উত্তর কোরিয়ায় সামরিক শক্তি প্রয়োগের অপশন খোলা আছে

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ মার্চ ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:৪৮
 উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ধৈর্য ধরে রাখার কৌশলগত নীতির অবসান ঘটিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। প্রয়োজন হলে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক শক্তির প্রয়োগ করতে পারে দেশটি। এ খবর দিয়েছে বিবিসি। খবরে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন বলেছেন, ‘যদি উত্তর কোরিয়ার অস্ত্র কর্মসূচি হুমকির পর্যায়ে পৌঁছায় তাহলে সামরিক শক্তি প্রয়োগের অপশন খোলা আছে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে।’ দক্ষিণ কোরিয়া সফরের সময় তিনি জানান, যুক্তরাষ্ট্র বিভিন্ন ধরনের কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক পদক্ষেপের কথা বিবেচনা করছে। তিনি দক্ষিণ কোরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা মোতায়েন করার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন। যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে চীন। তবে দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্য, উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষার জন্য ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাটি প্রয়োজনীয়। দুই কোরিয়াকে বিভক্তকারী সামরিক বাহিনীমুক্ত এলাকা সফর করে এসব কথা বলেন টিলারসন। এর আগে তিনি জাপানে একটি সফর শেষ করেছেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘২০ বছর ধরে উত্তর কোরিয়াকে পারমাণবিক প্রয়াস বন্ধ করতে বোঝানোর প্রচেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।’ উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক পদক্ষেপের কথা চিন্তা করছেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে টিলারসন জানান, ‘আমরা অবশ্যই চাই না যে পরিস্থিতি সামরিক সংঘাত পর্যন্ত পৌঁছাক। তবে তারা যদি তাদের অস্ত্র কর্মসূচি হুমকির মাত্রায় নিয়ে যায় যেখানে সামরিক শক্তি প্রয়োজনীয় বলে মনে হবে, তাহলে আমাদের কাছে ওই অপশন খোলা আছে।’

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন