প্রেসিডেন্টের কাছে ৭ প্রস্তাবনা বিকল্পধারার

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ১০ জানুয়ারি ২০১৭, মঙ্গলবার, ১০:০৭
নির্বাচন কমিশন গঠনে প্রেসিডেন্টের কাছে ৭দফা প্রস্তাবনা দিয়েছে বিকল্পধারা। গতকাল সন্ধ্যা ৬টায় বঙ্গভবনে বিকল্পধারার সভাপতি ও সাবেক প্রেসিডেন্ট প্রফেসর এ.কিউ.এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদের কাছে এই প্রস্তাবনা তুলে ধরেন। বি. চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে উল্লেখিত প্রস্তাবনাগুলোতে বলা হয়Ñ দুর্ভাগ্যবশত সংবিধানের ৫৬ অনুচ্ছেদের (৩) দফা অনুসারে কেবল প্রধানমন্ত্রী ও ৯৫ অনুচ্ছেদের (১) দফা অনুসারে প্রধান বিচারপতি নিয়োগের ক্ষেত্র ছাড়া প্রেসিডেন্টের ক্ষমতা সীমাবদ্ধ থাকায় অন্য ব্যাপারে (নির্বাচন কমিশন নিয়োগসহ) প্রেসিডেন্ট তাঁর দায়িত্ব পালনে প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করবেন। সেই হিসেবে আমরা আশা করি, প্রধানমন্ত্রী যাদের নির্বাচন কমিশনে নিয়োগ করতে চান তাদের নামগুলি জানালে এই আলোচনা ফলপ্রসূ হতো। বি. চৌধুরী বলেন, অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে দেখা যায়, যতবার নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে ততবারই নির্বাচনসমূহ গ্রহণযোগ্য হয়েছে। সেই হিসেবে একটি নিরপেক্ষ সরকার গঠন একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের প্রধান পূর্ব শর্ত।
২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের পূর্বে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে একটি সর্বদলীয় সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। ওই প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রীর অধীনে ৫জন সরকার দলীয় সদস্য ও ৫জন বিরোধীদলীয় সদস্য নিয়ে নির্বাচনকালীন সরকার গঠন করার কথা বলা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাবিত উক্ত নির্বাচনকালীন সরকারের মন্ত্রিসভায় বিরোধী দলকে স¦রাষ্ট্র ও সংস্থাপন (বর্তমানে জন প্রশাসন) মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। বি. চৌধুরী বলেন, সেই প্রস্তাব অনুযায়ী সকল বিরোধী দলকে নিয়ে নির্বাচনকালীন একটি জাতীয় সরকার গঠন করলে নির্বাচন নিরপেক্ষ হওয়ার সম্ভাবনা বাড়বে। একই সঙ্গে এই অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন অনুষ্ঠানের সম্ভাবনাও বাড়বে। নির্বাচন কমিশন গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাদের নাম প্রস্তাব করবেন, সেই তালিকায় নি¤œবর্ণিত ব্যক্তিবর্গকে রাখার জন্য আমরা প্রস্তাব করছি। প্রস্তাবিত ব্যক্তিরা হবেনÑ একজন সাবেক প্রধান বিচারপতি, একজন সাবেক সেনাপ্রধান, বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য, একজন সাবেক জ্যেষ্ঠ সচিব, একজন প্রখ্যাত মহিলা সমাজ কর্মী ও একজন প্রখ্যাত পেশাজীবী। পরবর্তী নিরপেক্ষ সরকার গঠনের পর ওই সরকার আরো ৩ জনের নাম প্রস্তাব করবেন। নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য একটি আইন প্রণয়ন করতে হবে। নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী আপিল করলে ৬ মাসের মধ্যে মামলা নিস্পত্তি করার জন্য আইন প্রণয়ন করতে হবে। বদরুদ্দোজা চৌধুরীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসেবে বৈঠকে অংশ নেনÑ মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, যুগ্ম মহাসচিব মাহী বি. চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুর রউফ মান্নান, মাহবুব আলী, অ্যাডভোকেট শাহ আহম্মেদ বাদল, ড. কাজী কামাল, বেগ মাহতাব, ওয়াসিমুল ইসলাম, অ্যাডভোকেট খন্দকার জোবায়ের হোসেন, শিপ্রা রহীম, মাহফুজুর রহমান, ওবায়েদুর রহমান মৃধা, মহসিন চৌধুরী ও বিএম নিজাম প্রমুখ। উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বিকল্পধারার বৈঠক নির্ধারিত ছিল ৭ জানুয়ারি। কিন্তু বি. চৌধুরীর অসুস্থতার কারণে সেটা পিছিয়ে ৯ জানুয়ারি করা হয়। 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

জাতিসংঘকে দিয়ে রোহিঙ্গা সঙ্কটের সমাধান হবে নাঃ চীন

ম্যনইউয়ের টানা ৩৮

রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সংলাপে সহায়তা করতে আগ্রহী চীন

‘ভিন্নধর্মী কাজ করাটা আমি খুব উপভোগ করি’

জল্পনার অবসান ঘটালেন জ্যোতি

চীনের বেইজিংয়ে অগ্নিকান্ড, নিহত ১৯ আহত ৮

ভাইস চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বৈঠক করলেন খালেদা জিয়া

চার পররাষ্ট্রমন্ত্রী এখন বাংলাদেশে

ইতিহাস প্রতিশোধ নেয়

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে মার্কিন প্রতিনিধি দল

৭৯ দিন পর বাড়ি ফিরলেন অনিরুদ্ধ রায়

প্যারাডাইস পেপারসে মিন্টু পরিবারের নাম

ফেসবুকে বন্ধুতা, প্রেম ব্ল্যাকমেইল

মাথা ন্যাড়ার শর্তে এসএসসির ফরম পূরণ!

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত এমপি গোলাম মোস্তফা আহমেদ

বিশ্ব সুন্দরীর মুকুট মানসী চিল্লার-এর