‘আগাম নির্বাচন রাজনীতির চরম ভুল হিসাব, সময় হলেই দ্বিতীয় গণভোট’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ এপ্রিল ২০১৭, বুধবার
বৃটেনে প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে-র আগাম নির্বাচনকে ‘রাজনীতিতে চরম ভুল হিসাব নিকাশ’ বলে আখ্যায়িত করেছেন স্কটল্যান্ডের ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টারজেন।  তিনি বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী যে উদ্যোগ নিয়েছেন তা তার ব্যতিক্রমী গতি পরিবর্তন। এখন সময় এসে গেছে স্কটল্যান্ডের কথা শোনার। স্কটল্যান্ডের ভবিষ্যত নির্ধারণ করবে স্কটিশরা, ক্ষমতাসীন সরকার নয়। সময় হলেই স্বাধীনতার প্রশ্নে দ্বিতীয় গণভোট হবে। এ ছাড়াও তিনি প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে-র কড়া সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, লেবার দলের শীর্ষ পদগুলোতে যখন বিশৃংখল অবস্থা তখন নির্বাচন দিয়ে বিরোধীদের নিঃশ্বেষ করে দেয়ার পরিকল্পনা নিয়েছেন তেরেসা। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। উল্লেখ্য, বৃটেন থেকে বেরিয়ে নিজেদের স্বাধীন করার জন্য দীর্ঘদিন ধরে তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে স্কটল্যান্ড। এ বিষয়ে একটি গণভোট হয়ে গেছে। দ্বিতীয় আরেকটি গণভোট অনুমোদন করেছে স্কটল্যান্ডের পার্লামেন্ট। এ ছাড়া স্কটল্যান্ড, বিশেষ করে নিকোলা স্টারজেনের স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টি (এসএনপি) ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে থাকার পক্ষে। এসব নিয়ে প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে-র সঙ্গে নিকোলা স্টারজেনের বেশ দর কষাকষি হয়েছে, হচ্ছে। তেরেসা মে মঙ্গলবার আকস্মিকভাবে আগাম নির্বাচন ঘোষণা করেন। সে অনুযায়ী ৮ই জুন নির্বাচন হওয়ার কথা। দেশের স্থিতিশীলতা সহ আরো কিছু ইস্যুতে তিনি এ নির্বাচন আহ্বান করেছেন। আজ বুধবার তার প্রস্তাবিত এ নির্বাচনের ওপর হাউজ অব কমন্সে ভোট হওয়ার কথা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এতে তিনি প্রস্তাব পাসের জন্য প্রয়োজনীয় দুই-তৃতীয়াংশ এমপির সমর্থন পাবেন। বৃটেনে আগামী জাতীয় নির্বাচন হওয়ার নির্ধারিত সময় হলো ২০২০ সাল। কিন্তু তেরেসা মে-র প্রস্তাব পাস হলে ৮ই জুন হচ্ছে আগাম নির্বাচন। উল্লেখ্য, তার এ প্রস্তাবের বিরোধিতা কোনো বিরোধী দল করবে এমন ইঙ্গিত মেলে নি। ফেরা যাক স্কটল্যান্ড প্রসঙ্গে। সেখানে আসন আছে ৫৯টি। ২০১৫ সালের জাতীয় নির্বাচনে এর মধ্যে ৫৬টি আসনেই জয়ী হয় নিকোলা স্টারজেনের এসএনপি। বাকি তিনটি আসনের একটি করে পায় কনজার্ভেটিভ, লেবার ও লিবারেল ডেমোক্রেটরা। সেখানে নতুন নির্বাচনে এবার বেশি আসনে বিজয় পাওয়ার আশা করছে স্কটিশ কনজার্ভেটিভ পার্টি। এ দলের নেতা রুথ ডেভিডসন বলেছেন, তার দল প্রস্তুত। সুসংগঠিত। এবার বেশি আসনে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী। স্কটিশ লেবার পার্টিও বলেছে তারাও নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত। লিবারেল ডেমোক্রেটরা পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করছে। যদি স্কটিশ সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটার ইউরোপীয় ইউনিয়নপন্থি দলগুলোকে ভোট দেয় তাহলে বৃটিশ সরকার নিয়ে প্রশ্ন তুলতে চায় স্কটিশ গ্রিন পার্টি। এখন প্রশ্ন হলোÑ ৮ই জুনের নির্বাচন কি স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতা প্রশ্নে গণভোটের ওপর কোনো প্রভাব ফেলবে? ফার্স্ট মিনিস্টার নিকোলা স্টারজেন বলেছেন, গণভোটের ম্যান্ডেটের জন্য এই নির্বাচনকে ব্যবহার করার কোনো প্রয়োজন নেই তার। কারণ, দ্বিতীয় গণভোটের অনুমোদন তাকে এরই মধ্যে দিয়ে দিয়েছে স্কটিশ পার্লামেন্ট। তবুও এ নির্বাচনে তিনি নিজেদের ভবিষ্যত বেছে নেয়ার চেষ্টা করবেন। আগাম নির্বাচন নিয়ে তিনি প্রধানমন্ত্রী তেরেসার সমালোচনা করেছেন। বলেছেন, এ নির্বাচনের মাধ্যমে তার নিজের দলের স্বার্থ পুরো দেশে ছড়িয়ে দিচ্ছেন। কারণ, তিনি এখন সুযোগ দেখছেন। তিনি দেখছেন বিরোধী লেবার দলের শীর্ষ পদগুলোতে বিশৃংখল অবস্থা। তাই বিরোধী দলগুলোকে দুমড়ে মুষড়ে দেয়ার কৌশল নিয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে একমত নন এমন জনগণের থেকে মুক্তি পাওয়ার চেষ্টা করছেন। তিনি দেশের ক্ষমতাকে মুক্ত হাতে পরিচালিত করার কৌশল খুঁজছেন। কিন্তু এর অর্থ কঠোর ব্রেক্সিটই নয়, কঠোরতা ও গভীর ক্ষত। তাই এখন সময় স্কটল্যান্ডের কথা শোনার। স্কটল্যান্ডের মানুষ কেমন দেশ চান তার পক্ষে দাঁড়ানোর সময়। আগামী সপ্তাহগুলোতে আমি এ বিষয়েই প্রচারণা চালাবো। নিকোলা স্টারজেন আরো পরিষ্কার করে বলেন, দ্বিতীয় গণভোটের বিষয়ে তিনি সুস্পষ্ট। এই প্রচারণার মধ্য দিয়ে তিনি তা আরো পরিষ্কার করবেন। যখন সময় হবে তখনই স্কটল্যান্ড তার নিজের ভবিষ্যত নির্ধারণ করবে। টরি (ক্ষমতাসীন কনজার্ভেটিভ দল) সরকারকে আমাদের ভবিষ্যত নির্ধারণ করতে দেবো না। আমরা সে পথেই নিয়ে যাবো এ নির্বাচনকে।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কর্ণফুলীতে বিএনপির তিন প্রার্থীর নির্বাচন বর্জন

পূর্ব লন্ডনে এসিড হামলায় আহত ৬

সাদুল্যাপুরে ১১২ মেট্রিক টন চাল জব্দ, গুদাম সিলগালা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে এবার বিমসটেকেও ছায়া পড়েছে

রাজধানীতে আগুনে পুড়ে নিহত ১

চতুর্থ দফা ক্ষমতার দিকে দৃষ্টি মার্কেলের

‘অযথা এসব গুঞ্জনের কোন মানে হয় না’

সন্তানের নাড়ি কাটার সময়ও পাননি হামিদা

সেনাবাহিনীর কার্যক্রম শুরু, ফিরছে শৃঙ্খলা

কাল থেকে গণশুনানি

সার্ক সম্মেলন নিয়ে এবারও অনিশ্চয়তা

মাদরাসায় শিক্ষক নিয়োগ মন্ত্রণালয়ে অভিযোগের স্তূপ

যেখানে এখনো পৌঁছেনি ত্রাণ

স্বস্তিতে বিএনপি আওয়ামী লীগ টেনশনে

চলছে পূজার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি

বজ্রপাতে নিহত ১১