মোদির বিরুদ্ধে ফতোয়া দিয়ে বিতর্কে কলকাতার ইমাম

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১১ জানুয়ারি ২০১৭, বুধবার
মধ্যযুগীয় বর্বরতার যুগ কাটিয়ে ভারত অনেকদূর এগিয়ে এলেও সেই বর্বরতার আশ্রয় নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করেছেন কলকাতার টিপু সুলতানের শাহী ইমাম সৈয়দ মোহম্মদ নুরুর রহমান বরকতি। গত  রোববারই মোদির বিরুদ্ধে ফতোয়া জারি করে তিনি জানিয়েছেন, মোদির দাড়ি কেটে, মাথা মুড়িয়ে মুখে কালির প্রলেফ দিতে পারলে তাকে ২৫ লাখ রুপি পুরস্কার দেয়া হবে। এই ফতোয়া বিতর্ক নিয়ে প্রবল শোরগোল তৈরি হলেও পশ্চিমবঙ্গ সরকার এদিন পর্যন্ত কোনো আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। বরং  সোমবার জি-টেলিভিশনের একটি শোতে মোদির বিরুদ্ধে তাঁর দেয়া ফতোয়া নিয়ে সমালোচনা করায় কানাডাপ্রবাসী পাকিস্তানি লেখক তারেক ফাতহার গলা শিরশ্ছেদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। কলকাতার শাহী ইমাম পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতোই মোদির নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের কঠোর সমালোচক। মমতার দলের সঙ্গে বরকতির সম্পর্কও খুব নৈকট্যের।
মমতার দলের দুই এমপি ও বিধায়ককে পাশে নিয়েই সর্বভারতীয় মজলিস-ই-শূরা ও সর্বভারতীয সংখ্যালঘু ফোরামের সভায় নোট বাতিলের ফলে মানুষের যে দুর্গতি হচ্ছে তার জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদিকে দায়ী করে ফতোয়া জারি করেছেন। বরকতির মতে, নোট বাতিলের মাধ্যমে মোদি সকলকে ভুয়া কথা বলছেন। নোট বাতিলের ফলে প্রতিদিন মানুষ হয়রান হচ্ছেন। এবং সমস্যায় পড়ছেন। বরকতির জি-টেলিভিশনের শোতেও প্রকাশ্যে বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি দেশে সাম্প্রদায়িকতা ছড়াচ্ছেন। একই সঙ্গে নোট বাতিলের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের জীবনকে ধ্বংস করছেন। বরকতির এই ফতোয়াকে মানতে পারেননি পশ্চিমবঙ্গের অনেক মুসলিম নেতা। জামায়াত-ই-ইসলামী হিন্দের সভাপতি মোহম্মদ নুরুদ্দিন বরকতির বক্তব্যের কঠোর সমালোচনা করে বলেছেন, এই ধরনের মন্তব্য ভয়ঙ্কর এবং মেরুকরণের রাজনীতিকেই এ সব উৎসাহ জোগাবে। তিনি আরো বলেছেন, একজন ইমামের ভারসাম্য বজায় রেখে কথা বলা উচিত। সর্বভারতীয় সংখ্যালঘু ইউথ ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক  মোহম্মদ কামারুজ্জামান বলেছেন, বরকতির বক্তব্য রাজ্যের সব ইমাম ও মৌলানাদের মনে প্রবল আঘাত দিয়েছেন। নারা রাজ্য থেকে ইমামরা ফোন করে বরকতির কথায় তাদের উদ্বেগের কথা জানিয়েছেন। এদিকে বিজেপি মোদির বিরুদ্ধে ফতোয়া জারির জন্য বরকতিতে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন। বিজেপি’র কেন্দ্রীয় নেতা সিদ্ধার্থনাথ সিং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে বরকতিতে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন। বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ কলেছেন, বরকতি শুধু মোদিকেই অপমান করেননি, দেশের মানুষকেও অপমান করেছেন। বিজেপি’র রাজ্য সম্পাদক রীতেশ তিওয়ারি অবশ্য জোড়াসাঁকো থানায় একই অভিযোগ দায়ের করেছেন। এবং সেটিকেও এফআইআর হিসেবে গণ্য করে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য পুলিশের কাছে আরজি জানিয়েছেন। গত বছর মমতার বিরুদ্ধে মন্তব্য করার জন্য বরকতি বিজেপি’র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধেও ফতোয়া জারি করেছিলেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Abu Sufian

২০১৭-০১-২৮ ২১:৩৪:৪৩

এই ঘোষনার সাথে ফতোয়ার সম্পর্ক কি?

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে চীনের প্রস্তাব, যা বললেন মুখপাত্র...

দুদকের মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন মেয়র সাক্কু

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন টিটু রায়

আনসারুল্লাহ’র দুই জঙ্গি কলকাতায় গ্রেপ্তার

‘আওয়ামী লীগ ৪০টির বেশি আসন পাবে না’

মায়ের বুক থেকে চুরি হওয়া শিশুটি উদ্ধার

চট্টগ্রামে সাইকেল আরোহীর পা ভাঙায় বাসে আগুন

নাইজেরিয়ায় মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ৫০

উত্তর কোরিয়াকে সন্ত্রাসবাদের পৃষ্ঠপোষক বললেন ট্রাম্প

আ’লীগের দুই গ্রুপের সমাবেশ, ১৪৪ ধারা

‘নিজাম হাজারীর ক্যাডাররা খালেদার গাড়িবহরে হামলা করেছে’

যৌন কেলেঙ্কারির অভিযোগে বরখাস্ত মার্কিন এই টিভি উপস্থাপক

নিখোঁজের ৪ দিন পর বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার

রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশের সঙ্গে এ সপ্তাহেই চুক্তি হবে- সুচি

সাকিবকে গুনতে হচ্ছে জরিমানা

সশস্ত্র বাহিনী জাতির এক গর্বিত প্রতিষ্ঠান: খালেদা জিয়া