জার্মানিতে গুরুত্বপূর্ণ জয় পেল মারকেলের দল

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৬ মে ২০১৭, মঙ্গলবার
জার্মানির নর্থ রাইনে-ওয়েস্টফালিয়া রাজ্যের নির্বাচনে বড় জয় পেয়েছে চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেলের দল খ্রিস্টান ডেমোক্রেটিক ইউনিয়ন। ওই রাজ্যটি মাঝে ৫ বছর বাদ দিয়ে এতদিন মধ্য-বামপন্থি দল সোশাল ডেমোক্রেটদের দখলে ছিল ১৯৬৬ সাল থেকে। সোশাল ডেমোক্রেট নেতা মার্টিন শুলজের অধীনে ছিল এ রাজ্য। কিন্তু তাদেরকে হটিয়ে দিয়েছে মারকেলের খ্রিস্টান ডেমোক্রেটরা। আগামী সেপ্টেম্বরে জার্মানিতে জাতীয় নির্বাচন। তার আগে মারকেলের দলের এ বিজয়কে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে।
বিশেষ করে এতে জাতীয় নির্বাচনে তার প্রতি চ্যালেঞ্জা জানাবে যে সোশাল ডেমোক্রেটরা তারা বড় ধরনের হোঁচট খাবে। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট। এতে বলা হয়েছে, জার্মানিতে সবচেয়ে বেশি জনবহুল রাজ্য হলো পশ্চিমের নর্থ রাইনে-ওয়েস্টফালিয়া রাজ্য। এটা হলো সোশাল ডেমোক্রেট নেতা মার্টিন শুলজের রাজ্য। আগামী ২৪ শে সেপ্টেম্বর জার্মানিতে জাতীয় নির্বাচন। এতে চতুর্থবারের জন্য নির্বাচন করতে যাচ্ছেন চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মারকেল। তিনি যাতে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে না পারেন সে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সোশাল ডেমোক্রেটরা। এর আগে দুটি রাজ্যে নির্বাচনে পরাজিত হয়েছে মার্টিন শুলজের দল। তারপর তিনি ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু সেক্ষেত্রে মারকেলের কাছে তিনি বড় ধাক্কা খেলেন। রাজ্যের নির্বাচনে খ্রিস্টান ডেমোক্রেটিক পেয়েছে শতকরা ৩৩ ভাগ ভোট। আর সোশাল ডেমোক্রেটরা পেয়েছে শতকরা ৩১.২ ভাগ ভোট। তবে এতে ভেঙে পড়েন নি মার্টিন শুলজ। তিনি বলেছেন, আমরা লড়াই চালিয়েই যাবো। মূল ফল দেখা যাবে ২৪ শে সেপ্টেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সাবেক প্রক্টর কারাগারে, প্রতিবাদে অবরুদ্ধ চবি

আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিন স্থগিত

এবারে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস

‘বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা’

লেবাননে বৃটিশ কূটনীতিককে শ্বাসরোধ করে হত্যা

বিমানে দেখা এরশাদ-ফখরুলের

হলফনামার তথ্য গ্রহণযোগ্য নয়: সুজন

ছিনতাইকারীর টানাটানিতে মায়ের কোল থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

গুজরাট ও হিমাচলে বিজেপিই জিততে চলেছে

আরো ৪০ রোহিঙ্গা গ্রাম ভস্মীভূত:  এইচআরডব্লিউ

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’

সৌদিই ব্যতিক্রম

তাদের কি বিবেক বলে কিছু নেই

ঢাকা উত্তরের উপনির্বাচন ফেব্রুয়ারিতে

‘উন্নয়ন কথামালায়, মানুষ কষ্টে আছে’