না মানে- না এটাই ফাইনাল

মত-মতান্তর

শামীমুল হক | ২২ মে ২০১৭, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫২
না মানে- না। তিনি যদি নিজ স্ত্রীও হন তারপরও না। একবার যখন স্ত্রী না করেছে এর মানে হলো- না। তাকে ছোঁয়া যাবে না। এটাই ফাইনাল। আর জোর করে কিছু করা অপরাধ।
স্ত্রী ইচ্ছা করলে তার স্বামীর বিরুদ্ধেও ধর্ষণ মামলা করতে পারেন। ইদানীং ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বনানীর হোটেল রেইনট্রিতে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী ধর্ষণ ঘটনাকে ভিন্নখাতে ঠেলে দেয়ার চেষ্টা করছেন কেউ কেউ। তারা বুঝাতে চেষ্টা করছেন দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রী খারাপ। ওরা কেন সেখানে গেলো? অবাক করার মতো বিষয়। তাদের কাছে প্রশ্ন- সব কিছু খোলাসা হওয়ার পরও শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করা কি যৌক্তিক? এতদিনে এটাতো প্রমাণিত হয়েছে ওই রাতে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে জোর করে ধর্ষণ করা হয়েছিল। ধর্ষণ থেকে বাঁচতে তারা প্রাণপণ চেষ্টা করেছে। চিৎকার করেছে। কোনো লাভ হয়নি। কারণ সবকিছুই ছিল ধর্ষকদের দখলে। ইতিমধ্যে ধর্ষক তার জবানবন্দিতেও বিস্তারিত তুলে ধরেছে। তাহলে ধর্ষকদের পক্ষ নিয়ে তারা কি বুঝাতে চাইছেন? আসলে সমাজটা প্রভাবশালীদের হাতে বন্দি। তাদের কথাই আইন। তাদের কথাই চূড়ান্ত। এমন বহু উদাহরণ রয়েছে সমাজে। বেশ ক’বছর আগের কথা। কিশোরগঞ্জের এক গ্রামে চলছে ধর্ষণের সালিশ। ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার, গ্রাম্য মাতব্বররা সালিশের হর্তাকর্তা। ওই গ্রামেরই এক কিশোরী ধর্ষিত হয়েছে। গ্রামের মাঠের সালিশে  সবাই উপস্থিত। দু-পক্ষের বক্তব্য শোনা হলো। শেষ পর্যন্ত ধর্ষণের রায় দেয়া হলো ১০ হাজার টাকা। এ রায় শোনে ওই সালিশে উপস্থিত এক যুবক দাঁড়িয়ে যায়। চিৎকার করে বলে ধর্ষণের শাস্তি যদি হয় ১০ হাজার টাকা, তাহলে আজ রাতে আমি চেয়ারম্যানের মেয়েকে ধর্ষণ করবো। প্রয়োজনে ২০ হাজার টাকা দেব চেয়ারম্যান কন্যাকে। এরকম বাস্তব কথা কেউ কেউ মাঝে মাঝে বলে ফেলে। বলে ফেলে বলেই এখনও প্রভাবশালীরা মাঝে মাঝে কুপোকাত হন। অতএব ধর্ষণকারীদের বাঁচানো নয়, শাস্তি নিশ্চিত করলে আপনার বোন কিংবা কন্যাও নিরাপদ থাকবে সমাজে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

MD.MILON

২০১৭-১২-০৮ ০০:১৭:৫৯

যদি দুনিয়াতেও শান্তি চাও ইসলাম মানতে হবে.এরকম হাজারও ঘটনা হয়েছে হচ্ছে,আরো বেশী হবে।

zahir rayhan

২০১৭-০৬-২৫ ০৪:৩৫:০০

বিচার চলছে ছেলেদের ঠিক আছে মেয়েদের ও বিচার হওয়া উচিত জৌবনের উনমাদনায় রাতের বেলা রেনটিতে বরলোকদের ছেলেদের কাছে গেছিল কেন এই সব ছেলে মেয়েরা ই দেশের বারটা বাজিয়েছে মেয়েদের বেপারে ও কিছু লেখেন ভাই তা হলে মেয়েরা ও আর এদরনের কাজ করতে জাবে না হাই ছুছাইটির মেয়েরা দর্ষন হবেই রাতের বেলা অবিবাবক ছারা ছেলেদের সাথে আডডা মারতে জায় এরা কত নমবার সতি এটা একটা ঠানডা মাতার চকরানত

ebu

২০১৭-০৬-১৮ ০৬:৩৭:৫৯

আরে ভাই এখানে জোর করে ধর্ষণ করলো কোথায়..?ওই ঘটনার সাথে জড়িত একটি মেয়েতো স্বিকারই করেছে সমস্যাটা হয়েছে ভিডিও ধারণ করার কারনে তাদের ভয় ছিলো ভিডিওটি নেটে ছেড়ে দেয়ার তাই তারা থানায় অভিযোগ করেছে...সবার আগে বলব আপনাদের মেয়েদের সামলান..!

এম এন করিম

২০১৭-০৫-৩১ ২১:৩৬:২৭

অনেক ধর্ষনের খবর মিড়িয়ায় আসলেও আরো অনেক ঘটনা রয়ে যায় মিড়িয়ার আড়ালে। হোক ইচ্ছায় আর অনইচ্ছায়।

Salim Khan

২০১৭-০৫-২৫ ০০:৫০:১৮

মানবজমিনকে অসংক্ষ ধন্যবাদ এজাতীয় একটি উপস্থাপনার জন্য।

আপনার মতামত দিন

‘বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা’

লেবাননে বৃটিশ কূটনীতিককে শ্বাসরোধ করে হত্যা

বিমানে দেখা এরশাদ-ফখরুলের

হলফনামার তথ্য গ্রহণযোগ্য নয়: সুজন

ছিনতাইকারীর টানাটানিতে মায়ের কোল থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

গুজরাট ও হিমাচলে বিজেপিই জিততে চলেছে

আরো ৪০ রোহিঙ্গা গ্রাম ভস্মীভূত:  এইচআরডব্লিউ

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

৭ ঘণ্টা পর পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ফেরি চলাচল শুরু

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’

সৌদিই ব্যতিক্রম

তাদের কি বিবেক বলে কিছু নেই

ঢাকা উত্তরের উপনির্বাচন ফেব্রুয়ারিতে

যেভাবে উগ্রপন্থায় দীক্ষিত হয় আকায়েদ

‘উন্নয়ন কথামালায়, মানুষ কষ্টে আছে’

সারা দেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি আগামীকাল