চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে আরেক তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ গ্রেপ্তার

ভারত

পরিতোষ পাল, কলকাতা থেকে | ৩ জানুয়ারি ২০১৭, মঙ্গলবার
চিটফান্ড কেলেঙ্কারিতে যুক্ত থাকার অভিযোগে চারদিনের ব্যবধানে আরেক তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদকে গ্রেপ্তার করেছে সিবিআই। গত শনিবার গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ ও অভিনেতা তাপস পালকে। আর মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের লোকসভার নেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে। রোজভ্যালির অর্থ জালিয়াতিতে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে তলব করে নোটিশ পাঠিয়েছিল সিবিআই। মঙ্গলবার সকাল ১১টা নাগাদ সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সের সিবিআই দপ্তরে হাজির হয়েছিলেন তিনি। তাকে দু’দফা জেরা করার পর বিকেলে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে সিবিআই সূত্রে জানানো হয়েছে। সিবিআই দপ্তরে পৌঁছে অবশ্য সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, আমার বিরুদ্ধে কী অভিযোগ তা জানতে এসেছি। কিন্তু বেলা গড়াতেই স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল যে সিবিআই তাকে গ্রেপ্তার করতে চলেছে। দুটি প্রশ্ন তালিকা তৈরি করে তিনজন সিবিআই আধিকারিক মিলে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেরা করেছেন। অভিযোগ, রোজভ্যালি সাধারণ মানুষের কাছ থেকে ১৭ হাজার কোটি টাকা তছরূপ করেছে। আর সেই রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুন্ডকে ব্যবসা সম্প্রসারণে সাহায্য করেছিলেন সুদীপ ও তার স্ত্রী নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, সুদীপ-নয়না একাধিকবার বিদেশ ভ্রমণ করেছেন রোজভ্যালির টাকায়। গৌতম কুন্ডুকে করা জিজ্ঞাসাবাদে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সিবিআইয়ের দাবি, রোজভ্যালির সঙ্গে একাধিকবার আর্থিক লেনদেন হয়েছে সুদীপের। তার আত্মীয়কে রোজভ্যালিতে চাকরিও দিয়েছিলেন গৌতম কুন্ডু। এসব প্রসঙ্গে সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেরা করে কোনও সদুত্তর না পেয়েই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। চিটফান্ডের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় নজরদারি সংস্থার আতশীকাচ থেকে রোজভ্যালিকে আড়াল করতে সক্রিয় ছিলেন তিনি। দিল্লিতে নিজের ফ্ল্যাটে একাধিকবার গৌতম কুন্ডুর সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন সুদীপ, এমন তথ্যও পেয়েছে সিবিআই।  অভিযোগ, রোজভ্যালির সঙ্গে তার মোটা টাকার লেনদেন হয়েছিল। বিভিন্ন সময়ে রোজভ্যালির গাড়িও সুদীপ ব্যবহার করেছিলেন বলে অভিযোগ। এদিকে আগে গ্রেপ্তার হওয়া তাপস পালকে ভুবনেশ্বরে সিবিআই তিন দিন ধরে জেরা করে অনেক তথ্য পেয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। তবে শেষ দিকে তাপস পাল তার কিছু মনে পড়ছে না বলে জেরায় জানিয়েছেন। মঙ্গলবার তাকে ফের হেফাজতে নেবার জন্য আদালতে তোলার কথা।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন