শোকপ্রকাশের জন্য আলাদা ঘর হবে মেডিক্যালে

রকমারি

| ২৯ ডিসেম্বর ২০১৬, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৩
তৃণমূলের চিকিৎসক নেতা তথা বিধায়ক নির্মল মাজি বুধবার জানিয়েছেন, মেডিক্যাল কলেজে এমসিএইচ বিল্ডিং এবং জরুরি বিভাগের পাশে তৈরি হচ্ছে একটি ১১ তলা ভবন। ওই ভবনের দোতলায় একটি ঘরকেই শোকপ্রকাশের স্থান হিসাবে গড়ে তোলা হবে। প্রিয়জন হারানোর শোক নিভৃতে প্রকাশের জন্য কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে তৈরি হচ্ছে আলাদা ঘর।
তৃণমূলের চিকিৎসক নেতা তথা বিধায়ক নির্মল মাজি বুধবার জানিয়েছেন, মেডিক্যাল কলেজে এমসিএইচ বিল্ডিং এবং জরুরি বিভাগের পাশে তৈরি হচ্ছে একটি ১১ তলা ভবন। ওই ভবনের দোতলায় একটি ঘরকেই শোকপ্রকাশের স্থান হিসাবে গড়ে তোলা হবে। নির্মল বলেন, ‘‘মৃতের আত্মার শান্তি কামনা করা, নিজেদের মধ্যে দুঃখ ভাগ করে নেওয়ার জন্য আলাদা ঘরের কথা আমরা চিন্তা করেছি।’’ রাজ্যে এমন ঘর তৈরির উদ্যোগ এই প্রথম।
তবে এই ঘর তৈরির নেপথ্যে হাসপাতালে অশান্তি ঠেকানোর ভাবনাও রয়েছে। তৃণমূলের চিকিৎসকনেতার কথায়, ‘‘প্রিয়জন চলে যাওয়ার যন্ত্রণা সহ্য করার মতো মানসিক শক্তি সকলের থাকে না।
তখনই মনে হয়, ঠিকমতো চিকিৎসা হল না বলেই মৃত্যু হল। এই মানসিক অবস্থায় অনেকসময় ঝগড়া হয়, ধাক্কাধাক্কি হয়। প্রিয়জনকে হারানোর আঘাত প্রাথমিক ভাবে সহ্য করার জন্য ঘর দরকার।’’
এই পরিকল্পনাকে সাধুবাদ জানালেও চিকিৎসকদের একাংশ প্রশ্ন তুলেছেন, যেখানে বহু হাসপাতালে রোগীর আত্মীয়দের সঙ্গে চিকিৎসকদের আলাদা করে কথা বলার জন্যই ঘর নেই, সেখানে এ ধরনের ঘর তৈরি কতটা যৌক্তিক।
নির্মল জানান, হাসপাতালের উন্নয়নের টাকায় সাজানো হবে ওই  ঘর। তাঁর  কথায়, ‘‘পুরো হাসপাতালকে সৌন্দর্যায়নের মোড়কে নিয়ে আসতে চাইছি। একটা স্বর্গীয় পরিবেশ। কেওড়াতলার পরিবেশ দেখবেন…, ওপারের ডাক যাঁদের হাতছানি দিয়ে ডেকেছে, সেখানেও শান্তির খোঁজ!’’ এক চিকিৎসক অবশ্য এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘‘হাসপাতালে এবার শ্মশানের শান্তি? বোঝাই যাচ্ছে, চিকিৎসার হাল কী!’’ হাওড়ার ডোমজুড়ের বাসিন্দা গৌরহরি দাস বলেন, ‘‘আমার রোগী হাসপাতালে। আমরা কি কান্নাঘরে বসে থাকব? রোগী বাঁচানোর ঘর করুন।’’
নির্মল জানিয়েছেন, মেডিক্যাল কলেজে আগে উপাসনাগৃহ ছিল। উপাসনাগৃহ থেকে এবার শোকগৃহ। সেই রূপান্তরের মধ্যে অবশ্য রইল ‘শ্মশানের শান্তি’ বিতর্ক। আর বরাবরের মতো বিতর্কে রইলেন সেই নির্মল।

সুত্রঃ এবেলা

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দু’বছরের মধ্যে জেরুজালেমে দূতাবাস খুলবে যুক্তরাষ্ট্র

শিক্ষামন্ত্রণালয়ের দুই কর্মচারী ও লেকহেড স্কুলের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচন ১৯শে ফেব্রুয়ারি

ফেরত পাঠালে রোহিঙ্গারা ঝুঁকিতে পড়বে

একই রাতে মা ও ছেলের মৃত্যু

ধনী ১ শতাংশ মানুষের হাতে বিশ্বের ৮২ শতাংশ সম্পদ

‘ছবিটিতে অন্যতম আকর্ষণীয় চরিত্রের নাম বন্দনা’

শিক্ষার ঘুষের হাটের কারবারি

অভিযোগের পাহাড়, অসহায় ইউজিসি

প্রত্যাবাসন শুরু হচ্ছে না আজ

মৈত্রী এক্সপ্রেসে শ্লীলতাহানির শিকার বাংলাদেশি নারী

‘২০৬ নম্বর কক্ষে আছি, আমরা আত্মহত্যা করছি’

ট্রেনে কাটা পড়ে দুই পা হারালেন ঢাবি ছাত্র

পুলে যাচ্ছে সেই সব বিলাসবহুল গাড়ি

নীলক্ষেত মোড়ে ব্যবসায়ীদের বিক্ষোভ, এমপির আশ্বাসে স্থগিত

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সফর সফল করতে নির্দেশনা