স্কটল্যান্ডে পতিতাবৃত্তি আইন সংশোধন সমর্থন দিয়েছে এসএনপি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ মার্চ ২০১৭, রবিবার
স্কটল্যান্ডে পতিতাবৃত্তি বিষয়ক আইন সংশোধন সমর্থন করেছে ক্ষমতাসীন স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি (এসএনপি)। এ সংশোধনীর অধীনে অর্থের বিনিময়ে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করবেন যারা তাদেরকে অপরাধী হিসেবে গণ্য করা হবে। যেসব নারী দেহ বিক্রি করবেন তারা এর আওতায় পড়বেন না। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের অনলাইন ইন্ডিপেন্ডেন্ট। এতে বলা হয়েছে, দেশটির অ্যাবারডিনে দলীয় সম্মেলনে পতিতাবৃত্তি মোকাবিলা বিষয়ক প্রস্তাব ‘স্কটিশ মডেলের’ পক্ষে ভোট দিয়েছেন দলীয় ডেলিগেটরা।  স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলোতে এক্ষেত্রে অনুসরণ করা হয় ‘নরডিক মডেল’। তারই অনুকরণে এই মডেল উপস্থাপন করা হয়েছে। নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা ও পাচার বন্ধে নরডিক মডেল বাস্তবায়ন করেছে নরওয়ে, ফিনল্যান্ড, আইসল্যান্ড, কানাডা, উত্তর আয়ারল্যান্ড ও ফ্রান্স। স্কটল্যান্ডের পার্লামেন্ট সদস্য অ্যাশ ডেনহ্যাম এ বিষয়ক প্রস্তাব উত্থাপন করেন। তাতে বলা হয়, পতিতাবৃত্তি ও মানব পাচার সহ বাণিজ্যিক যৌনতা বিষয়ক বিস্তার নারীর বিরুদ্ধে একরকম সহিংসতা। উল্লেখ্য, বর্তমানে স্কটল্যান্ডে অর্থের বিনিময়ে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন অবৈধ নয়। কিন্তু এ সংক্রান্ত কিছু কর্মকান্ড যেমন- ‘পতিতা ব্যবসা চালানো’ ও নিয়ন্ত্রণ করে অর্থ আদায় অবৈধ। স্কটল্যান্ডে ইনডোর বা গৃহ অভ্যন্তরে অর্থের বিনিময়ে যৌন কর্মকান্ড বৈধ। তবে এক্ষেত্রে একসঙ্গে একাধিক ব্যক্তি এ কর্মকাণ্ডে জড়িত হলে তা অবৈধ। ওদিকে এমপি অ্যাশ ডেনহ্যামের প্রস্তাব সমর্থন করায় এসএনপির কড়া সমালোচনা করেছে যৌন কর্মীদের সংগঠনগুলো। তারা বলছে, এই প্রস্তাব কার্যকর হলে তাতে যৌনকর্মীরা আরও ভয়াবহ অবস্থার শিকার হবেন। কারণ, তারা গ্রুপে কাজ করতে পারবেন না তখন।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন