সুইজারল্যান্ডে ছেলেদের সঙ্গে মুসলিম মেয়েদের সাঁতার বাধ্যতামুলক

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ১১ জানুয়ারি ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:১৪
মুসলিম মেয়েদের জন্য আলাদা সাঁতারের ক্লাস দেয়া হবে না সুইজারল্যান্ডে। তাদেরকে অবশ্যই ছেলেদের সঙ্গে সাঁতার শিখতে হবে। এমন রায় দিয়েছে ইউরোপিয়ান কোর্ট অব হিউম্যান রাইটস (ইসিএইচআর)। এ রায়ের ফলে সাঁতার শেখার ফলে সুইজারল্যান্ডে ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা সাঁতারের ক্লাসের ব্যবস্থা থাকছে না। ছেলেমেয়ের সম্মিলিত সাঁতারের ক্লাসে মেয়েদের পাঠাতে বাধ্য হবেন মুসলিম পিতামাতারা। ইসিএইচআর-এর সাত বিচারকের প্যানেল বলেছে, আলাদা সাঁতারের ক্লাস বাতিল করায় হয়তো ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ হয়।
কিন্তু সামাজিক একত্রীকরণের ক্ষেত্রে এটা করা বৈধ। উল্লেখ্য, এ বিষয়ে আইনী চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিলেন তুর্কি বংশোদ্ভূত সুইস দম্পতি। তারা সুইজারল্যান্ডের বাসেল-এ বসবাস করেন। তারা হলেন আজিজ ওসমানোগলু ও সেহাবাত কোকাবাস। এ দম্পতি তাদের মেয়েদের ছেলেমেয়ের মিশ্রণে চলা সাঁতারের ক্লাসে পাঠাতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছিলেন। তারা দাবি করছিলেন, ধর্মের বিধিনিষেধের কারণে তারা তাদের মেয়েদের এমন ক্লাসে অংশ নিতে দিতে পারেন না। এ বিষয়ে বাসল আরবানের শিক্ষা বিষয়ক কর্মকর্তারা তাদেরকে উপদেশ দিয়েছিলেন। তারা বলেছিলেন, যদি তারা মেয়েদের ওই ক্লাসে যোগ দিতে না দেন তাহলে প্রতিজনকে ৮১৩ ডলার পর্যন্ত জরিমানা করা হতে পারে। এ বিষয়ে ওই দম্পতিকে তাদের সন্তানের স্কুল থেকে পরামর্শ দেয়া হয়। কিন্তু তারা বাধ্যতামুলক এ ক্লাসে মেয়েদের পাঠাতে অস্বীকৃতি জানান। ফলে তাদেরকে জরিমানা করা হয়েছে। উল্লেখ্য, মেয়েদের সাঁতার শেখার ওই নিয়মের বিরুদ্ধে এ দম্পতি আপিল করেছিলেন বাসেল আদালতে। তা প্রত্যাখ্যাত হয়। পরের বছর ২০১২ সালে সুইজারল্যান্ডের কেন্দ্রীয় আদালত তাদের আরও একটি আপিল প্রত্যাখ্যান করে। এরপর তারা আইনি চ্যালেঞ্জ জানান ইসিএইচআর-এ। এতে তারা দাবি করেন, ছেলেমেয়েদের যৌথ সাঁতারের ক্লাসে তাদের মেয়েদের পাঠানো ইউরোপিয়ান কনভেনশন অন হিউম্যান রাইটস-এর অনুচ্ছেদ ৯ লঙ্ঘন করে। কিন্তু তাদের এ আবেদন সর্বসম্মতক্রমে প্রত্যাখ্যান করে ইসিএইচআর। বলা হয়, এতে ধর্মীয় স্বাধীনতার কোনোই লঙ্ঘন হয় না। সুইজারল্যান্ড সামাজিক একত্রীকরণে বিশ্বাস করে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মসজিদে গুলি ছোড়ার পর পাল্টে গেল এক মার্কিনীর জীবন

দৃশ্যপট একই

আয় বৈষম্য বাড়ায় চাপে মধ্যবিত্ত

নকলা উপজেলা চেয়ারম্যানের লাশ উদ্ধার

রিভিউর প্রস্তুতি

বাংলাদেশির বীরত্বে ধর্ষকদের হাত থেকে রক্ষা পেলো ইতালীয় তরুণী

ঢাবিতে ‘ঘ’ ইউনিটের প্রশ্ন ফাঁস?

সিলেট টার্মিনালে গুলিবর্ষণ নিয়ে পাল্টাপাল্টি

রোহিঙ্গা স্রোত থামছে না

বড় দুই দলেই প্রার্থীর ছড়াছড়ি

সামান্য বৃষ্টিতেই ডুবেছে চট্টগ্রাম

টানা বৃষ্টিতে নগরজুড়ে দুর্ভোগ

নিম্নমানের কাগজে ছাপা হচ্ছে বিনা মূল্যের পাঠ্যবই

দিনে গড়ে দেড় হাজার মামলা

‘বিএনপিকে নির্বাচনের বাইরে রাখার ষড়যন্ত্র চলছে’

পাকিস্তানের ষড়যন্ত্রে রোহিঙ্গাদের উপর আক্রমণ: মতিয়া চৌধুরী