রোনালদো ‘দ্য বেস্ট’

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১১ জানুয়ারি ২০১৭, বুধবার
২০১৬ সালের শেষ আর ২০১৭ সালের শুরু- দু’টোই হলো বড় দুই পুরস্কার দিয়ে। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ২০১৬ সালে ক্যারিয়ার সেরা নৈপুণ্য দেখিয়ে ক্লাব ও দেশের হয়ে চার শিরোপা জিতেন। এতে গত বছরের শেষে নিজের করে নেন ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের ব্যালন ডি’অর। আর নতুন বছরের শুরুতে জিতলেন বিশ্ব ফুটবল নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা ফিফার ‘দ্য বেস্ট ফিফা মেনস প্লেয়ার’ পুরস্কার। সুইজারল্যান্ডের জুরিখে জমকালো এক আয়োজনের মাধ্যমে তার হাতে সোমবার তুলে দেয়া হয় ‘নতুন’ এ পুরস্কার। গত বছর স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদকে ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ, ইউয়েফা সুপার কাপ, ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জেতানোর পাশাপাশি নিজ দেশ পর্তুগাল প্রথম ইউরো কাপের শিরোপা জেতানোর স্বীকৃতি রয়েছে এই পুরস্কারে। ব্যালন ডি’অরের মতো এখানেও তিনি লিওলেন মেসি ও অ্যান্তইন গ্রিজম্যানকে হারিয়েছেন। ১৯৯১ সালে বিশ্ব ফুটবল নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা ফিফা বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার দেয়া শুরু করে। ২০১০ সাল থেকে ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন আর ফিফা মিলে দেয়া শুরু করে ফিফা ব্যালন ডি’অর পুরস্কার। এর আগে ২০০৮ এ ফিফার বর্ষসেরা পুরস্কার জেতেন রোনালদো। আর ফিফা ব্যালন ডি’অর জেতেন ২০১৩ ও ২০১৪ সালে। এবার আলাদা ফিফা ও ব্যালন ডি’অর আলাদা হলেও এই দুই পুরস্কার গেল একজনের ঝুলিতে। এতে চতুর্থবারের মতো ফিফার সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার জিতলেন রিয়াল মাদ্রিদের এ পর্তুগিজ উইঙ্গার। ফ্রান্স ফুটবল তাদের পুরস্কারের ডিজাইন একই রেখেছে। কিন্তু ফিফা নতুন ডিজাইনের পুরস্কার দেয়া শুরু করেছে। এতে নতুন ডিজাইনের প্রথম পুরস্কার জিতলেন রোনালদো। এর আগে ২০১০ সালে ফিফা ও ফ্রান্স ফুটবলের সমন্বিত প্রথম পুরস্কার জেতেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লিওলেন মেসি। প্রথম তিন বছরের পুরস্কার যায় তার ঝুলিতে। গত বছরজুড়ে দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়ে ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে চার শিরোপা জেতেন রোনালদো। এ বছর ক্লাবের হয়ে মোট ৪২ গোল ও দেশের হয়ে ১৩ গোল করেন তিনি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ১৬ গোল করা ও চারটি অ্যাসিস্ট করেন। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে ফাইনালে টাইব্রেকারে জয়সূচক গোলটি করেন তিনি।
বর্ষসেরা নির্বাচনে ৫০ শতাংশ ভোট দেন ফিফার সদস্য দেশের অধিনায়ক ও কোচ। আর ৫০ শতাংশ ভোট দেন ফিফার ওয়েবসাইটের পাঠক ও নির্বাচিত কিছু সাংবাদিকরা। রোনালদো ৩৪.৫৪ শতাংশ ভোট পেয়ে বছরের সেরা নির্বাচিত হয়েছেন। আর ২৬.৪২ শতাংশ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছেন আর্জেন্টাইন স্ট্রাইকার লিওনেল মেসি। তৃতীয় হওয়া ফরাসি ফরোয়ার্ড অ্যান্তইন গ্রিজম্যান পেয়েছেন ৭.৫৩ শতাংশ ভোট।
আগের ১০ বারের বিজয়ী
ফিফা বর্ষসেরা
২০০৬: কানাভারো
২০০৭: কাকা
২০০৮: রোনালদো
২০০৯: লিওনেল মেসি
ফিফা ও ব্যালন ডি’অর
২০১০: লিওনেল মেসি
২০১১: লিওনেল মেসি
২০১২: লিওনেল মেসি
২০১৩: রোনালদো
২০১৪: রোনালদো
২০১৫: লিওনেল মেসি
ফিফার বর্ষসেরা পুরুষ খেলোয়াড়
খেলোয়াড়    দেশ    প্রাপ্ত ভোট
ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো    পর্তুগাল    ৩৪.৫৪
লিওনেল মেসি    আর্জেন্টিনা    ২৬.৪২
অ্যান্তইন গ্রিজম্যান    ফ্রান্স    ৭.৫৩
বর্ষসেরা নারী খেলোয়াড়
কার্লি লয়েড    যুক্তরাষ্ট্র    ২০.৬৮
মার্তা    ব্রাজিল    ১৬.৬০
মেলানিয়া বেহরিঙ্গার    জার্মানি    ১২.৩৪
বর্ষসেরা পুরুষ কোচ
কোচ    দল    প্রাপ্ত ভোট
ক্লদিও রানিয়েরি    লেস্টার সিটি    ২২.৬
জিনেদিনে জিদান    রিয়াল মাদ্রিদ    ১৬.৫৬
ফারনানদো সান্তোস    পর্তুগাল    ১৬.২৪
বর্ষসেরা নারী কোচ
সিলভিয়া নেইড    জার্মানি    ২৯.৯৯
জিল এলিয়াস    যুক্তরাষ্ট্র    ১৬.৬৮
পিয়া স্যান্ডহ্যাগ    সুইডেন    ১৬.৪৭

 
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা নবজাতকের নাম ‘শেখ হাসিনা’

রোহিঙ্গা ইস্যুতে জাতীয় ঐক্য হয়ে গেছে : নাসিম

রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ পাঠালো সৌদি আরব

ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে আটক ৫

‘সরকার পচা চাল আমদানি করছে’

‘রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিএনপি লিপ সার্ভিস দিচ্ছে’

অর্থ আত্মসাত মামলায় সাবেক কৃষি ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেপ্তার

‘সুন্দরী মেয়েদের ধর্ষণ করে সেনারা হাত-পা, বুক কেটে ফেলে দেয়’

রোহিঙ্গাদের নির্যাতন বন্ধ করার উপায় খুঁজছেন ট্রাম্প

রোহিঙ্গা গণহত্যার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করতে জাতিসংঘকে ম্যাক্রনের আহ্বান

রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধানে জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ প্রস্তাব