মমতার শিরচ্ছেদ করলে ১১ লাখ রুপি পুরস্কার ঘোষণা বিজেপি নেতার

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৩ এপ্রিল ২০১৭, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৪
এতদিন মুসলিম মৌলভী ও ইমামরাই ফতোয় জারি করতেন। এবার হিন্দু নেতাও ফতোয়া জারি শুরু করেছেন। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এমন ফতোয়া জারি করেছেন হিন্দুবাদী দল বিজেপি’র যুব মোর্চার এক নেতা। উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে যোগেশ ভার্সনে নামের এক বিজেপি যুব নেতা বুধবার বলেছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাথা কেটে কেউ তাঁর হাতে দিলে, ‘পুরস্কার’ হিসাবে তাঁকে ১১ লাখ রুপি দেবেন তিনি। বিজেপি’র যুব মোর্চার ওই নেতার ওই মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার পর ভারতজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। তৃণমূল কংগ্রেসের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, এতো রীতিমতো খুনের হুমকি। এই ঘটনার নিন্দা জানানোর ভাষা নেই। ওই নেতার অভিযোগ মমতা পশ্চিমবঙ্গে সরস্বতী পুজো করতে দেন না, রাম নবমী এবং হনুমান জয়ন্তীতে সমাবেশ করতে দেন না। মুসলমান সম্প্রদায়কে তোষণ করে যাচ্ছেন তিনি। কাজেই তিনি চরম শাস্তি পাওয়ার যোগ্য। গত মঙ্গলবারই পশ্চিমবঙ্গের  বিভিন্ন জায়গায় হনুমান জয়ন্তী পালন করেছে বিজেপি। তবে বীরভূমের সিউড়িতে অনুমতি না নিয়ে মিছিল করায় পুলিশ বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের উপর লাঠি চার্জ করেছে। যোগেশ সেই ঘটনার উল্লেখ করে বলেছেন, বীরভূমে মমতার সরকার হনুমান জয়ন্তীর মিছিলে যে ভাবে লোকজনকে রাস্তায় ফেলে পিটিয়েছে, তা বলার নয়। আমি বুঝতে পারি না, মমতা ইফতার পার্টির আয়োজন করেন। সব সময় মুসলমানের পাশে থাকেন। কিন্তু হিন্দুরা কি মানুষ নয়? বীরভূমের ঘটনার ভিডিও নাকি দেখেছেন যোগেশ। যা  দেখে তাঁর চোখে জল এসে গিয়েছিল। গোটা ঘটনার জন্য তিনি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই দায়ী করেছেন।  যোগেশের মন্তব্য প্রকাশ্যে আসার পর তাঁর নিন্দায় সংসদও উত্তাল হয়েছিল। মায়াবতী, জয়া বচ্চন-সহ অনেকেই সরব হয়েছিলেন প্রতিবাদে। বিজেপিও ঘটনার নিন্দা করেছে।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৭-০৪-১২ ২০:৫২:১২

He is completely terrorist like ISIS. wait and see what action government take against this person's terrorist announcement.

আপনার মতামত দিন