দুর্গনগরীতে এখনো গড়ে উঠেনি প্রত্নপর্যটন কেন্দ্র

এক্সক্লুসিভ

সাবিবুর রহমান সাবিব, পঞ্চগড় থেকে | ১৯ মার্চ ২০১৭, রবিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৩৩
বিশ্ব ঐতিহ্যের একটি অংশ দেশের সর্ববৃহৎ দুর্গনগরী ভিতরগড়। এখানে ছিল পৃথু রাজার রাজধানী। পঞ্চগড় জেলা শহর থেকে ১৬ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে সদর উপজেলার অমরখানা ইউনিয়নের ভিতরগড়ের প্রায় ২৫ বর্গকিলোমিটার জায়গা জুড়ে অবস্থিত এ দুর্গনগরীর বিভিন্ন এলাকায় প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণার মধ্য দিয়ে উন্মোচিত হয়েছে ৮-৯ শতক তথা আদী মধ্যযুগে নির্মিত ৯টি স্থাপত্যের ভিত্তি কাঠামো এবং মাটি ও ইট দিয়ে তৈরি চারটি বেষ্টনির প্রকৃত স্বরূপসহ নানা ধরনের প্রত্নবস্তু, যা বাংলাদেশ তথা দক্ষিণ এশিয়ার সাংস্কৃতিক ইতিহাস গঠনের অমূল্য উপাদান। একটি অতি জনপ্রিয় পরিবেশবান্ধব প্রত্নপর্যটন গন্তব্য হিসেবে গড়ে তোলে এখানকার প্রত্নস্থল বাংলাদেশের পর্যটন শিল্প বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার সুযোগ থাকলেও সরকারিভাবে এখন পর্যন্ত সে উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। পর্যটনের জন্য যেসব থাকা প্রয়োজন তার সবকিছুই এখানে আগে থেকেই রয়েছে। নতুন করে কিছু তৈরি করতে হবে না।
শুধু পর্যটকদের জন্য প্রয়োজনীয় কিছু সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করলেই গড়ে উঠবে প্রত্নস্থল পর্যটন কেন্দ্র। পর্যটন কেন্দ্র গড়ে না উঠলেও এখনও অনেকে এখানে বনভোজন করতে আসে। কিন্তু এখানে এখন পর্যন্ত করা হয়নি কোন পাবলিক টয়লেট। এতে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে লোকজনদের চরম সমস্যায় পড়তে হয়। প্রাচীন এই দুর্গনগরী পর্যটন শিল্পের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রত্নস্থল। নগরীর মাটির নিচে লুকিয়ে আছে প্রাচীন সভ্যতার নানা ইতিহাস ও অসংখ্য স্থাপত্যের ধ্বংসাবশেষসহ মূল্যবান প্রত্নবস্তু। মাটি খুঁড়লেই বেরিয়ে আসছে দুর্লভ সব প্রাচীন স্থাপনা। চারটি আবেষ্টনী দেয়াল দ্বারা  পরিবেষ্টিত  ভিতরগড় দুর্গনগরী বাংলাদেশে এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত প্রাচীন দুর্গনগরীগুলোর মধ্যে সর্ববৃহৎ। ভিতরগড়ে রয়েছে চাষাবাদের জন্য সেচ ব্যবস্থা ও নদীর পানি নিয়ন্ত্রণের নিমিত্তে পাথরের বাঁধ নির্মাণের নৈপুণ্য কৌশলের অনন্য উদাহরণ। এই দুর্গনগরীর অভ্যন্তরেই রয়েছে বিশালাকার মহারাজা দীঘি। মহারাজা দীঘির ইট বাঁধানো দশটি ঘাট এবং ঘাটের উভয় পাশে ইট ও মাটি দিয়ে নির্মিত সুউচ্চ পাড় নৈসর্গিক  দৃশ্যের এক অসাধারণ নিদর্শন। এছাড়াও আরো আবিষ্কৃত হয়েছে আরো কয়েকটি দীঘি ও তালমা নদীর প্রাচীন প্রবাহের (বর্তমানে শালমারা নদী) উপর পাথর দ্বারা নির্মিত তিনটি বাঁধের ধ্বংসাবশেষ। ভিতরগড় দুর্গনগরীর বাইরের আবেষ্টনীর উত্তরাংশ, উত্তর-পশ্চিমাংশ এবং উত্তর-পূর্বাংশ বর্তমানে ভারতের জলপাইগুড়ি জেলার অন্তর্গত হওয়ায় ধারণা করা হয় যে, ৬ষ্ঠ শতকের শেষে কিংবা সপ্তম শতকের শুরুতে ভিতরগড় একটি স্বাধীন রাজ্য হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং প্রাচীন বাণিজ্য সড়ক ও নদীপথের উপর অবস্থিত হওয়ায় ভিতরগড় এলাকার অধিবাসীরা সম্ভবত নেপাল, ভুটান, সিকিম, আসাম, কুচবিহার, তিব্বত, চীন, বিহার, পশ্চিম ও দক্ষিণ বাংলার সঙ্গে বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক যোগাযোগ বজায় রেখেছিল।
 
সর্ববৃহৎ দুর্গনগরী ভিতগড় প্রত্নস্থলটির বিভিন্ন স্থানে ২০০৮ সালে প্রত্নতাত্ত্বিক গবেষণা, সংরক্ষণ ও খনন কার্যক্রম শুরু করেন ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ (ইউল্যাবের) সেন্টার ফর আর্কিওলজিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের প্রধান প্রত্নতত্ত্ববিদ প্রফেসর ড. শাহনাজ হুসনে জাহান। তিনি বলেন, ভিতরগড় দুর্গনগরী বাংলাদেশে এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত সবচেয়ে সর্ববৃহৎ দুর্গনগরী। আমরা সরকারের কাছে ভিতরগড়ের প্রত্নসম্পদ রক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি ভিতরগড়কে হ্যারিটেজ সাইট হিসেবে ঘোষণার দাবি জানিয়ে আসছি। এরই মধ্যে দুর্গনগরীর ইতিহাস ও লোকজ সাংস্কৃতির ঐতিহ্যের সঙ্গে ভবিষ্যত প্রজন্মসহ সকলকে পরিচয় করে দেয়ার উদ্দেশ্যের পাশাপাশি সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণে জনসচেনতা সৃষ্টি, স্থানীয় জনসম্পৃক্তকরণ তথা সমাজভিত্তিক সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণে উৎসাহ প্রদানকল্পে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ৭দিন ব্যাপি ভিতরগড় উৎসবের আয়োজন করা হয়। এটি এখনও চলছে। অপার সম্ভাবনাময় এই ভিতরগড় দূর্গনগরী শুধু বাংলাদেশে নয় সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ার রাজনৈতিক, সামাজিক, অর্থনৈতিক, ধর্মীয় ইতিহাস নির্মাণে প্রয়োজনীয় ঐতিহাসিক উৎস সরবরাহের ক্ষেত্রে গুরুত্ব বহন করে। পর্যটন শিল্পের জন্য ভিতরগড় প্রত্নস্থল হতে পারে বাংলাদেশের প্রত্ন নিদর্শনের এক বিশাল ভাণ্ডার। আক্ষেপ করে তিনি আরো বলেন, ব্যাপক সম্ভাবনাময় ও  ইতিহাস ঐতিহ্যের এই প্রত্নস্থল সংরক্ষণ ও কার্যকর ব্যবস্থা নেয়ার ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের কার্যকর ভূমিকা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মৌলভীবাজারে শোকের মাতম

বিয়ানীবাজারের খালেদের দুঃসহ ইউরোপ যাত্রা

১১ দফা প্রস্তাব নিয়ে ইসিতে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ

‘প্রধান বিচারপতি ফিরে এসেই কাজে যোগ দিতে পারবেন’

খালেদা জিয়া ফিরছেন আজ

ব্লু হোয়েলের ফাঁদে আরো এক কিশোর

তিন ইস্যু গুরুত্ব পাবে সুষমার সফরে

প্রি-পেইডে সুবিধা বেশি আগ্রহ কম

ভারত থেকে ৩৭৮ কোটি টাকার চাল কিনছে সরকার

ছাত্রলীগ কর্মী মিয়াদ খুন নিয়ে উত্তপ্ত সিলেট

ইস্যু হতে পারে সমস্যার পাহাড়

দ্বিতীয়বার সংসার না করায় খুন

যেভাবে পালিয়ে আসছে রোহিঙ্গারা, ড্রোন থেকে নেয়া ভিডিও

সিলেটে কাল থেকে পরিবহন ধর্মঘট

ফুটবলকে বিদায় জানালেন কাকা

৩৬তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল প্রকাশ