হুমকির মুখে সাতগাঁও রাবার বাগানের অস্তিত্ব

বাংলারজমিন

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি | ২০ মে ২০১৭, শনিবার
 কর্তৃপক্ষের উদাসীনতায় মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলের বশিউক সাতগাঁও রাবার বাগানের উৎপাদনশীল প্রায় দুইশতাধিক রাবার গাছ দুষ্কৃতকারীরা কেটে নিয়ে গেছে। একের পর এক গাছ চুরির ঘটনায় সাতগাঁও রাবার বাগানের অস্তিত্ব এখন হুমকির সম্মুখীন। ফলে এ বাগানে কর্মরত শ্রমিকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। রাবার শ্রমিকদের অভিযোগ এ রাবার বাগানে দীর্ঘ কয়েক মাস ধরে সার্বক্ষণিক একজন বাগান ব্যবস্থাপক না থাকার ফলে বাগানের এ বেহাল দশা বিরাজ করছে। তাছাড়া স্থ্থানীয় কর্তৃপক্ষের সঠিক তদারকি না থাকায় গত দুই মাস ধরে উৎপাদনশীল এসব গাছচুরি বেড়েই চলছে। কিছুতেই থামছে না রাবার গাছচুরি।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চলতি বছরের ১২ই এপ্রিলের পর থেকে উৎপাদনশীল মূল্যবান এসব রাবার গাছ প্রতিনিয়ত চুরি হচ্ছে। এখনও রাবার গাছচুরি ঠেকাতে কর্তৃপক্ষের যেন কোনো মাথা ব্যথা নেই। দায়সারা মামলা ঠুকে দায়-দায়িত্ব এড়ানো হচ্ছে। সরজমিন দেখা গেছে, সাতগাঁও রাবার বাগানের ৬ নম্বর টেপিং এলাকার ২৫ নম্বর ব্লকে ৪৭টি রাবার গাছের প্রায় ২ থেকে আড়াই ফুট উচ্চতায় কেটে ফেলে চুরি করে নেয় দুষ্কৃতকারীরা। এসব গাছের মোথা এখন শুধু সাক্ষী গোপাল হিসেবে ঠাঁয় দাঁড়িয়ে আছে। একই টেপিং এলাকার সেগুন বাগানের পাশ থেকে আরো ৩২টি উৎপাদনশীল বড় রাবার গাছ কেটে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ওই রাবার বাগানের ১ নম্বর টেপিং এলাকায় ৮টি, ৪ নম্বর টেপিং এলাকায় ৫টি এবং ৮ নম্বর টেপিং এলাকায় আরো ৮টি উৎপাদনশীল গাছ কেটে নিয়ে গেছে চোরের দল। তাছাড়া রাবার বাগানের বিভিন্ন টেপিং এলাকা থেকে বিচ্ছিন্নভাবে এসব উৎপাদনশীল গাছ কেটে নিয়ে গেছে দুষ্কৃতকারীরা। গাছ কেটে নেয়ার ঘটনায় গত ৩০ এপ্রিল সাতগাঁও রাবার বাগানে সরজমিন তদন্তে আসেন বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের মহাব্যবস্থাপক (রাবার) ইসা ফরাজি। সাধারণ শ্রমিকদের অভিযোগ স্থানীয় রাবার বাগান কর্তৃপক্ষ ওই কর্মকর্তাকে শুধু ৬ নম্বর টেপিং এলাকার কর্তনকৃত ৪৭টি রাবার গাছের মোথা সরজমিন দেখিয়ে ফেরত নিয়ে যান। একইভাবে গত ১০ই মে বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের ডিজিএম মো. শাকিল আহমেদ সাতগাঁও রাবার বাগানে কর্তনকৃত গাছ সরেজমিন দেখতে আসেন। তাকেও একইভাবে স্থানীয় বাগান কর্তৃপক্ষ ৬ নম্বর এলাকায় ৪৭টি কর্তনকৃত গাছের মোথা ও ৪ নম্বর টেপিং এলাকার ৩টি গাছের মোথা দেখিয়ে ফেরত নিয়ে যান বলে অভিযোগ করেন সাধারণ শ্রমিকরা। তাদের অভিযোগ, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বিপদে পড়ার আশঙ্কায় তদন্তে আসা ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঠিক তথ্য সরবরাহ না করে ও কর্তৃনকৃত সব গাছের মোথা না দেখিয়ে ফেরত নিয়ে যান। এদিকে গত ৭ই মে হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলা শহরের হাজী আরজু মিয়ার স মিল থেকে ৩৬ টুকরো রাবার গাছ শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ উদ্ধার করে। একই থানা পুলিশ গত ১৫ বাহুবল উপজেলার মিরপুরের একটি স’মিল থেকে ২০২ টুকরো রাবার গাছ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। বশিউক রাবার বিভাগ সিলেট জোনের মহাব্যবস্থাপক (চলতি দায়িত্ব) জামিল আকতার বকুল বলেন, ‘রাবার গাছ চুরির ঘটনায় রাবার বিভাগ এ পর্যন্ত তিনটি মামলা শ্রীমঙ্গল থানায় দায়ের করেছে। চুরি ঠেকাতে র‌্যাব ও পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে কাজ করছি। এরমধ্যে কিছু গাছ স‘মিল থেকে উদ্ধারও করেছি। গাছচুরির ঘটনায় কারা জড়িত এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সাতগাঁও রাবার বাগানের উৎপাদনশীল রাবার গাছ চুরির সঙ্গে বাগানের কারো না কারোর ইন্ধন আছে বলে সন্দেহ হয়। তবে তিনি জানান, চুরি হওয়া এসব গাছ থেকে রাবার কষ আহরণ করা হলেও এসব গাছ সবই জীবনচক্র হারানো। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বাংলাদেশ বন শিল্প উন্নয়ন করপোরেশনের মহাব্যবস্থাপক (রাবার) ইসা ফরাজি বলেন, ‘চুরি হওয়া সব গাছ থেকেই রাবার কষ আহরণ করা হতো। আমি সরজমিন তদন্ত গিয়ে চুরি হওয়া রাবার গাছের প্রমাণ পেয়েছি। এ বিষয়ে বিহীত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য আমি কর্তৃপক্ষকে সঠিক রিপোর্ট দিয়েছি।’


