বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতি

চট্টগ্রামে এমপি লতিফের বিরুদ্ধে আদালতে রিভিশন

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | ২০ মার্চ ২০১৭, সোমবার
 বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতি করার ঘটনায় চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগের এমপি এমএ লতিফকে অব্যাহতি দেয়ার আদেশের রিভিশন করেছেন সাবেক যুবলীগ নেতা সাইফুদ্দিন রবি। ফৌজদারি কার্যবিধির ১১৫ ধারায় এই রিভিশন দাখিল করা হয়েছে আদালতে।
বিচারক আবেদনটি আমলে নিয়ে বিস্তারিত শুনানির জন্য পরবর্তী সময়ে তা নির্ধারণ করা হবে বলে আদেশ দিয়েছেন। গতকাল রোববার চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ মো. শাহনূরের আদালতে এই রিভিশন দাখিল করেন বাদী। এই ঘটনায় তিনি বিচার বিভাগীয় তদন্তও চেয়েছেন।
এর আগে গত ৮ই মার্চ পুলিশ প্রতিবেদনে ওই এমপির বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধুর ছবি বিকৃতির অভিযোগের প্রমাণ মেলেনি বলে উল্লেখ করা হয়। খারিজ হয়ে যায় এ সংক্রান্ত আরো দুটি মামলা। এই বিষয়ে বাদীর আইনজীবী মোসলেহ বলেন, আমরা ফৌজদারি কার্যবিধির ১১৫ ধারায় রিভিশন দাখিল করেছি। আদালত আবেদন গ্রহণ করেছেন।
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের নেতারা জানান, ২০১৬ সালের ৩০শে জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চট্টগ্রাম সফরকে ঘিরে নগরীর আগ্রাবাদ ও বিমানবন্দর সড়কে বঙ্গবন্ধুর ছবিসহ ফেস্টুন লাগানোর অভিযোগ ওঠে এমপি এমএ লতিফের বিরুদ্ধে।
পরে তদন্ত প্রতিবেদনে জানানো হয়, এমপি লতিফ সাহেব এর ছবির চেহারা পরিবর্তন করে বন্ধবন্ধুর মখমণ্ডল প্রতিস্থাপন করলে  ছবিটি আরো সুন্দর হবে- এমন সরল বিশ্বাসে ১৫টি ফেস্টুন হায়দার প্রিন্টার অ্যান্ড কম্পিউটার নামের একটি প্রতিষ্ঠানে ছাপানো হয়।
পরে ১০ বাই ৫ ফিট সাইজের ১৫টি ফেস্টুন তারা চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অফিসে সরবরাহ করে। ২০১৬ সালের ৭ই ফেব্রুয়ারি সংবাদ সম্মেলনে এমপি তার ভুল স্বীকার করেন। তবে মামলার সার্বিক তদন্তে আসামিদের বিরুদ্ধে আনা অপরাধ প্রমাণিত হয়নি।
আদালতে দায়ের করা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের মামলার অধিকতর তদন্ত প্রতিবেদন ২০১৬ সালের ৬ই জুন আদালতে দাখিল করে পাঁচলাইশ জোনের সহকারী (তৎকালীন) পুলিশ কমিশনার। সহকারী কমিশনার প্রতিবেদনে জানান, আন্দরকিলার হায়দার প্রিন্টার্সে ছাপানো বিকৃত ছবি বন্দর ও পতেঙ্গার বিভিন্ন এলাকায় লাগানো হয়।
অন্য দিকে এই ঘটনায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনে একটি এবং মানহানির অভিযোগ এনে মামলা দুটি দায়ের করেছিলেন যুবলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা সাইফুদ্দিন আহমেদ রবি।
তিনি বলেন, পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদনের পুরো বডিজুড়ে ঘটনার সত্যতা তুলে ধরছেন। শেষে এসে সরল বিশ্বাসে এ কাজ করেছেন উল্লেখ করে আসামিদের বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত হয়নি বলে একটি লাইন যুক্ত করে দিয়েছেন।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

তারেকের গ্রেপ্তার সংক্রান্ত প্রতিবেদন ৩১শে ডিসেম্বর

প্লেবয় মডেল হারতে’র ‘মজা’

আদালতে হাজিরা দিলেন নওয়াজ শরীফ

ইরাকে আগ্রাসনের হুমকি এরদোগানের

এতিম রোহিঙ্গা শিশুদের জন্য আলাদা ব্যবস্থা করা হচ্ছে

মাঝারী ধরনের ভারী বর্ষণের আশঙ্কা

মিয়ানমার ইস্যুতে বৃহস্পতিবার নিরাপত্তা পরিষদে বৈঠক

বিসিবির কার্যনির্বাহী কমিটির কার্যক্রম নিয়ে রুল, সভায় বাধা নেই

মারকেলের নতুন মিশনের কাজ শুরু

বিস্ময়কর উত্থান ঘটলেও জার্মানিতে এএফডি’র নেতা কে!

‘এখন শুধুমাত্র ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবছি’

মার্কিন যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার হুমকি উ.কোরিয়ার

হিলারির পথে হাঁটছেন ট্রাম্পকন্যা ইভাঙ্কা?

বাংলাদেশী শান্তিরক্ষী হত্যার তদন্ত দাবি নিরাপত্তা পরিষদের

জাতি নিধনের অভিযোগ অস্বীকার, জাতিসংঘকে মিয়ানমারের উপহাস

ডিপজলের হার্টে অস্ত্রোপচার সম্পন্ন