ডেটিং করেই লাখপতি!

রকমারি

| ১৪ জানুয়ারি ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৫
সবচেয়ে তরুণের বয়স ৪০। সবচেয়ে বৃদ্ধ ৮৬-র। একটা বিষয়ে এদের প্রত্যেকের মিল আছে। ২৬ বছরের ইন্ডিয়া। তাঁর প্রেমে পড়েই কমপক্ষে ২৫ লাখ ভারতীয় টাকা খরচ করে বসেছেন এই ‘তরুণ’রা।  ইন্ডিয়া ইরভিন। দক্ষিণ লন্ডনের বাসিন্দা এই যুবতী সঙ্গীর খোঁজে হাজির হন ডেটিং সাইট WhatsYourPrice.com-এ। সেখানে পছন্দের পুরুষ খুঁজতে গিয়ে ইন্ডিয়া’র আলাপ হয় মধ্যবয়সী পুরুষদের সঙ্গে। এদের সবার বয়সই ৪০-এর উপর। যাঁরাও সঙ্গীনি খুঁজছিলেন। সুযোগ বুঝে ডেটিংয়ের প্রস্তাব দেন ইন্ডিয়া। তবে শর্ত প্রযোজ্য। কোনো শারীরিক সম্পর্ক নয়। শুধু বেড়াতে যাওয়া বা রেস্তরাঁতে খাওয়া। হোটেল বা ফ্ল্যাটে দেখা করা চলবে না। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, ডেটিং-এর জন্য ইন্ডিয়াকে পাউন্ডে অর্থ দিতে হবে। আশ্চর্য, সুন্দরীর সব শর্তই মেনে নেন অধিকাংশ ব্যক্তি।  ব্যাস! কেল্লাফতে! এভাবেই ভারতীয় মুদ্রায় কমপক্ষে ২৫ লাখ টাকা চলে আসে ইন্ডিয়ার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে। এক সাক্ষাৎকারে ইন্ডিয়া জানিয়েছেন, প্রথম ডেটেই ৫০০ পাউন্ড অর্থাৎ ৪০ হাজার ভারতীয় টাকা পকেটে চলে আসে। এছাড়াও, দামী উপহার, জিম-এর খরচা এসব তো রয়েছেই। গত ২ বছর ধরে লন্ডন, নিউইয়র্ক, ওয়াশিংটনের একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে ডেট-গিয়ে লাখ খানেক টাকা কামিয়ে নিয়েছেন ইন্ডিয়া।  ‘এদের মধ্যে অনেকেই বিবাহিত। কিন্তু, তাতে আমার কোনো অসুবিধা নেই। আমি কারোর জন্যই শর্ত থেকে সরি না। দেহ ব্যবসা যে করছি না, তা স্পষ্ট করি শুরু থেকেই।’ সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন পেশায় মডেল ইন্ডিয়া। গরিব ঘরের মানুষ হওয়ায় বরাবরই অর্থের চাহিদা বেশি ইন্ডিয়ার, ‘আমার মা সিঙ্গল মাদার ছিলেন। তাই ঘরে ঘরে কাজ করে আমায় মানুষ করতে হয়েছিল তাঁকে। তাই জীবনে টাকার প্রয়োজনটা বুঝি।’ ইন্ডিয়ার মতে, তিনি কোনো ভুল করছেন না। তাঁর দাবি, এতগুলো ডেটিং-এর পরও কারোর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে জড়াননি তিনি। তবে এত কিছুর মধ্যেও এখনও একজন স্বপ্নের মানুষের অপেক্ষা রয়েছে ইন্ডিয়ার। যাঁর সঙ্গে গোটা জীবন কাটাতে তৈরি তিনি।

সুত্রঃ এই সময়
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন