দেশে আসা হলো না গিয়াসের

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার থেকে | ১২ জানুয়ারি ২০১৭, বৃহস্পতিবার
২০০৫ সাল থেকে সৌদি আরবে প্রবাস জীবনে ছিলেন গিয়াস উদ্দীন (৩৫)। এই দীর্ঘ সময়ে মাত্র দু’বার দেশে এসেছিলেন। আগামী সপ্তাহে তৃতীয়বারের মতো দেশে আসার জন্য সব কিছু গোছাচ্ছিলেন তিনি। এদিকে স্বজনরাও তার পানে চেয়ে ছিলেন অধীর অপেক্ষায়। কিন্তু বিধি বাম! কারো আশা পূর্ণ হলো না। একটি দুর্ঘটনা কেড়ে নিলো সবার আশা।
বিদ্যুৎ দুর্ঘটনায় মারা গেছেন গিয়াস উদ্দীন। ভবন নির্মাণের কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ১০ই জানুয়ারি সৌদি সময় বেলা ১১টায় গিয়াস উদ্দীনের মৃত্যু হয়। তিনি কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার শাপলাপুরের ইউনিয়নের মুকবেখী এলাকার মৃত গোলাম কুদ্দুসের পুত্র। তার দু’ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য ছৈয়দ আলম জানান, ২০০৫ সালে নির্মাণ কাজের ভিসা নিয়ে সৌদি আরব গিয়েছিলেন গিয়াস উদ্দীন। এই সময়ের মধ্যে তিনি দু’বার দেশে এসেছিলেন। এক সপ্তাহ পরে তার তৃতীয়বার দেশে আসার কথা ছিল। কিন্তু দুর্ঘটনা সব আশা চূর্ণ করে দিলো। গিয়াস উদ্দীনের মৃত্যুতে তার স্বজনরা শোকে ভেঙে পড়েছেন। তার স্ত্রী ও সন্তানদের আহাজারিতে আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে। স্ত্রী ছকিনা খাতুন বলেন, স্বামী মারা যাওয়াতে আমাদের সব শেষ হয়ে গেছে। এখন আমরা তার মৃতদেহটা ফেরত চাই। এ জন্য সরকারের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পেট্রলবোমায় দুজন দগ্ধ

যেভাবে উগ্রপন্থায় দীক্ষিত হন আকায়েদ উল্লাহ

ঝন্টুর পেশা রাজনীতি

রিয়াল মাদ্রিদই চ্যাম্পিয়ন

উড়ে গেল টটেনহ্যমও

ছায়েদুল হকের জানাজা সম্পন্ন

ভারতে 'ছয় মাসের মধ্যে' ধর্ষকদের ফাঁসির দাবি করলেন নারী অধিকারকর্মী

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিক পাচার চক্র, কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে ৬০০ কর্মকর্তা বদলি

জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে নোটিশ জারিতে ইন্টারপোলের অস্বীকৃতি

‘বিয়ে তো ধুমধাম করে সবাইকে জানিয়েই করব’

রাজনীতিতে নামতে চান ছহুল হোসাইন

বিজয় দিবসে দেশ গড়ার দৃপ্ত শপথ

বঙ্গবন্ধুর গৃহবন্দি পরিবারকে যেভাবে উদ্ধার করেছিলেন কর্নেল তারা

থ্যাংক ইউ জেনারেল, উই আর অলরেডি বার্নিং, ডোন্ট অফার আস ফায়ার

ব্রাজিল ফুটবলের প্রধান ৯০ দিন নিষিদ্ধ

ঝিকরগাছায় ছাত্রলীগ কর্মী খুন, সড়ক অবরোধ