মুসলিম দম্পতির সমর্থনে এগিয়ে এলেন লাতিন এক যুবতী

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ মার্চ ২০১৭, শনিবার
নিউ ইয়র্কে পাতাল রেলে হয়রানির শিকার হচ্ছিলেন এক মুসলিম দম্পতি। তাদেরকে এমন বিব্রতকর অবস্থা থেকে রক্ষা করতে পক্ষ নিলেন এক লাতিন নারী ট্রেসি টং (২৩)। এ জন্য চারদিক থেকে ওই নারীর প্রশংসা করা হচ্ছে। এ খবর দিয়েছে ওয়াশিংটন পোস্ট। এতে বলা হয়েছে, সাম্প্রতিক সময়ে যুক্তরাষ্ট্রে ঘন ঘন মুসলিমরা এমন হয়রানির মুখে পড়ছেন। খবরে বলা হয়েছে, নিউ ইয়র্ক সিটির পাতাল রেলে তখন ঠাসাঠাসি ভিড়। তাতে আরোহন করেছেন অন্যদের মতোই এক মুসলিম দম্পতি। ওই সময়ে তাদের দিকে নানা কটূ কথা ছুড়ে দেয়া হচ্ছে। এ নিয়ে গত সপ্তাহে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়। তাতে দেখা যায়, মধ্য বয়সী এক লাতিন নারী এক মুসলিম দম্পতির সঙ্গে বাকবিতন্ডায় লিপ্ত। তিনি তাদের কাছে জানতে চাইছেন, তোমরা কেন এখানে? তোমরা যদি আমাদের সঙ্গে না থাক তাহলে তোমরা কেন এই দেশে? এ সময় অন্য একজন যাত্রী তাকে থামতে বলেন। ফলে ওই লাতিন নারী তার প্রতি ক্ষিপ্ত হন। বলেন, আপনি বিষয়টি বুঝতে পারছেন না। আপনিও তো এখানকার নন। ওই যাত্রীর ওপর আঙ্গুল উঁচিয়ে বলেন, আমি এখানে এই যুক্তরাষ্ট্রে জন্মেছি। এ অবস্থায় এগিয়ে আসেন আরেক লাতিন যুবতী ট্রেসি। তিনি পরিস্থিতিতে হস্তক্ষেপ করেন। তিনি অপেক্ষাকৃত বেশি বয়সী নারীর জাতীয়তা সম্পর্কে জানতে চান। তাতে দেখা যায় তিনি এসেছেন পুয়ের্তো রিকো থেকে। ফলে ট্রেসি টং তাকে অন্য দম্পতিদের সম্মান দেখানোর আহ্বান জানান। কিন্তু চলন্ত রেলের ভিতর বয়সী নারী তার সঙ্গে বাকবিতন্ডায় লিপ্ত হন। তাকে বলেন, নিজের চরকায় তেল দাও। জবাবে ট্রেসি বলেন, আমি আপনাকে চুপ থাকতে বলি নি। আমি আপনাকে বলেছি অন্যদের সম্মান দিতে। আপনি স্প্যানিশ, ইংরেজি, চায়না, ফ্রেঞ্চ যে ভাষায়ই কথা বলুন না কেন, আপনি এসেছেন পুয়ের্তো রিকো থেকে। অথবা যেখান থেকেই আসুন না কেন, আমি আপনাকে যেটা বলতে চাইছি তা হলো, আপনি ওই নারীর সঙ্গে যে আচরণ করছেন তা আমার পছন্দ হচ্ছে না। ওই নারীকে ট্রেসি বলেন, আমরা তো সবাই এক। আপনি কি পছন্দ করেন, সরকারকে সমর্থন করেন কিনা, সেটা বড় কথা নয়। আপনি তো একজন পরিপূর্ণ নারী। 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Allah, help by huma

২০১৭-০৩-১৮ ০২:০০:৫১

Save our life also themsI

আপনার মতামত দিন