চট্টগ্রামে ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের বিরুদ্ধে দুই মামলা

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ২০ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:১২
 চট্টগ্রামে সুইমিং পুল নির্মাণের কাজ ভাঙচুর করার সময় বাধা দেয়ায় পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় নগর ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ ৭৮ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। কোতোয়ালি থানা পুলিশ জানায়, সুইমিংপুল প্রকল্প এলাকায় ভাঙচুরের ঘটনায় ব্যবস্থাপক শফিকুল ইসলাম স্বপন নিজেই একটি মামলা করেছেন। অন্যদিকে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় এসআই মহিউদ্দিন রতন বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। কোতোয়ালি থানার এসআই রোকেয়া পারভীন। বলেন, এখন পর্যন্ত দুটি মামলা হয়েছে। দুই মামলার একটিতে ৫৮ জন, আরেকটিতে ২০ জনকে আসামি করা হয়েছে। দুটো মামলাতেই ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনির নাম রয়েছে। তিনি আরো বলেন, দুই ঘটনায় অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে অন্তত ৪০০ জনকে। আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পুলিশের দায়ের করা মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, মঙ্গলবার ঘটনার দিন বিকেল ৪টায় চট্টগ্রামে সুইমিং পুল নির্মাণের কাজ বন্ধ করা নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা চালায় নাম উল্লেখকারীরা। এই সময় তারা বাধা পেয়ে অন্তত ১০-২০টি গাড়ি ভাঙচুর করেছে। এই ঘটনায় রাস্তায় এক ঘণ্টা গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকে। লোকজনের মধ্যে আতঙ্ক বাড়ে। অনেকে ছোটাছুটি করতে গিয়ে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। নগরীর আউটার স্টেডিয়ামে সুইমিং পুল নির্মাণের সময় ঘটে এই ঘটনা। বিকেল ৪টায় বন্দর নগরীর কাজীর দেউরি মোড়ের কাছে আউটার স্টেডিয়ামের ওই সুইমিং পুলের কাজ বন্ধ রাখতে হঠাৎ করে কিছু ছেলেপেলে মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচি শুরু করে। এই সময় আউটার স্টেডিয়ামে গিয়ে কর্মচারীদের মারধর করেন কয়েকজন নেতাকর্মী। খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ উপস্থিত হলে দুই পক্ষের মধ্যে বেড়ে যায় উত্তেজনা। উচ্ছৃঙ্খল যুবকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে প্রচুর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশও ফাঁকা গুলি ছোড়ে।  


 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন