টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে নিহত ১

শেষের পাতা

জাহিদ হাসান, কুমিল্লা থেকে | ২১ মার্চ ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৪৮
কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন (কুসিক) নির্বাচনকে সামনে রেখে দিনে-রাতে চলছে প্রার্থী ও সমর্থকদের ব্যাপক প্রচারণা। তার উপর নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতাদের প্রচারণায় মুখর এখন কুমিল্লা নগরী। এদিকে নির্বাচনকে ঘিরে টাকার খেলাও চলছে। টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে নগরীর কাঁটাবিল এলাকায় সোমবার সকালে খোরশেদ আলম নামে একজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া গত শনিবার কুমিল্লা টাউন হল মিলনায়তনে প্রার্থীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় ৩ নির্বাচন কমিশনারের কাছে বিএনপি প্রার্থীর অভিযোগের পর সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলামকে রোববার রাতে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। এদিকে আজ আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে নির্বাচনী ইস্তেহার ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছেন প্রার্থীর মিডিয়া সেলের দায়িত্বে থাকা আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম রতন।
অপরদিকে বিএনপি প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু ২৩শে মার্চ নির্বাচনী ইস্তেহার ঘোষণা করবেন বলে জানা গেছে।   
নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী ৪ জন, সাধারণ আসনে ২৭টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ১১৪ জন এবং সংরক্ষিত ৯টি ওয়ার্ডে মহিলা আসনে কাউন্সিলর পদে ৪০ জনসহ মোট ১৫৮ জন প্রার্থী এলাকার উন্নয়নে প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করছেন। মেয়র পদে প্রার্থীরা দিনে-রাতে চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচার-প্রচারণা। গতকাল আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা নেতা-কর্মীদের নিয়ে নগরীর উত্তর আশ্রাফপুর, রাজাপাড়া, উনাইসার, শাকতলা, ধনাইতরী, জাঙ্গলিয়া, পদুয়ারবাজারসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় গণসংযোগ করেন। এছাড়া দলের কেন্দ্রীয় নেতা এনামুল হক শামীম, সুজিত রায় নন্দী, অপু উকিল, মারুফা আক্তার পপি, লিয়াকত শিকদারসহ স্থানীয় নেতারা নৌকার পক্ষে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন। অপরদিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু গতকাল নেতা-কর্মীদের নিয়ে নগরীর দক্ষিণ বাগমারা, সালমানপুর, গন্ধামতি, রামপুর, বার্ড, চাঙ্গিনী, বাতাবাড়িয়া এলাকায় গণসংযোগ করেন। এছাড়া দলের কেন্দ্রীয় নেতা নজরুল ইসলাম খান, জয়নাল আবেদীন ফারুক, খাইরুল কবির খোকনসহ স্থানীয় নেতারা ধানের শীষের পক্ষে নগরীর কয়েকটি এলাকায় গণসংযোগ করেন। এছাড়া স্বতন্ত্রপ্রার্থী মেজর (অব.) মামুনুর রশীদ (টেবিল ঘড়ি) নগরীর বিভিন্ন এলাকায় ভোটারদের কাছে তার উন্নয়ন প্রতিশ্রুতির প্রচারপত্র পৌঁছে দিচ্ছেন। জেএসডি মনোনীত প্রার্থী শিরিন আক্তার (তারা) গতকাল নগরীর কাপ্তান বাজার, মোগলটুলী, চৌধুরীপাড়া, অশোকতলা এলাকায় কর্মীদের নিয়ে গণসংযোগ ও লিফলেট বিতরণ করেন।
সদর দক্ষিণ থানার ওসি প্রত্যাহার: কুসিক নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কুর অভিযোগের পর রোববার রাতে সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে সংযুক্তি করা হয়েছে। জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। রোববার বিকাল ৪টার দিকে নির্বাচন কমিশন থেকে সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলামকে প্রত্যাহারের নির্দেশ সংক্রান্ত চিঠি এ কার্যালয়ে পৌঁছে। ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, ‘কুমিল্লা জেলার সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নজরুল ইসলামকে প্রত্যাহার করে তদস্থলে একজন উপযুক্ত কর্মকর্তা প্রদানের জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত প্রদান করেছেন। বর্ণিত অবস্থায় উল্লিখিত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়কে অবহিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।’ চিঠিটি বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বরাবরে প্রেরণ করা হয় এবং এর অনুলিপি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব, উপ-মহা পুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি), কুমিল্লা জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, রিটার্নিং অফিসার ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ করা হয়েছে।
টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে একজন নিহত
কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে প্রার্থীর নিকট থেকে নেয়া টাকার ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে দ্বন্দ্বের জের ধরে এক যুবকের লাথিতে খোরশেদ আলম নামে একজন নিহত হয়েছেন। সোমবার বেলা ১১টার দিকে নগরীর কাঁটাবিল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত খোরশেদ আলম ওই এলাকার মৃত আলী হোসেনের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের থেকে ভোট দেয়ার নামে কাঁটাবিল এলাকার হারুন মিয়া (৪৫) ও তার ছেলে তামিম (২২) স্থানীয় ভোটারদের নামে টাকা আদায় করে। খবর পেয়ে ওই এলাকার খোরশেদ আলম টাকার বিষয়টি জানতে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হারুনের বাড়িতে যান। এ নিয়ে বাকবিতণ্ডার একপর্যায়ে হারুন ও তার ছেলে খোরশেদ আলমকে কিল-ঘুষি এবং লাথি মারে। এতে তিনি আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে নগরীর তেলিকোনা এলাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকে ঘাতক পিতা-পুত্র পলাতক রয়েছে। কোতয়ালী মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া জানান, খোরশেদ আলমের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়, পরে তার মরদেহ স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভোলায় যাত্রীবাহি বাস খাদে, নিহত ১

হলিউডে যৌন নির্যাতন ও একটি হ্যাসট্যাগ

আমাজন স্টুডিওর প্রধান কর্মকর্তার পদত্যাগ

চট্টগ্রামে মহাসড়কের পাশে নারীর লাশ

চট্টগ্রামে হোটেলে জুয়ার আসর, ব্যবস্থাপকসহ আটক ৬২

‘আওয়ামী লীগ ইসিকে স্বাধীনতা প্রদান করেছে’

বাংলাদেশেও সেখানকার মতো বিচার ব্যবস্থা দেখতে চান

ছিনতাইকারী ধরতে গিয়ে আহত দুই পুলিশ

‘দর্শকরা একজন শিল্পীর কাছে সব সময় ব্যতিক্রমী কিছু দেখতে চায়’

অস্ট্রেলিয়া গেলেন প্রধান বিচারপতির স্ত্রী সুষমা সিনহা

বিতর্কে নয়া রসদ

মৌলভীবাজারে শোকের মাতম

বিয়ানীবাজারের খালেদের দুঃসহ ইউরোপ যাত্রা

১১ দফা প্রস্তাব নিয়ে ইসিতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ

‘প্রধান বিচারপতি ফিরে এসেই কাজে যোগ দিতে পারবেন’

খালেদা জিয়া ফিরছেন আজ