রিমান্ডে নাঈম আশরাফ

প্রথম পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ১৯ মে ২০১৭, শুক্রবার
বনানীর ধর্ষণ মামলার আসামি নাঈম আশরাফকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছে আদালত। ঢাকার মহানগর হাকিম এসএম মাসুদ জামান গতকাল এ আদেশ দেন। বুধবার রাতে মুন্সীগঞ্জে গ্রেপ্তারের পর গতকাল তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড চায় পুলিশ। আদালত সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।
এদিকে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার চার আসামি অভিযোগ স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের মিডিয়া সেন্টারে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে মনিরুল ইসলাম বলেন, রিমান্ডে চার আসামি অভিযোগ অনেকটাই স্বীকার করেছে। তাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য তারা যাচাই বাছাই করা হচ্ছে।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নারী নির্যাতন দমন আইনে ধর্ষণের যে সংজ্ঞা দেয়া আছে সে অনুযায়ী অভিযোগের সমর্থনে প্রাথমিক কিছু তথ্য জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া গেছে। তবে এ ঘটনার খুঁটিনাটি নিয়ে এখনই সংবাদমাধ্যমের সামনে বিস্তারিত বলা সমীচীন হবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত এই ঘটনার মেইন একিউজড (নাঈম আশরাফ), তাকে জিজ্ঞাসাবাদ কেবল শুরু হয়েছে। সেখানে সেক্সুয়াল ইন্টারকোর্সের কথা আমরা জানতে পেরেছি। কী পরিস্থিতিতে কী হয়েছিল জিজ্ঞাসাবাদ শেষেই আমরা তা নিশ্চিত করতে পারবো।
এক প্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, মামলার বাদীর ভাষ্য অনুযায়ী সেদিন রাতে নাঈম আশরাফের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি বিতর্কিত ছিল।  গ্রেপ্তারের পর তাকে ডিবি কার্যালয়ে আনা হয়। সেখানে ওমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন্সের তদন্ত কর্মকর্তারা তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করেন। জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম ধর্ষণের বিষয়টি স্বীকার করেছেন।
জিজ্ঞাসাবাদে নাঈম আশরাফের দেয়া তথ্য সম্পর্কে তিনি বলেন, নাঈমও প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অপরাধের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। রিমান্ডে তার কাছ থেকে আরো তথ্য পাওয়া যাবে বলে আশা করছেন তিনি। আসামিদের প্রভাব সম্পর্কে জানতে চাইলে মনিরুল ইসলাম বলেন, আইনের কাছে প্রভাবশালী বলে কিছু নেই। অপরাধী অপরাধীই। ওই ঘটনায় আরো কেউ জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধেও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Mohib

২০১৭-০৫-১৯ ১০:১১:৩৩

আইন দূর্বালদের জন্য, সবলরা ফাক দিয়ে বেরিয়ে আসে।

আপনার মতামত দিন