আকাশে আশ্চর্য আলো, তার উপরে অপার্থিব আওয়াজ

রকমারি

| ৬ জানুয়ারি ২০১৭, শুক্রবার
ক্রিসমাসের দিন ল্যাপল্যান্ড অঞ্চলে পর্যটক দল নিয়ে ভ্রমণের সময়ে অলিভার সেই আওয়াজ শুনতে পান। তাঁর মতে, আকাশ থেকে ভেসে আসে ‘র‌্যাট-ট্যাট-ট্যাট’ শব্দ। নরওয়ের আকাশে তখন মেরুপ্রভার অসামান্য আলোর খেলা। যা দেখতে ভিড় করেন পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের পর্যটক। ঠিক এমন সময়েই এক অদ্ভুত আওয়াজ ভেসে এল। শুনে অনেকেরই মনে পড়ে গেল ‘স্টার ওয়ার্স’ ছবির গানফায়ারের দৃশ্য। পুরো বিষয়টাকেই রেকর্ড করে রাখলেন জনৈক ট্যুর-গাইড। তাঁর মতে, নরওয়ের মেরুপ্রভা বা ‘নর্দার্ন লাইটস’-ই নাকি এই আওয়াজের উৎস।অলিভার রাইট নামের ওই ট্যুর গাইড পেশায় ফোটোগ্রাফারও বটে। ক্রিসমাসের দিন ল্যাপল্যান্ড অঞ্চলে পর্যটক দল নিয়ে ভ্রমণের সময়ে অলিভার সেই আওয়াজ শুনতে পান। তাঁর মতে, আকাশ থেকে ভেসে আসে ‘র‌্যাট-ট্যাট-ট্যাট’ শব্দ। প্রথমে তাঁর মনে হয়, কাছের কোনও ইলেক্ট্রিক কানেকশন থেকে এই আওয়াজ আসছে। তাঁর সঙ্গীরাও ততক্ষণে আওয়াজটা শুনেছেন। তিনি তখনই তাঁর আইফোন-এ আওয়াজটি রেকর্ড করেন। রাইট জানিয়েছেন, আওয়াজ ক্রমেই বাড়তে থাকে।কী এই আওয়াজের উৎস? বহু খোঁজ-খবর করে জানা গিয়েছে, মেরুপ্রভা থেকেই এই আওয়াজ জন্ম নিয়েছে। তড়িৎচুম্বক শক্তি যখন যান্ত্রিক গতিতে পরিণতি পায়, তখন এমন আওয়াজ হতে পারে বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এমন ঘটনায় সন্নিহিত পাওয়ার কেবলগুলিতে বিদ্যুৎ দ্রুতগতিতে চলাচল করতে থাকে, তারগুলি কাঁপতে শুরু করে এবং আওয়াজ শুরু হয়।ক্রিসমাসের দিন আকাশে মেরুপ্রভার বান ডেকেছিল। আকাশ ভরে গিয়েছিল অরোরা বোরিয়ালিসের অপার্থিব আলোয়। এই আলোর বাড়বাড়ন্তই এই আওয়াজকে সম্ভব করে তোলে বলে জানিয়েছেন অনেকেই।

সুত্রঃ এবেলা
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন