অবৈধদের সৌদি আরব ছাড়তে ৩ মাসের সময়

প্রথম পাতা

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ মার্চ ২০১৭, মঙ্গলবার
আবারো সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছে সৌদি আরব। এবার আবাসন খাতে ও শ্রম আইন লঙ্ঘনকারীদের জন্য ৯০ দিনের সময় দেয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, এ সময়সীমার মধ্যে আইন লঙ্ঘনকারীরা জরিমানা ছাড়া সৌদি আরব ছেড়ে যেতে পারবেন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আরব নিউজ। এতে বলা হয়েছে, এজন্য রোববার ‘এ নেশন উইদাউট ভায়োলেশনস’ শীর্ষক একটি প্রচারণা শুরু করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স, উপ-প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ বলেছেন, আশা করি আইন লঙ্ঘনকারীরা এ সময়সীমায় সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নেবেন।
সাধারণ ক্ষমা কার্যকর হবে ২৯শে মার্চ থেকে। এ জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। বলেছেন, যেসব মানুষ সৌদি আরব থেকে বেরিয়ে যেতে চান তাদের প্রয়োজনীয় সহায়তা দিতে এবং তাদেরকে সব রকম দায়মুক্তি দিতে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মেজর জেনারেল মানসুর আল তুরকি বলেছেন, সাধারণ ক্ষমার এ প্রচারণা চালাচ্ছে সরকারের ১৯টি সংস্থা। যারা হজ বা ওমরাহ ভিসা, অন্যান্য ভিসার নির্ধারিত মেয়াদের অতিরিক্ত সময় সৌদি আরবে অবস্থান করছেন তারাও আসবেন এই ক্ষমার অধীনে। তিনি বলেছেন, যারা অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে সৌদি আরবে প্রবেশ করে কাজ করছেন অথবা যাদের আবাসিক অনুমোদন নেই বা আবাসিক আইন লঙ্ঘন করছেন তাদের ক্ষেত্রে এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। এসব মানুষের জন্য ‘ট্রাভেল পারমিট’ ইস্যু করা হবে। এসব বিদেশিকে সৌদি আরব ছেড়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে সহযোগিতা করতে প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে পাসপোর্ট ও ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্টের জেনারেল ডাইরেক্টরেট। মানসুর আল তুরকি আরো বলেন, যেসব ‘রেসিডেন্টের’ পরিচয় পত্র নেই অথবা যারা তাদের হজের ভিসার মেয়াদ শেষেও সৌদি আরবে অবস্থান করছেন তাদের সাধারণ ক্ষমার সুবিধা নিতে যোগাযোগ করতে হবে নিকটস্থ পাসপোর্ট ডিপার্টমেন্টে। যারা আবাসন ও কাজের অনুমতি বিষয়ক আইন লঙ্ঘন করেছেন সেসব মানুষকে কাজে না নিতে সৌদি আরবের নাগরিক ও অধিবাসীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। এমন আইন লঙ্ঘনকারীদের ধরিয়ে দিতে ৯৯৯ নম্বরে ফোন করতে আহ্বান জানানো হয়েছে জনগণের প্রতি। সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরে আইন লঙ্ঘনকারীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে। উল্লেখ্য, তিন বছর আগে একই রকম সাধারণ ক্ষমা দেয়া হয়েছিল। মানসুর আল তুরকির মতে, ওই সময়ে এর সুযোগ নিয়ে সৌদি আরব ছেড়ে গেছেন অথবা যাচ্ছেন ২৫ লাখেরও বেশি মানুষ। ওদিকে বর্ডার গার্ডের মুখপাত্র কর্নেল সাহের আল হারবি বলেছেন, তার বিভাগ জল ও স্থলপথে অনুপ্রবেশকারী কয়েক হাজার মানুষকে ফিরিয়ে দিয়েছে।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সাবেক প্রক্টর কারাগারে, প্রতিবাদে অবরুদ্ধ চবি

আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিন স্থগিত

এবারে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস

‘বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা’

লেবাননে বৃটিশ কূটনীতিককে শ্বাসরোধ করে হত্যা

বিমানে দেখা এরশাদ-ফখরুলের

হলফনামার তথ্য গ্রহণযোগ্য নয়: সুজন

ছিনতাইকারীর টানাটানিতে মায়ের কোল থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

গুজরাট ও হিমাচলে বিজেপিই জিততে চলেছে

আরো ৪০ রোহিঙ্গা গ্রাম ভস্মীভূত:  এইচআরডব্লিউ

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’

সৌদিই ব্যতিক্রম

তাদের কি বিবেক বলে কিছু নেই

ঢাকা উত্তরের উপনির্বাচন ফেব্রুয়ারিতে

‘উন্নয়ন কথামালায়, মানুষ কষ্টে আছে’