এ কেমন আচরণ আলিদার!

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২০ মে ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৬
আলিদা সিকদারকে নিয়ে বহু স্বপ্ন দেখেছিল বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। তাকে ঘিরেই পদকের প্রত্যাশা করেছিলেন তারা। আলিদাকে ঘিরে সেই স্বপ্ন আর বাস্তবে রূপ নেয়নি। ইসলামিক সলিডারিটি গেমসে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই আমেরিকান অ্যাথলেটকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছিল বাংলাদেশ দলে। গত মঙ্গলবার তার ১০০ মিটার স্প্রিন্টে অংশ নেয়ার কথা থাকলেও ‘শরীর খারাপ’ বলে নেননি। তার মূল ইভেন্ট লং জাম্পেও অংশ নেননি আলিদা। লাখ লাখ টাকা খরচ করে বাংলাদেশের হয়ে ইসলামিক সলিডারিটি গেমসে খেলতে পাঠানো হয়েছিল তাকে। অথচ বাকুতে বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের (বিওএ) অর্থে থেকেছেন। খেয়েছেন। অথচ না খেলেই চলে গেছেন আমেরিকায়। গেমসে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নিয়ে এক রকম খেলেছেন এই অ্যাথলেট।
শিলং-গৌহাটিতে অনুষ্ঠিত সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসেও অংশ নেয়ার কথা ছিলো আলিদার। তার আগ্রহের ভিত্তিতেই নাম এন্ট্রি করেছিলো বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। সে সময় তাকে প্রশিক্ষণ বাবদ বিপুল পরিমাণ অর্থও যোগানও দিয়েছিলো বাংলাদেশ। ঢাকায় আসার পর বাবা মোমিন শিকদার ও মেয়ে আলিদা শিকদারকে তিন হাজার ডলারের উপহারও দিয়েছিলেন বিওএ’র সহ-সভাপতি শেখ বশির আহমেদ মামুন। ‘দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিক’ খ্যাত ওই গেমসে পদক জয়ের প্রত্যাশাতেই তাকে আনার চেষ্টা করা হয়েছিল। এসএ গেমসের আগে আমেরিকায় ফিরে গিয়ে আর আসেননি আলিদা। তৎকালীন অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিসও বার বার যোগাযোগ রেখেছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দেশের সব প্রত্যাশাকে জলাঞ্জলি দিয়ে আর ঢাকায় আসেননি। এমনকি গৌহাটিতেও যাননি। পেছনের কথা ভুলে এবারের গেমসের আগেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করে বিওএ। আজারবাইজানে যেতে রাজিও হন আলিদা। বাকুতে গিয়েছেন যথা সময়ে। কিন্তু ভ্রমণ ক্লান্তির অযুহাতে ১০০ মিটার স্প্রিন্টে অংশ নেননি। শারীরিক অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ট্র্যাকে নামেননি তার প্রিয় ইভেন্ট লংজাম্পে। গেমসের দু’টি ইভেন্টে বাংলাদেশের অ্যাথলেট হিসেবে নাম অন্তর্ভুক্ত করেও খেলেননি। এতে বিশ্বের ৫৬ টি দেশের ক্রীড়াবিদ ও কর্মকর্তাদের সামনে লাল-সবুজের এই দেশটির ভাবমূর্তি যে ক্ষুণ্ন হয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। দেশের দ্রুততম মানবী শিরিন আক্তারকে পাশ কাটিয়ে আলিদা শিকদারকে পাঠিয়ে দেশের সম্মান নিয়ে ছিনিমিনি খেলায় অ্যাথলেটিক ফেডারেশনের কর্মকর্তাদের দায়ী করলেন ক্রীড়ামোদীরা। সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম চেঙ্গিস বলেন, ‘এসএ গেমসেই বুঝা গেছে আলিদা শিকদারের মতিগতি। সে সময় আমরা শত চেষ্টা করে এবং কয়েক লাখ টাকা খরচ করেও দেশের জন্য খেলাতে পারিনি। এমন অ্যাথলেটকেই কেন যে বিওএ আবার পছন্দ করলো তা বোধগম্য নয়। যে একবার দেশের সঙ্গে প্রহসন করেছে, সে বার বার করবে- এটাই স্বাভাবিক।’ গেমসের আগে আলিদাকে উৎসাহ যোগাতে আমেরিকায় গিয়েছিলেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবদু্‌র রকিব মন্টু। সেখানে গিয়ে তিনি আলিদার মাধ্যমে দেশেকে সোনার পদক উপহার দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছিলেন। এখন সেই মন্টুর কথা, ‘আমি নতুন দায়িত্ব নিয়েছি। তার আগেই বিওএ তাকে (আলিদা) পছন্দ করেছে। এতে আমাদের কোনো সমস্যা নেই। আসলে সে অসুস্থতার কথা বলেছিল। আর তাতেই ট্র্যাকে নামতে পারেনি।’ শেফ দ্য মিশন নুরুল ফজল বুলবুল বলেছেন, ‘আমরা তাকে অনেক বোঝানোর চেষ্টা করেছি, কিন্তু পারিনি। সে পেটের পীড়ায় ভুগছে বলে দাবি করেছে। তবে ডাক্তাররা পরীক্ষা করে কোনো সমস্যা খুঁজে পায়নি। ’এভাবে দেশের ক্রীড়াবিদদের বঞ্চিত করে বারবার প্রবাসী ধনীর দুলাল-দুলালীকে কেন উড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হয় আন্তর্জাতিক গেমসে সে প্রশ্ন উঠেছে ক্রীড়াঙ্গনে।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সাংবাদিক শিমুল হত্যা: পলাতক ৯ আসামীর আত্মসমর্পণ

এমপি এনামুল হকের বিরুদ্ধে জেএমবিকে মদতসহ বিস্তর অভিযোগ

নিহত জঙ্গি আব্দুল্লাহ’র স্ত্রী গ্রেপ্তার

​৩০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ব্যবসায়ী গ্রেপ্তার

নিহত কিশোরের লাশ উদ্ধার

জেএমবির তিন সদস্যের ১৪ বছর কারাদণ্ড

শচীন যা পরেননি পৃথ্বি তা-ই পারলেন

টেকনাফে ৫ কোটি ৭০লক্ষ টাকার ইয়াবা উদ্ধার

‘নিজ অবস্থান থেকে আইন মানলে দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে আসবে’

চাল আমদানি করছেন না ব্যবসায়ীরা

তারেকের গ্রেপ্তার সংক্রান্ত প্রতিবেদন ৩১শে ডিসেম্বর

প্লেবয় মডেল হারতে’র ‘মজা’

ইরাকে আগ্রাসনের হুমকি এরদোগানের

এতিম রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা করা হচ্ছে

মাঝারী ধরনের ভারী বর্ষণের আশঙ্কা

বিস্ময়কর উত্থান ঘটলেও জার্মানিতে এএফডি’র নেতা কে!