মহম্মদপুরে ঘোড়দৌড়

বাংলারজমিন

মহম্মদপুর (মাগুরা) প্রতিনিধি | ১২ জানুয়ারি ২০১৭, বৃহস্পতিবার
রাস্তার দুপাশে মানুষের দীর্ঘ লাইন। মাঠের ভেতরেও বহু মানুষ। বিভিন্ন এলাকা থেকে বিভিন্ন পথে লোকজন এসে সমবেত হন। শিশু-কিশোর, ছেলে-বুড়ো ও নারীসহ সব শ্রেণি-পেশার লোকজনের উদ্দেশ্য গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা উপভোগ করা। মহম্মদপুর উপজেলা সদরের বড়রিয়া শতবর্ষী ঘোড়দৌড় উপভোগে বুধবার দুপুরের পর থেকে এমন চিত্রই দেখা গেছে। এটি খুলনা অঞ্চলের সর্ববৃহৎ ঘোড়দৌড় মেলা। যেটি প্রতি বছর পৌষ মাসের ২৮ তারিখে অনুষ্ঠিত হয়। ঘড়ির কাঁটা আড়াইটা ছুঁই-ছুঁই। ১২টি ঘোড়া চোখে পড়লো। ঘোড়দৌড়ের রাস্তায় ঘোড়ার মালিক, ফকির ও ছোয়ারের (জকি) ঘোড়াকে তার পথপরিক্রমা দেখাতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছেন।
 আড়াইটার পর শুরু হলো ঘোড়দৌড় ছোয়ারের বাঁশির আওয়াজে কাঁচা রাস্তায় ধুলো উড়িয়ে ঘোড়া দৌড়াচ্ছে দ্রুতগতিতে। হাজার হাজার মানুষ দাঁড়িয়ে উপভোগ করেন সেই মনোরম দৃশ্য। শীতের বিকালে মিষ্টি রৌদ্দুরে এক অন্যরকম উৎসব-আনন্দে মেতে ওঠেন দর্শকরা। চূড়ান্ত প্রতিযোগিতায় রায়পাশার আবজাল মিয়ার ঘোড়া প্রথম, রাজবাড়ী মহম্মদপুরের ফুল মিয়ার ঘোড়া দ্বিতীয় ও ডুমুরতলার  নজির মিয়ার ঘোড়া তৃতীয় হয়। ঘোড়দৌড় শেষে মেলা কমিটির সভাপতি ও মহম্মদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান খান জাহাঙ্গীর আলম বাচ্চু বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। মেলাকে কেন্দ্র করে প্রায় ৩ বর্গকিলোমিটার এলাকাজুড়ে বসে বিভিন্ন এলাকার থেকে আসা মেলার স্টল। চারু-কারু, কাঠ-বাঁশ, প্রসাধনী, বেতের আসবাব, তৈজসপত্র, মিষ্টি, মাছসহ রকমারি পণ্যের পসরা সাজিয়ে হাজার হাজার স্টল এখন ক্রেতার অপেক্ষায় প্রস্তুত। মাগুরাসহ আশপাশের কয়েক জেলা থেকে হাজার হাজার লোকের সমাগম হয় এই মেলায়। মূল মেলা একদিন  হলেও মেলার আগে ও পরে পক্ষকালব্যাপী চলে মেলার বেচাকেনা। মেলা দেখার জন্য অত্র এলাকায় বইছে উৎসবের ঢেউ। আত্মীয়স্বজনদের আগমনে মেলার নিকটবর্তী প্রতিটি বাড়িতেই বিরাজ করছে অনাবিল আনন্দ। অতিথিদের  আগমন উপলক্ষে হরেক রকমের পিঠা তৈরি করা হয় এই মেলার সময়।

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা নবজাতকের নাম ‘শেখ হাসিনা’

রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতীয় ঐক্য হয়ে গেছে : নাসিম

রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ পাঠালো সৌদি আরব

ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ৫

‘সরকার পচা চাল আমদানি করছে’

‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিএনপি লিপ সার্ভিস দিচ্ছে’

অর্থ আত্মসাত মামলায় সাবেক কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

‘সুন্দরী মেয়েদের ধর্ষণ করে সেনারা হাত-পা, বুক কেটে ফেলে দেয়’

রোহিঙ্গাদের নির্যাতন বন্ধ করার উপায় খুঁজছেন ট্রাম্প

রোহিঙ্গা গণহত্যার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে জাতিসংঘকে ম্যাক্রনের আহ্বান

রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ প্রস্তাব