ট্রাম্পের রাশিয়া কানেকশন

কংগ্রেসে তথ্যপ্রমাণ উপস্থাপন করবেন গোয়েন্দা প্রধানরা

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ মার্চ ২০১৭, মঙ্গলবার
রাশিয়া কানেকশন নিয়ে মার্কিন মুল্লুকে তোলপাড় চলছেই। এর মধ্যে খবর এসেছে, দেশটির শীর্ষ দুই গোয়েন্দা প্রধান কংগ্রেসের সামনে শুনানিতে হাজির হবেন। সেখানে তারা রাশিয়া ও প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণার সম্ভাব্য যোগসূত্র নিয়ে তথ্যপ্রমাণ উপস্থাপন করবেন। ট্রাম্প তার পূর্বসূরি বারাক ওবামার অধীনে আড়িপাতার শিকার হয়েছিলেন বলে যে প্রমাণবিহীন অভিযোগ তুলেছেন তা নিয়েও কথা বলবেন গোয়েন্দা প্রধানরা। বিবিসি’র খবরে বলা হয়, সোমবার কংগ্রেশনাল ইন্টেলিজেন্স কমিটির বিরল এই উন্মুক্ত শুনানিতে তথ্যপ্রমাণ উপস্থাপন করবেন এফবিআই পরিচালক জেমস কমি এবং এনএসএ প্রধান অ্যাডমিরাল মাইক রজার্স। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অবশ্য এ তদন্তকে ‘টোটাল উইচ হান্ট’ আখ্যা দিয়েছেন।
ওদিকে, রাশিয়া মার্কিন নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার করার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছে।
অভিযোগগুলো কি?
জানুয়ারি মাসে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো জানায়, ক্রেমলিন সমর্থিত হ্যাকাররা সিনিয়র ডেমোক্রেটদের ই-মেইল অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে। নির্বাচনে হিলারি ক্লিনটনকে পরাজিত করতে ট্রাম্পকে সহায়তা করার জন্য তারা বিব্রতকর কিছু ই-মেইল ফাঁস করে দেয়। সিআইএ, এফবিআই এবং এনএসএ’র এক রিপোর্টে বলা হয়, রাশিয়ান নেতা ভ্লাদিমির পুতিন নির্বাচন প্রভাবিত করার এক প্রচারণার ‘নির্দেশ’ দিয়েছিলেন। এরপর থেকে মি. ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে যে রাশিয়ান কর্মকর্তাদের সঙ্গে তার প্রচারণা দলের সংযোগ ছিল। এসব অভিযোগ নিয়ে তদন্তে নেতৃত্ব দিচ্ছেন হাউস ইন্টেলিজেন্স কমিটির চেয়ারম্যান রিপাবলিকান কংগ্রেসম্যান ডেভিড নিউনেস এবং কমিটির শীর্ষ ডেমোক্রেট কংগ্রেসম্যান অ্যাডাম শিফ। রোববার মি. নিউনেস বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে ট্রাম্প প্রচারণা শিবিরের যোগসূত্র থাকার কোনো তথ্যপ্রমাণ নেই। একই মত দিয়েছেন ন্যাশনাল ইন্টেলিজেন্সের সাবেক পরিচালক জেমস ক্ল্যাপার। তবে, মি. শিফ বলেছেন, নির্বাচন প্রভাবিত করতে রাশিয়ানদের সঙ্গে মার্কিন নাগরিকদের যোগসূত্রের পরোক্ষ তথ্যপ্রমাণ রয়েছে।
ট্রাম্প প্রশাসনে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে
ট্রাম্প প্রশাসনের শীর্ষ দুই কর্মকর্তা রাশিয়া কানেকশনের অভিযোগে বিপাকে পড়েছেন। এরা হলেন সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন এবং অ্যাটর্নি জেনারেল জেফ সেশন্স। নিরাপত্তা উপদেষ্টা পদে নিয়োগ পাওয়ার আগে রাশিয়ান রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে আলাপের কথা এড়িয়ে যাওয়ার কারণে গত মাসে বরখাস্ত হন ফ্লিন। ওদিকে, ডেমোক্রেটরা সেশন্সের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে যে, জানুয়ারি মাসে নিজের মনোনয়ন চূড়ান্ত করার শুনানিতে শপথ নিয়েও মিথ্যা বলেছিলেন তিনি। রাশিয়ানদের সঙ্গে যোগসূত্র নেই সেশন্স এমনটা দাবি করলেও পরে জানা যায় যে, নির্বাচনী প্রচারণার সময় রাশিয়ান রাষ্ট্রদূত সের্গেই কিসলিয়াকের সঙ্গে দেখা করেছিলেন তিনি।
ওবামার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের অভিযোগ প্রসঙ্গ
কংগ্রেসের শুনানিতে সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার বিরুদ্ধে ট্রাম্পের আড়িপাতার অভিযোগও উঠে আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের অভিযোগ, নির্বাচনী প্রচারণার সময় ট্রাম্প টাওয়ারে ট্রাম্পের ফোনে আড়ি পেতেছিল ওবামা প্রশাসন। ট্রাম্প অবশ্য এমন অভিযোগের পক্ষে কোনো তথ্যপ্রমাণ দেন নি। আর রিপাবলিকান, ডেমোক্রেটিক উভয় শিবিরের কর্মকর্তারা এমন অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন। রোববার মি. নিউনেস ফক্স নিউজকে বলেছেন, আইন মন্ত্রণালয়ের নথিপত্র পর্যালোচনায় উঠে এসেছে কোনো আড়িপাতার ঘটনা ঘটেনি। বেশ  কয়েকজন রিপাবলিকান নেতা মন্তব্য করেছেন, ট্রাম্প যদি তার দাবি প্রমাণ করতে না পারেন তাহলে তার ক্ষমা চাওয়া উচিত।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাজধানীতে ছাত্রদলের মিছিলে হামলা, আহত ৩

যশোরে জঙ্গি সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ

সুষমা কেন সহায়ক সরকারের কথা বলতে যাবেন: কাদের

আপস না করায় খালেদার বিরুদ্ধে ৩৯ মামলা: ফখরুল

আত্মবিশ্বাস থাকলে যে কোন কঠিন কাজ করা যায়: জয়

আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

৪ ঘণ্টায় হাজার মণ ইলিশ বিক্রি

সংবিধান বিরোধীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

প্রতিবন্ধী স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

‘রোহিঙ্গা নিধনে পরিকল্পিত নির্যাতন চালিয়েছে মিয়ানমার’

রোহিঙ্গা প্রশ্নে ভারতীয় নীতি

অবস্থান পাল্টালো টিএসসি কর্তৃপক্ষ

রাখাইনে ১৭৭০ কোটি কিয়াতের বিশাল কর্মপরিকল্পনা

কেন উত্তরাধিকার বেছে নেবেন না শি জিনপিং?

বিমানবন্দরে সোহেল তাজের স্যুটকেসের তালা ভেঙে তল্লাশি

নিজেকে পতিতার মতো মনে হচ্ছিল- আদ্রিয়েনে লাভ্যালি