 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভোলায় যাত্রীবাহি বাস খাদে, নিহত ১

হলিউডে যৌন নির্যাতন ও একটি হ্যাসট্যাগ

আমাজন স্টুডিওর প্রধান কর্মকর্তার পদত্যাগ

চট্টগ্রামে মহাসড়কের পাশে নারীর লাশ

চট্টগ্রামে হোটেলে জুয়ার আসর, ব্যবস্থাপকসহ আটক ৬২

‘আওয়ামী লীগ ইসিকে স্বাধীনতা প্রদান করেছে’

বাংলাদেশেও সেখানকার মতো বিচার ব্যবস্থা দেখতে চান

ছিনতাইকারী ধরতে গিয়ে আহত দুই পুলিশ

‘দর্শকরা একজন শিল্পীর কাছে সব সময় ব্যতিক্রমী কিছু দেখতে চায়’

অস্ট্রেলিয়া গেলেন প্রধান বিচারপতির স্ত্রী সুষমা সিনহা

বিতর্কে নয়া রসদ

মৌলভীবাজারে শোকের মাতম

বিয়ানীবাজারের খালেদের দুঃসহ ইউরোপ যাত্রা

১১ দফা প্রস্তাব নিয়ে ইসিতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ

‘প্রধান বিচারপতি ফিরে এসেই কাজে যোগ দিতে পারবেন’

খালেদা জিয়া ফিরছেন আজ