টঙ্গীতে শিশু ধর্ষণ, আটক ১

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, টঙ্গী (গাজীপুর) থেকে | ১৯ মে ২০১৭, শুক্রবার
 টঙ্গীতে আট বছরের এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে ও পরে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। প্রতিবেশীরা অভিযুক্ত ধর্ষক বখাটে মাহফুজকে আটক করে থানা পুলিশে সোপর্দ করে। ধর্ষণের শিকার হওয়া মেয়েটির মায়ের আহাজারিতে হাসপাতালে শোকাবহ পরিবেশ বিরাজ করছে। তিনি ওই বখাটে ধর্ষণকারীর কঠোর শাস্তি দাবি করেছেন। স্থানীয়রা জানায়, নগরের টঙ্গীর খরতৈল এলাকায় বসবাসরত ওই শিশুর মা স্থানীয় ভিয়েলাটেক্স নামের গার্মেন্ট কারখানায় ঝাড়ুদারের কাজ করে। আর বাবা রিকশাচালক। তাদের গ্রামের বাড়ি জামালপুরের বকশিগঞ্জে। গতকাল সকালে তারা শিশু কন্যাকে তাদের ভাড়া বাসায় রেখে কাজে যান। এই সুযোগে ওই ভাড়া বাসার অপর ভাড়াটিয়া মাহফুজ (১৮) শিশুটিকে ডেকে তার ঘরে নেয়। একপর্যায়ে মুখে রুমাল চেপে ধরে শিশুটির ওপর পাশবিক নির্যাতন চালায়।

 মেয়েটির চিৎকারে আশপাশের লোকজন আসার আগেই মাহফুজ পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী আশপাশে খোঁজাখুঁজি করে তাকে আটক করে টঙ্গী থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সাদেকা আফরিন জানান, মানুষিক ও শারীরিকভাবে খুবই অসুস্থ শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করে নিবিড়  পর্যবেক্ষণে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তবে ধর্ষণের বিষয়টি সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর বলতে পারবেন।
টঙ্গী থানার ওসি ফিরোজ তালুকাদার জানান, এ বিষয়ে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে। অভিযুক্ত ধর্ষক মাহফুজকে আটকে করে থানা হাজতে রাখা হয়েছে। তাকে শুক্রবার আদালতে পাঠানো হবে।


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন