পুলিশ ৫ বিধায়ককে আটক করেছে। আটক বিধায়কদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন সিপিআইএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র।
মেয়ো রোড, কোনা এক্সপ্রেস ওয়ে ও হেস্টিংসের কাছে পুলিশের দেয়া ব্যারিকেড ভেঙে বাম কর্মী ও সমর্থকরা এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে সব এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়ে উঠেছিল। পুলিশ মিছিলকারীদের ঠেকাতে প্রথমে কাঁদানে গ্যাস, পরে জল কামান প্রয়োগ করে। তাতেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ করে। এর ফলে রেনতা ও কর্মীসহ অনেকেই আহত হয়েছেন। ‘বাংলা বিপন্ন, চলো নবান্ন’- এই স্লোগান দিয়ে কলকাতা ও হাওড়ার দিক থেকে প্রায় লাখ খানেক মানুষ নবান্নমুখী অভিযানে শামিল হয়েছিলেন বলে দাবি করেছেন বাম নেতারা।  সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, এটা প্রমাণিত যে খুব পেয়ে গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। নবান্নে বাম বিধায়কদের ঢোকার চেষ্টা নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, ওরা মানুষের জন্য কাজ করে না। মানুষের নজরে নেই। মুখ্যমন্ত্রী জেলায় জেলায় ঘুরে কাজ করার চেষ্টা করেন। আর ওরা নিজেদের অস্তিত্ব বাঁচানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে। তিনি আরো বলেছেন, বিধানসভা থেকে শুরু করে সর্বত্র ওরা নাটক করছেন।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সশস্ত্র বাহিনী জাতির এক গর্বিত প্রতিষ্ঠান: খালেদা জিয়া

কেরানীগঞ্জে বিএনপি অফিসে পুলিশের তালা

সিলেটের টার্গেট ১৭০

‘প্রধানমন্ত্রীর সামনে এখন বিদায়ের দুটি পথ খোলা’

আহত ২০, বিএনপির ৬১ জন আটক

১৩ বছরের প্রতিবন্ধীকে ৬৫ বছরের বৃদ্ধের ধর্ষণ

সাংসদের গাড়ি উল্টোপথে, ট্রাফিক পুলিশের বাধা(ভিডিওসহ)

পঙ্কজ রায়ের জামিন মঞ্জুর

মাছ পরিবহনের কাভার্ডভ্যানে এক লাখ ২০ হাজার ইয়াবা

আম্পায়ারের সঙ্গে সাকিবের এ কেমন আচরণ!

‘ফাঁকা মাঠে গোল দিয়ে ক্ষমতায় যেতে চাই না’

পৌরসভা থেকে সিটি করপোরেশন হচ্ছে ময়মনসিংহ

রাজধানীর নতুন থানা হাতিরঝিল

জঙ্গি হামলায় আরেক অর্থ সরবরাহকারী গ্রেপ্তার

সৌদি আরবে ২৪ হাজার অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার

রাষ্ট্রদ্রোহের মামলায় তারেক রহমানসহ চারজনের বিচার শুরু