পশ্চিমবঙ্গের ২১তম জেলা কালিম্পং

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৭, বৃহস্পতিবার
পশ্চিমবঙ্গের ২১তম জেলা হিসেবে কালিম্পংয়ের যাত্রা শুরু হয়েছে। গত মঙ্গলবার কালিম্পংয়ে এক অনুষ্ঠানে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন জেলার কথা ঘোষণা করেন। পাহাড়কে নতুন জেলা উপহার দেয়ার দিনে তিনি তাকে ‘আমার নতুন সন্তান’ (মাই নিউ বেবি) বলেও উল্লেখ করেছেন। কেন নতুন জেলা করা হলো তার ব্যাখ্যাও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি জানিয়েছেন, নতুন জেলা হলে প্রশাসনিক কাজে সুবিধা হবে। জেলার কোথায় কী পরিকাঠামো তৈরি হবে তার সিদ্ধান্ত চটজলদি নেওয়া সম্ভব হবে।
বরাদ্দও মিলবে বেশি। দার্জিলিং জেলা থেকে আলাদা করে এই নতুন জেলা গঠিত হয়েছে। কালিম্পং জেলার উন্নয়নে মুখ্যমন্ত্রী কাজ করবেন বলেও এদিন জানিয়েছেন। তার কথায়, কালিম্পঙের বাসিন্দাদের চোখে আমি অনেক স্বপ্ন দেখেছি। সেগুলো পূরণ করব। উল্লেখ্য, স্বাধীনতার সময় পশ্চিমবঙ্গে ছিল ১৪টি জেলা। ১৯৫০ সালে যুক্ত হয় কোচবিহার। ১৯৮৬ সালে ২৪ পরগণাকে ভেঙ্গে করা হয় উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা। ১৯৯২ সালে দিনাজপুরকে ভেঙে উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুর এবং ২০০২ সালে মেদিনীপুরকে ভেঙে করা হয় পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা। আর ২০১৪ সালে জলপাইগুড়ি থেকে আলাদা করে আলিপুরদুয়ারের আত্মপ্রকাশ ঘটেছিল ২০তম জেলা হিসেবে। তবে কালিম্পং জেলা ঘোষণাকে আগে স্বাগত জানালেও এদিন নতুন করে  আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন গোর্খা মুক্তি মোর্চার নেতা বিমল গুরুঙ্গ। এদিন গোর্খা ভবনে দলের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক ছিল। বৈঠকের পরে গুরুঙ্গ জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রে বিদর্ভকে কেন্দ্রীয় সরকার নতুন রাজ্যের মর্যাদা দিচ্ছে। তেমন হলে গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে পাহাড়ে নতুন করে আন্দোলন হবে। গুরুঙ্গর মতোই নতুন জেলা গঠনের সমালোচনা করেছেন সিপিএম বিধায়ক তথা শিলিগুড়ির মেয়র অশোক ভট্টাচার্যও। বলেছেন, কালিম্পং জেলা গঠনে রাজনীতিটাই বড় হয়ে গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর। তা হলে তো অনেকে আলাদা জেলা, এমনকি আলাদা রাজ্যও চাইবেন। তাদের দাবির ক্ষেত্রে তো তা হলে অন্যায় কিছু দেখছি না।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

খেলার মাঠে দেয়াল ধসে দর্শক যুবকের মৃত্যু

‘বিচার বিভাগের স্বাধীনতার মৃত্যু ঘটেছে’

কুমারিত্বের দাম ৩ মিলিয়ন ডলার!

ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আকরাম ৮ দিনের রিমান্ডে

১৫৪ টার্গেট গেইল-ম্যাককালামের

বাড়ি ফিরেছেন নিখোঁজ ব্যবসায়ী অনিরুদ্ধ রায়

শিক্ষার্থীদের মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসি’র ফরম পূরণ!

একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ

রাবি অপহৃত ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

‘সমাবেশে জোর করে লোক আনা হয়েছে’

সমাবেশ মঞ্চে শেখ হাসিনা

যুদ্ধাপরাধের ২৯তম রায়ের আপেক্ষা

সিরিয়া ইস্যুতে আবারো রাশিয়ার ভেটো

হারিরির সৌদি আরব ত্যাগ

ইরাক ও ইসরায়েল সুন্দরী একসঙ্গে সেলফি তুলে বিপাকে

‘বিএনপিকে দূরে রেখে নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে’