ইরানের সাবেক প্রেসিডেন্ট রাফসানজানি আর নেই

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৯ জানুয়ারি ২০১৭, সোমবার
ইরানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আকবার হাশেমী রাফসানজানি আর নেই (ইন্না...রাজেউন)। ৮২ বছর বয়সে তিনি রোববার হার্ট এটাকে মারা যান রাজধানী তেহরানের এক হাসপাতালে। এদিন তার দেহ নেয়া হয় ইরানে ইসলামিক বিপ্লবের প্রতিষ্ঠাতা আয়াতুলাøাহ রুহুল্লাহ খামেনির বাসভবন জামারায়। সেখানে তার আত্মীয়, রাজনীতিক, ধর্মীয় নেতারা তার প্রতি তাদের শেষ শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তার মৃত্যুতে ইরান সরকার তিন দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেছে। মঙ্গলবারকে ঘোষণা করা হয়েছে সরকারি ছুটি।
এদিন তাকে দাফন করা হবে। ১৯৮৯ থেকে ১৯৯৭ সাল পর্যন্ত দু’দফায় ইরানের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন রাফসানজানি। ইরানের বর্তমান প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির একজন বড় পরামর্শক ছিলেন তিনি। ২০১৩ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করতে চেয়েছিলেন রাফসানজানি। কিন্তু একজন সংস্কারবাদী বলে তার প্রার্থিতা বাতিল করে দেশটির শক্তিধর গার্ডিয়ান কাউন্সিল। তার মৃত্যুতে প্রেসিডেন্ট রুহানি টুইটে বলেছেন, বিপ্লব, ধৈর্য্য ও প্রতিবাদের প্রতীক এই মহান ব্যক্তির বেহেস্ত নসিব প্রার্থনা করি। বিশ্লেষকরা বলছেন, রাফসানজানির অকস্মাৎ এই মৃত্যু প্রেসিডেন্ট রুহানির ওপর একটি বড় আঘাত। কারণ, আগামী মে মাসে ইরানে নতুন নির্বাচন। তাতে আবার প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন হাসান রুহানি। সেক্ষেত্রে রাফসানজানির আশীর্বাদ তার জন্য খুবই প্রয়োজন ছিল। ইরানে ইসলামী বিপ্লবের একজন মহৎ ব্যক্তি হিসেবে চিহ্নিত করা হয় রাফসানজানিকে। কখনো তিনি রাজনীতি থেকে দূরে থাকেন নি। তার ছিল অন্য রকম এক প্রভাব। সম্প্রতি ইরানে যে সংস্কার আন্দোলন শুরু হয়েছে তার মূলে ছিলেন তিনি। কট্টর ইরান ও আয়াতুল্লাহ খোমেনিই-এর প্রভাবের ভিতর থেকে ইরানকে উদারতার দিকে নিয়ে আসতে তার রয়েছে অদ্বিতীয় অবদান।

 

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাজধানীতে ছাত্রদলের মিছিলে হামলা, আহত ৩

যশোরে জঙ্গি সন্দেহে বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিশ

সুষমা কেন সহায়ক সরকারের কথা বলতে যাবেন: কাদের

আপস না করায় খালেদার বিরুদ্ধে ৩৯ মামলা: ফখরুল

আত্মবিশ্বাস থাকলে যে কোন কঠিন কাজ করা যায়: জয়

আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

৪ ঘণ্টায় হাজার মণ ইলিশ বিক্রি

সংবিধান বিরোধীদের নিবন্ধন বাতিলের দাবি

প্রতিবন্ধী স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা

‘রোহিঙ্গা নিধনে পরিকল্পিত নির্যাতন চালিয়েছে মিয়ানমার’

রোহিঙ্গা প্রশ্নে ভারতীয় নীতি

অবস্থান পাল্টালো টিএসসি কর্তৃপক্ষ

রাখাইনে ১৭৭০ কোটি কিয়াতের বিশাল কর্মপরিকল্পনা

কেন উত্তরাধিকার বেছে নেবেন না শি জিনপিং?

বিমানবন্দরে সোহেল তাজের স্যুটকেসের তালা ভেঙে তল্লাশি

নিজেকে পতিতার মতো মনে হচ্ছিল- আদ্রিয়েনে লাভ্যালি