মানুষ আমি, আমার কেন পাখির মত মন!

মত-মতান্তর

ফারজানা হুসাইন | ২১ ডিসেম্বর ২০১৬, বুধবার
১. গত সপ্তাহে কাজের ফাঁকে আমার এক সহকর্মীর সাথে কফি খাচ্ছি। হঠাৎ করে সে বলে উঠলো, আচ্ছা তোমার পার্টনার যদি তোমার সাথে চিট করে তুমি কি তারপর আর তার সাথে থাকবা? আমি মুহূর্তে তার দিকে তাকিয়ে উত্তর দিলাম, নাহ! সে মাথা নাড়িয়ে বিষাদ বদনে বলল, এতই কী সহজ সিদ্ধান্ত নেওয়া? এত সহজে অনেকদিনের একটা সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসা কী যায়? - না, একদমই সহজ নয়, তবে সামটাইস য়্যু হ্যাভ টু বি ক্রুয়েল টু বি কাইন্ড টু ইয়্যোরসেলফ।
চিট করা বা সঙ্গীর সাথে প্রতারণা করা বলতে সোজাসুজি ভাবে আমরা অন্য কারো সাথে শারীরিক সম্পর্ক বুঝি, আমাদের সনাতন সংস্কৃতিতে হয়তো অন্য কোন নারী বা পুরুষের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়াও বোঝায়। আমার দৃষ্টিতে শঠতা মানে সততার অভাব, তা সে যে ধরণের অসততাই হোক। যে বিষয় বা বিষয়গুলো দুজনের সম্পর্কের ভিত্তি তার প্রতি প্রবঞ্চনাকেই আমি মোটামুটিভাবে শঠতা বলবো।
সঙ্গী যখন প্রতারণা করে, সেটা জেনে যাওয়ার পর স্বাভাবিক মানুষ যা করে তা হল প্রশ্ন, হাজারটা প্রশ্ন, একের পর এক প্রশ্ন। কেন করলে এরকম? কবে করেছো, কোথায় করেছো, কতবার করেছো, কার কার সাথে করেছো.. ইত্যাদি ইত্যাদি । কখনো উত্তরগুলো পাওয়া যায়, কখনো যায় না।
তবে এই প্রশ্নগুলো করার পিছনের কারণ উত্তর খুঁজে পাওয়া নয় মোটেই। বরং ঘটনার আকস্মিকতায় তীব্র ঘৃণা আর অপমানকে উগরে দেওয়া মাত্র। এরপর শুরু হয় নিজেকে প্রশ্ন করা। আমার কোথায় খামতি ছিলো যে সে এমন করলো, এতদিনের সম্পর্কের কথা একবারও সে ভাবলো না? এত মায়া-ভালোবাসা তার কাছে তুচ্ছ?
এত এত প্রশ্নের ভীড়ে হারিয়ে যায় হাসি, খাওয়ার ইচ্ছে, বিছানায় এপাশ-ওপাশ করাই কেবল সার হয়- ঘুম সে তো কবেই গেছে দেশান্তরে। বই খোলা থাকে সামনে কিন্তু পাতা উল্টানো হয়ে ওঠে না, গরম চায়ের মগ ধীরে ধীরে ঠান্ডা হয়-ফ্যাকাশে স্তর জমে মগের উপরে। খোলা টিভির চরিত্রগুলো নেচে-গেয়ে যায় আপন মনে- কে তার খবর রাখে?
এক কথায় জীবন হয়ে ওঠে দূর্বিসহ। সব শাস্তিগুলো আমরা নিজেকেই দেই, অথচ অপরাধটা আমরা করিনি একদমই। আমরা ভুলে যাই এসময়ের প্রথম এবং প্রধান কাজ নিজেকে একেবারেই কষ্ট না দেওয়া বরং প্রিয় মানুষ শঠতা করলে ওই মুহূর্তে নিজেকে ভালোবাসা সবচেয়ে বেশি দরকার। ভালোবাসার মানুষটা যে ভালোবাসতে ভুলে গেছে!
২. একগামিতা প্রাণীর সহজাত বৈশিষ্ট্য নয়, জীবজগতে একগামী প্রাণীর দেখা মেলা ভার। আমাদের গুহাবাসী পূর্বপুরুষেরা বহুগামি ছিল। গোত্র- সমাজ গড়ে ওঠার কালে ধর্মের ভূমিকা হয়ে দাঁড়ায় একটি সুশৃঙ্খল সমাজ কাঠামো গড়ে দেওয়া, ভালো-মন্দের সীমানা প্রাচীর গড়া। সেই মহৎ নির্মাতার ভূমিকায় ধর্ম সভ্য সমাজের ভিত্তি হিসাবে একগামিতার কথা শোনায়। আব্রাহামিক তিন ধর্মের মত বাকি প্রায় সব বহুল প্রচলিত ধর্ম-ই নারীর উপর একগামিতার বোঝা চাপিয়েছে,অথচ পুরুষ পেয়েছে বৈবাহিক সূত্রে বহুগামিতার স্বীকৃতি। আব্রাহামের দুই স্ত্রীর কথা বাইবেল-কোরআন সবখানেই পাওয়া যায়। ইসলাম চার স্ত্রী রাখার অনুমোদন দেয়। রাধা কেবল কৃষ্ণের প্রেয়সী, হাজারখানেক স্ত্রী তার । ওদিকে মহাভারতের দ্রৌপদীর পাঁচস্বামীর কারণ বেচারির একাধিক পতি-ঈপ্সা নয় বরং ভাইদের সাথে সবকিছু ভাগ করে নেওয়ার অর্জুনের প্রতিজ্ঞা।
মজার বিষয় হল, বেশিরভাগ পুরুষই তার নারী সঙ্গীর অন্য কারো সাথে প্রেম করাকে হয়ত ক্ষমা করতে পারে যদি না সেই মেয়ে অন্য পুরুষের সাথে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। নারীর শারীরিক শুচিতা (!) পুরুষের আজীবনের আরাধ্য বস্তু। সীতার অগ্নিপরীক্ষা আর আয়েশার সতীত্বের প্রমানের কথা পাওয়া যায় ধর্মগ্রন্থে। অথচ, বেশিরভাগ নারী আবার পুরুষের অন্য নারীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক করাকে পুরুষ মানুষের শরীরের চাহিদা একটু বেশিই হয়- বলে ধরে নেয় কিন্তু অন্য কোন নারীর সাথে তার পছন্দের পুরুষের অশারীরিক প্রেমকে মানতে পারে না একদমই। সুতরাং শরীর মনের সংঘাত নারী পুরুষ ভেদে ভিন্নতর।
সেই আদ্দিকালের শুধু নারী-পুরুষের সম্পর্ক কেবল আর নেই আজ, পাশ্চাত্যের সাথে প্রগতিপন্থী আমরা ও সচেতনভাবেই স্বীকার করে নিচ্ছি সমলিঙ্গের সম্পর্কগুলোকে। লিঙ্গ পরিচয় আর অভিযোজন এক বিস্ময় যেন আজ।
কথায় কথায় আমার কৈশোরের একটা ঘটনা মনে পড়ে গেল। আমাদেরই সমবয়সী দুজন কিশোর-কিশোরী প্রেমে পড়ল স্কুলের শেষ ক্লাসেই। দুজনই ভিন্ন ভিন্ন আবাসিক এক স্কুল-কলেজের স্টুডেন্ট হওয়াতে প্রেম চলল পত্রালাপে। ছুটিতে বাড়ি ফিরলে দুজন কারো তোয়াক্কা না করেই শহরে রিক্সা করে ঘুরে বেড়াতো, প্রেম করত। তখন ছোট্ট মফস্বল শহরে এই লোক দেখানো প্রেম খুব ভালো চোখে দেখা হয়নি। মূল কান্ড ঘটল কলেজের শেষ দিকে, মেয়েটিকে তার কলেজ থেকে বহিস্কার করা হল সেই আবাসিক কলেজের আরেকটি মেয়ের সাথে সমপ্রেমের ঘটনায় হাতেনাতে ধরা পড়ার জন্য। গল্পের ডালপালা ছড়াতে খুব বেশি সময় লাগেনি একদমই। স্বভাবতই বন্ধুমহলে বেশ কানাঘুষো চলল । শুনেছি পরের ছুটিতে ছেলেটি বাড়ি ফিরলে মেয়েটিকে হাতে-কলমে পরীক্ষা দিতে হয়েছে তার বিষমকামিতার। হোক কিশোর, তবু সে প্রেমিক তো! ষোল-সতেরোর দুই কিশোর-কিশোরীর প্রগলভাময় প্রেম আর প্রমানের নিষ্ঠুরতার সেই ঘটনা মনে পড়লে এখনও বিবমিষা জাগে। সেই ঘটনার বেশ কিছু মাস পর্যন্তও ছেলেটি আর মেয়েটির মধ্যে যোগাযোগ ছিল। একটি বিষমকামী সম্পর্কে সমলিঙ্গের প্রতি আকর্ষনকে হয়ত মোটামুটি মেনে নেওয়া হয়। আর যাই হোক মেয়েটি অন্য কোন ছেলের সাথে তো আর সম্পর্ক করেনি; তাই প্রেমিকের চোখে প্রেমিকার সতীত্ব অটুট থাকে।
যাই হোক, গল্পের শুরুতে ফিরে আসি। যারা মনে করে হৃদয়ের ভাঙন কেবল আমাদেরই হয়, পাশ্চাত্য সংস্কৃতি ফ্রীডম অব সেক্সস নয়, কেবল ফ্রী সেক্সের উপর দাঁড়িয়ে আছে, তাদের জন্য বলি শুরুর গল্পের আমার এই সহকর্মী গত তিন সপ্তাহ জুড়ে ভয়াবহ মনোকষ্টে দিন কাটাচ্ছে- ঠিক বিষমকামী আমাদেরই মতন। আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হল- এই ভদ্রলোক একটি সমকামি ও সমপ্রেমি সম্পর্কে আছেন।
হায় হৃদয়ের ক্ষরণ! নারী-পুরুষ-সমকামি-সমপ্রেমি কাউকেই সে ছাড় দেয় না!!
লেখক: ব্যারিস্টার এ্যাট ল’, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক, গবেষক ও মানবাধিকারকর্মী

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

obak

২০১৭-০২-০৫ ২১:০০:৩৭

a nice heading....undoubtedly...and nice writing also....

Sanjid Alam P.hd

২০১৬-১২-২২ ১০:৩৪:৩৫

একই মানুষ যখন সমকামী আর বহুকামী/গামী হয়ে যায় তখন তার কি শান্তি প্রাপ্য থাকে? লেখিকা আপনার এরকম মানুষ কে প্রথমে একজন মনো বিশেষজ্ঞ কে দেখানো উচিত। গবেষণা তে দেখা গিয়েছে যে এরকম মানুষ খুব অল্প বয়স থেকে যৌন সম্পর্ক কে এতো বেশি পরিমানে অঃ বেবহার করে যে পরে তার স্বাভাবিক এবং প্রাকৃতিক সম্পর্কের প্রতি অনিচ্ছা চলে আসে। কোনো কিছুই অতিরিক্ত ভালো নয়।

আপনার মতামত দিন

ব্রাজিল ফুটবলের প্রধান ৯০ দিন নিষিদ্ধ

ঝিকরগাছায় ছাত্রলীগ কর্মী খুন, সড়ক অবরোধ

উৎসবের আমেজে সারাদেশ

জনগণের দেয়া রায় মেনে নেবে বিএনপি: ফখরুল

কংগ্রেস সভাপতি পদে রাহুল গান্ধীর আনুষ্ঠানিক অভিষেক

দুই নারীর একজন স্বামী, অন্যজন স্ত্রী

আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

নওগাঁয় যুবককে কুপিয়ে হত্যা

গার্মেন্টে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ তদন্ত করছে এইচ অ্যান্ড এম

নাশকতার অভিযোগে ২০ শিবিরকর্মী আটক

বিএনপির বিজয় র‌্যালিতে যুবলীগ-ছাত্রলীগের হামলা

বিজয় উৎসব পালন করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ৮ মুক্তিযোদ্ধাসহ আহত ৯

আমৃত্যু এক যোদ্ধার কথা

ছাত্রদলের পুষ্পস্তবক ছিঁড়লো ছাত্রলীগ

বঙ্গবন্ধুর গৃহবন্দি পরিবারকে যেভাবে উদ্ধার করেছিলেন কর্নেল তারা

ভারতে তিন তালাক বিরোধী খসড়া আইনে সরকারের অনুমোদন