দুদক চেয়ারম্যান

ফাঁদ পেতে দুর্নীতিবাজদের ধরা হবে

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১২ জানুয়ারি ২০১৭, বৃহস্পতিবার
 চলতি সালে ঘুষখোরদের কঠিন পরিণতি ভোগ করতে হবে উল্লেখ করে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, ফাঁদ পেতে বিভিন্ন দপ্তরের দুর্নীতিবাজদের ধরা হবে। তিনি বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে দুদকের ২০১৬ সালের কার্যক্রম তুলে ধরা হয়। দুদক  চেয়ারম্যান দুর্নীতিবাজদের উদ্দেশে বলেন, ঘুষ গ্রহণ বন্ধ করুন, নইলে কঠিন পরিণতির জন্য অপেক্ষা করুন। তিনি জানান, ফাঁদ  পেতে দুর্নীতিবাজদের ধরার ঘটনায় ২০১৬ সালে ১৩টি মামলা হয়েছে। চলতি বছরে ফাঁদ পাতার বিষয়টি আরো  বেগবান করা হবে।
দুর্নীতিপ্রবণ দপ্তরগুলোতে বিশেষ নজরদারি বাড়ানো হবে। ইকবাল মাহমুদ জানান, ২০১৫ সালের তুলনায় ২০১৬ সালে দুদকে  বেশি অভিযোগ আসে। কিন্তু অধিকাংশ অভিযোগ দুদকের তফসিলবহির্ভূত হওয়ায় তা অনুসন্ধানের জন্য গৃহীত হয়নি। তিনি বলেন, ২০১৬ সালে ৩৩৯টি মামলা করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫২৮টি মামলায় অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দুদক ২০১৬ সালে ১২ হাজার ৫৬৮টি অভিযোগ পেয়েছে। এর মধ্যে অনুসন্ধানের জন্য ১ হাজার ৫৪৩টি অভিযোগ গৃহীত হয়। প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট দপ্তরে ৫৪৩টি অভিযোগ পাঠানো হয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কানাডার উন্নয়নমন্ত্রী আসছেন মঙ্গলবার

ব্যক্তির নামে সেনানিবাসের নামকরণ মঙ্গলজনক হবে না: মওদুদ

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে সহায়তার প্রস্তাব জাপানের

পানামা ও প্যারাডাইস পেপারসে নাম আসা ব্যক্তিদের তথ্য প্রকাশের দাবি সংসদে

সমাপনীতে অনুপস্থিত ১৪৫৩৮৩ শিক্ষার্থী

ঈদ-ই মিলাদুন্নবি ২ ডিসেম্বর

দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য তারেক রহমানকে দরকার: এমাজউদ্দিন

দল থেকে বরখাস্ত মুগাবে

দেখা হলো, কথা হলো কাদের-ফখরুলের

আখতার হামিদ সিদ্দিকী আর নেই

ইইউ প্রতিনিধি ও তিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন

‘এবার প্রশ্নপত্র ফাঁসের কোনো সুযোগ নেই’

নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করবে না শেখ হাসিনার সরকার-নৌ মন্ত্রী

‘আমি ব্যবসায়িক প্রতিহিংসার শিকার’

সেনা মোতায়েন নিয়ে বৈঠকে কোনো আলোচনা হয়নি : সিইসি

২০১৮ সালে প্রবল ভুমিকম্পের আশঙ্কা!