সিলেটে ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের আলোচনা সভায় বক্তারা

‘প্রশিক্ষিত নেতাকর্মীরাই গণতন্ত্রের নিয়ামক’

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট থেকে | ২১ এপ্রিল ২০১৭, শুক্রবার
 রাজনৈতিক দলগুলোকে গণতান্ত্রিক ধারায় আনতে হলে নেতাকর্মীদের মধ্যে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ সৃষ্টি করতে হবে। এ মূল্যবোধ কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে তৃণমূলের মধ্যে তৈরি করতে হবে। বিশেষ করে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ছাত্রসংগঠনগুলোকে গণতন্ত্রমুখী করে গড়ে তুলতে হবে। ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের সিলেট বিভাগীয় অফিসের আয়োজনে গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণ ও সংস্কার প্রকল্পের সাফল্য উদযাপন উপলক্ষে ‘ডেমোক্রিসি চ্যাম্পিয়ন’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের ‘গণতান্ত্রিক অংশগ্রহণ ও সংস্কার’ প্রকল্পের সাফল্য উদযাপন উপলক্ষে গতকাল বৃহস্পতিবার সিলেটের রোজভিউ হোটেলে এক টেবিলে বসেছিল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ও অব্যাহত রাখার ব্যাপারে অনেক অভিমত দেন নেতারা। ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের সিলেটের ঊর্ধ্বতন আঞ্চলিক সমন্বয়কারী সুদিপ্ত চৌধুরী ও সিলেট জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মো. আব্দুল কাইয়ুম এবং তারান্নুম চৌধুরীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সহসাংগঠনিক সম্পাদক দিলদার হোসেন সেলিম, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান, সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামছুন নাহার শাহানা রব্বানী, সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন। ডা. সাখাওয়াত হাসান জীবন তার বক্তব্যে বলেন, আমাদের নেতাকর্মীরা দলের হাইকমান্ড নির্ভর। কমিটি গঠন থেকে শুরু করে সব কার্যক্রম চলে ওপরের নির্দেশনা মোতাবেক। ফলে সব কাজে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের ‘ম্যানেজ’ করার চেষ্টা চলে। যা একটি দলের জন্য খুবই লজ্জাজনক। এ ধরনের অভ্যাস থেকে আমাদের বেরিয়ে আসা দরকার। বদরউদ্দিন আহমদ কামরান বলেন,  রাজনীতিতে সক্রিয় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে কাজ করছে আওয়ামী লীগ সরকার। জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদে নারী নেতৃত্বের বিকাশ তার প্রমাণ। সব দলের নেতাদের এমন মানসিকতা তৈরি করতে হবে। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট হাদিয়া চৌধুরী মুন্নী, সিলেট মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক  মিফতাহ সিদ্দিকী, সিলেট মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কাউন্সিলর শাহানারা বেগম, সাধারণ সম্পাদক আসমা কামরান, সিলেট জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সালমা সুুলতানা, সিলেট জেলা জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের সভাপতি পাপিয়া চৌধুরী, মহানগর সভাপতি অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, জেলা সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর সালেহা কবির শেপী, মহানগর সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রোকসানা বেগম শাহনাজ। এছাড়া সিলেট মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জের আওয়ামী লীগ, বিএনপি, মহিলা আওয়ামী লীগ ও মহিলা দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন