ভারতে ২১ জনের বিরুদ্ধে বাংলাদেশী বালিকা গণধর্ষণের অভিযোগ

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৯ মার্চ ২০১৭, রবিবার
বাংলাদেশী ১৪ বছর বয়সী একটি বালিকাকে ভারতের গণধর্ষণ করেছে ২১ নরপিশাচ। এমন অভিযোগে শনিবার মামলা করেছে ওই বালিকা। পুলিশ শুরু করেছে তদন্ত। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া। এতে বলা হয়, জুনাগড় শহরের ম্যাঙ্গরোল ও আহমেদাবাদে তার ওপর ওই নারকীয় অত্যাচার করা হয়। সূত্র বলেছে, বৃহস্পতিবার বিকালে ওই বালিকা ম্যাঙ্গরোলে একটি বাস টার্মিনালে দাঁড়িয়ে কাঁদছিল।
এ সময় লোকজন তার কাছে কারণ জানতে চায়। সে তাদেরকে সব খুলে বললেও স্থানীয়রা ভাষাগত সমস্যার কারণে তার কথা বুঝতে পারছিলেন না। এ অবস্থায় তাকে নিয়ে যাওয়া হয় পুলিশ স্টেশনে। সেখানে পুলিশের কাছে সব কথা বলে দেয় সে। সে বলে তার বাড়ি বাংলাদেশে। তাকে ভারতে বিক্রি করে দিয়েছে একটি চক্র। আহমেদাবাদ হয়ে ম্যাঙ্গরোলে পৌঁছে সে। অভিযোগে সে বলেছে, প্রথমে তাকে আহমেদাবাদে গণধর্ষণ করে ৭ জন। এরপর গত সপ্তাহে ম্যাঙ্গরোলে গণধর্ষণ করে ১৪ জন। সে আরো বলেছে, পশ্চিমবঙ্গের বনগাঁয় সাই নামে একজন এজেন্টের কাছে তাকে তার এক আত্মীয় বিক্রি করে দিয়েছে। ওই বালিকাকে জুনাগড়ে নারীদের একটি আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। সেখানে দোভাষীর সহায়তায় তার ওপর চালানো অত্যাচার ও বিক্রি করে দেয়ার তথ্য প্রকাশ করে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kamal

২০১৭-০৩-১৮ ২৩:১১:৫৮

fine, rendia jawar result.

আপনার মতামত দিন

কানাডার উন্নয়নমন্ত্রী আসছেন মঙ্গলবার

ব্যক্তির নামে সেনানিবাসের নামকরণ মঙ্গলজনক হবে না: মওদুদ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহায়তার প্রস্তাব জাপানের

পানামা ও প্যারাডাইস পেপারসে নাম আসা ব্যক্তিদের তথ্য প্রকাশের দাবি সংসদে

সমাপনীতে অনুপস্থিত ১৪৫৩৮৩ শিক্ষার্থী

ঈদ-ই মিলাদুন্নবি ২ ডিসেম্বর

দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য তারেক রহমানকে দরকার: এমাজউদ্দিন

দল থেকে বরখাস্ত মুগাবে

দেখা হলো, কথা হলো কাদের-ফখরুলের

আখতার হামিদ সিদ্দিকী আর নেই

ইইউ প্রতিনিধি ও তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন

‘এবার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই’

নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না শেখ হাসিনার সরকার-নৌ মন্ত্রী

‘আমি ব্যবসায়িক প্রতিহিংসার শিকার’

সেনা মোতায়েন নিয়ে বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়নি : সিইসি

২০১৮ সালে প্রবল ভুমিকম্পের আশঙ্কা!