বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে বিদেশি শিক্ষার্থী বাড়ছে

এক্সক্লুসিভ

ফরিদ উদ্দিন আহমেদ | ২২ এপ্রিল ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৮
আহমেদ ও ফারহা। দু’জনই বিদেশি শিক্ষার্থী। ভারতের কাশ্মীর থেকে বাংলাদেশে পড়তে এসেছেন। মেডিকেল শিক্ষা অর্জন করাই তাদের মূল উদ্দেশ্য। দু’জনই প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। পড়েন রাজধানীর ধানমন্ডির বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজে। তারা জানান, ভারতের মেডিকেল কলেজগুলোর চেয়ে বাংলাদেশের মেডিকেল কলেজের টিউশন ফি অনেক কম। পরিবেশও সুন্দর। তারা এদেশের অন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সহজে মিশতে পারেন। এদেশের শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটি ভ্রাতৃত্ব আচরণ খুঁজে পান। ফলে দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশের চেয়ে তারা এবং তাদের মতো অনেকেই কাশ্মীর থেকে বাংলাদেশে পড়তে আসেন। আহমেদ জানান, তাদের সঙ্গে ৪৫ জনের মতো বিদেশি শিক্ষার্থী আছে বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজে। তাদের বেশির ভাগই কাশ্মীর ও নেপালি।
সূত্র জানায়, দেশের বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে বিদেশি শিক্ষার্থী দিন দিন বাড়ছে। বেসরকারি মেডিকেল কলেজ স্থাপন ও পরিচালনা নীতিমালা অনুসারে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানই মোট আসনের সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তি হতে পারে। এক্ষেত্রে প্রতি বিদেশি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে প্রতিষ্ঠান ভেদে ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার ডলার ফি আদায় করা হয় পাঁচ বছরের জন্য। সূত্র জানায়, চলতি ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে ১৫শ’ বিদেশি শিক্ষার্থী দেশের সরকারি-বেসরকারি মেডিকেলে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে সরকারি মেডিকেল কলেজে বৃত্তি নিয়ে ভর্তি হয়েছেন ৬০ জন শিক্ষার্থী। এই ৬০ জন সার্কভুক্ত দেশের শিক্ষার্থী রয়েছেন। দেশগুলো হচ্ছে ভারত, নেপাল, পাকিস্তান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, ভুটান ও আফগানিস্তান। তবে আফগানিস্তান থেকে এখনো কেউ মেডিকেলে ভর্তি হতে আসেননি বলে জানা গেছে। যদিও  ফ্রি বা বৃত্তি কোটায় ১০৩ জন শিক্ষার্থী ভর্তি হওয়ার কথা ছিল। ১৫শ’ জন বিদেশি শিক্ষার্থীর মধ্যে বাকিরা দেশের বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।  জানা গেছে, এবারে ১৫শ’ জন বিদেশি শিক্ষার্থীর মধ্যে এক হাজার শিক্ষার্থী ভারত থেকে এবং বাকিরা বেশির ভাগই নেপালি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সূত্র মতে, ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে দেশের বিভিন্ন মেডিকেলে ভর্তি হয়েছিল ৯৮৩ জন শিক্ষার্থী, ২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে ৮৫০ জন শিক্ষার্থী এবং ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষে ৭৫০ জন বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তি হয়েছেন।
সমপ্রতি  প্রকাশিত  আইন কমিশনের এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে, দেশে বেসরকারি মেডিকেল কলেজের সংখ্যা ৭২টি। সূত্র মতে, এর মধ্যে শিক্ষক, শিক্ষা উপকরণ ও অবকাঠামো মিলিয়ে ২৫ থেকে ৩০টি মেডিকেল কলেজ ভালো মানের। এসব বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে প্রতি শিক্ষাবর্ষেই বিপুলসংখ্যক বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তি হয়। পরের মেডিকেল কলেজগুলোতে তেমন শিক্ষার্থী ভর্তি হতে আসে না। ফলে আসন শূন্য থাকে। তখন স্থানীয় শিক্ষার্থী বা দেশের ছাত্রছাত্রী ভর্তি করতে হয় ওইসব মেডিকেল কলেজগুলোকে। ১৬ থেকে ১৭টি বেসরকারি কলেজে কোনো বিদেশি শিক্ষার্থী নেই। এসব মেডিকেল কলেজ এখনো তাদের শর্তপূরণ করতে পারেননি। ঢাকায় ও ঢাকার বাইরের অনেক কলেজ রয়েছে এর মধ্যে। বিদেশি শিক্ষার্থী ভর্তির দিক দিয়ে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশের প্রথম বেসরকারি কলেজ বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ। এখানে ৪৫ জনের মতো বিদেশি শিক্ষার্থী রয়েছেন এবার। এরপর ন্যাশনাল  মেডিকেল কলেজ, হলিফ্যামিলি রেডক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ। সূত্র আরো জানায়, এদেশের বেসরকারি মেডিকেল কলেজগুলোতে প্রধানত নেপাল ও ভারতের কাশ্মীর থেকেই বেশি শিক্ষার্থী আসে। তারা প্রথম সারির মেডিকেল কলেজগুলোকেই পছন্দের তালিকায় রাখেন।
বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. এমএ রউফ সরদার এই প্রসঙ্গে মানবজমিনকে বলেন, আমাদের এখানে ভারত, নেপাল ও মালদ্বীপ থেকে বেশি শিক্ষার্থী আসে। কারণ হিসেবে তিনি উল্লেখ করেন পড়াশোনার খরচ কম। পরিবেশ ভালো। বিদেশি শিক্ষার্থীরা এখানে স্বাছন্দ্য বোধ করেন। তাদের কলেজে বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য হোস্টেল সুবিধা রয়েছে। বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজে মোট ১২০টি আসন রয়েছে। তাদের কলেজে কোনো আসন শূন্য থাকে না বলে তিনি উল্লেখ করেন।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের (চিকিৎসা, শিক্ষা ও জনশক্তি উন্নয়ন)  অধ্যাপক ডা. আবদুর রশিদ বলেন, প্রতি বছর বিদেশি শিক্ষার্থীর সংখ্যা বাড়ছে। কারণ  অন্যান্য  দেশের তুলনায় বিশেষ করে নেপাল, ভুটানের চেয়ে মেডিকেল শিক্ষার খরচ কম। বাংলাদেশের কিছু বেসরকারি মেডিকেল কলেজ আছে, তারা বিদেশি শিক্ষার্থীদের বেশ আকৃষ্ট করতে পেরেছে। ফলে তারা এখানে আসছেন।


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাংলামোটরে বাস চাপায় রিকশা চালক নিহত, গাড়িতে আগুন

চীন, ভারত ও রাশিয়ার সঙ্গে ব্যাপকভিত্তিক আলোচনায় ঢাকা

গলায় ছুরি বসানোর পর যেভাবে বেঁচে আসেন রোহিঙ্গা যুবক

স্মার্টকার্ড প্রকল্পে তালগোল সেনাবাহিনীকে দায়িত্ব দিতে চায় ইসি

রিজলভের জরিপ কী বার্তা দিচ্ছে

রোহিঙ্গাদের বাঙালি বানানোর কুপরিকল্পিত বর্মী কৌশল

এবার ধরা খেলেন সচিব ও পুলিশ কর্মকর্তা

কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা

সংখ্যালঘুরা সরকার গঠনে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে

গলা টিপে ধরতেই আফসানার দেহ নিথর হয়ে পড়ে

আওয়ামী লীগে স্নায়ুযুদ্ধ বিএনপি’র শেখ সুজাত

রোহিঙ্গা ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক কাল

ভুটানে ব্যান্ডউইথ রপ্তানি নিয়ে নতুন জটিলতা

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় চট্টগ্রামে ১০ শিক্ষকের জামিন

সীমান্তে স্থল মাইন বিস্ফোরণে রোহিঙ্গা যুবক নিহত

সাংবাদিক শিমুল হত্যা: পলাতক ৯ আসামীর আত্মসমর্পণ