প্রশ্নপত্র ফাঁস

ইবি’র ১০০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিল

শিক্ষাঙ্গন

ইবি প্রতিনিধি | ৮ মে ২০১৭, সোমবার
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই বিভাগে ভর্তি হওয়া  ১০০ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্ট। একই সঙ্গে পুনঃপরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১০০ শিক্ষার্থীকে আগামী সাতদিনের মধ্যে ভর্তি হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কোর্ট। রোববার আপিল বিভাগের প্রধান বিচারপতিসহ সাত সদস্যের একটি বেঞ্চ এ রায় দেন।
এর আগে গত বছরের ৭ই নভেম্বর ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ‘এফ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ তদন্তে প্রমাণিত হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট ওই পরীক্ষা বাতিল করে পুনরায় ভর্তি পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। একই সঙ্গে দুই বিভাগে ভর্তি হওয়া একশ জনের ভর্তি বাতিল করে সিন্ডিকেট। এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ৮৮ জন শিক্ষার্থী হাইকোর্টে রিট করেন। রিটের পরিপ্রেক্ষিতে ছয় মাসের জন্য ভর্তি বাতিলের সিদ্ধান্ত স্থগিত ও পুনঃপরীক্ষার নির্দেশ দিয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। পরে রায় অনুযায়ী আবারো পরীক্ষা গ্রহণ করে প্রশাসন। এতে প্রথম ১০০ শিক্ষার্থীর ৩৪ জনসহ মোট ১০০ শিক্ষার্থী মেধাতালিকায় স্থান পায়। উভয় পরীক্ষার ফল বিশ্লেষণ করে হাইকোর্ট থেকে ২০০ শিক্ষার্থীকেই ভর্তি করানোর রায় দেন। পরে সে রায়ের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আপিল করে। আপিলের প্রেক্ষিতে  রোববার চূড়ান্ত রায় দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট। রায়ে প্রথম ১০০ জনের ভর্তি বাতিল করে পরবর্তী ১০০ শিক্ষার্থীকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে ভর্তি করানোর নিদের্শ দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এর মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্তই বহাল রইল। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এসএম আবদুল লতিফ বলেন, ‘হাইকোর্টের রায়কে স্থগিত করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত বহাল রেখেছেন সুপ্রিম কোর্ট। আগামী সাত দিনের মধ্যে ২য় বারের ১০০ শিক্ষার্থীকে ভর্তি করানোর নির্দেশ দিয়েছেন আপিল বিভাগ। রায়ের কপি পেলেই আমারা ভর্তির কাজ শুরু করবো।’ ভিসি প্রফেসর ড. রাশিদ আসকারী বলেন, ‘রায় শুনেছি, কিন্তু কপি পাইনি। প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ আমলে নিয়ে মহামান্য আদালত যে রায় দিয়েছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট।’

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন