চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের ৭ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে মামলা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ২২ এপ্রিল ২০১৭, শনিবার
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এক নেতাকে পরীক্ষার অনুমতি না দেয়াকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় দলের ৭ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে। গতকাল শুক্রবার হাটহাজারী থানায় এ মামলা দায়ের করে পুলিশ। মামলায় ২০ থেকে ২৫ জন অজ্ঞাতনামাকে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। হাটহাজারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলাল উদ্দীন জাহাঙ্গীর বলেন, ‘চবিতে পুলিশের সাথে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছে। এ মামলায় ছাত্রলীগের সাতজন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ২০ থেকে ২৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। তবে আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।’ মামলায় আসামি হিসেবে নাম উল্লেখ করা ছাত্রলীগের সাত নেতাকর্মীর নাম জানাতে অস্বীকৃতি জানান জাহাঙ্গীর। গত বৃহস্পতিবার চবি ছাত্রলীগ নেতা এবং যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী আবদুুল্লাহ আল কায়সারকে চতুর্থবর্ষের পরীক্ষায় অংশগ্রহণে অনুমতি না দেয়ায় পরীক্ষার হলের সামনে জড়ো হয় ৩০ থেকে ৪০ জন ছাত্রলীগকর্মী। খবর পেয়ে পুলিশ ও প্রক্টরিয়াল বডি ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর পরীক্ষার হলের সামনে থেকে তাদের সরে যেতে বলে পুলিশ। কিন্তু তারা হলের সামনে থেকে না সরায় তাদের উপর লাঠিচার্জ করে পুলিশ। তারা সেখান থেকে সরে গিয়ে কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরোপয়েন্ট এলাকায় মূল ফটক বন্ধ করে তারা বিক্ষোভ করতে চাইলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়। পরবর্তীতে ছাত্রলীগ কর্মীরা ও পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করলে পুলিশ তাদের উপর লাঠিচার্জ করে। এ ঘটনায় পুলিশসহ ১৫ জন আহত হয়। সংঘর্ষের পর ছাত্রলীগ কর্মীরা শাটলের পাঁচটি বগির হোসপাইপ কেটে দেয়। এ ঘটনার পর চবি’র যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৪০১ নং কোর্সের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। চবি’র ছাত্রলীগ নেতা মাহবুবুল হক শাহিনকে কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় গত বছরের ডিসেম্বর মাসে আবদুল্লাহ আল কায়সারকে দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। কায়সার নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন এবং চবি ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুলের অনুসারী হিসেবে ক্যাম্পাসে পরিচিত। এ ঘটনার পর ওইদিন শৃঙ্খলা ভঙ্গের অপরাধে চবি ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুল এবং সহ-সম্পাদক আবদুল্লাহ আল কায়সারকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

যুবলীগ নেতাকে অস্ত্রের মুখে অপহরন

ধুমপানে বাধা দেয়ায় দোকানিকে সিগারেটের ছ্যাঁকা

পারমাণবিক যুদ্ধের হিম আতঙ্ক

লেবার নেতা হিসেবে সাদিক খানকে দেখতে চান বৃটিশ ভোটাররা

রোহিঙ্গাদের সমর্থনে বোস্টনে প্রতিবাদ বিক্ষোভ

কর্ণফুলীতে বিএনপির তিন প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন

মনিপুর থেকে ১০৭ ‘বাংলাদেশী’ পুশব্যাক

পূর্ব লন্ডনে এসিড হামলায় আহত ৬

সাদুল্যাপুরে ১১২ মেট্রিক টন চাল জব্দ, গুদাম সিলগালা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে এবার বিমসটেকেও ছায়া পড়েছে

রাজধানীতে আগুনে পুড়ে নিহত ১

চতুর্থ দফা ক্ষমতার দিকে দৃষ্টি মার্কেলের

‘অযথা এসব গুঞ্জনের কোন মানে হয় না’

সন্তানের নাড়ি কাটার সময়ও পাননি হামিদা

সেনাবাহিনীর কার্যক্রম শুরু, ফিরছে শৃঙ্খলা

কাল থেকে গণশুনানি