ঘটকালির পুরস্কার: পথ-কুকুরদের চিকেন বিরিয়ানি ভোজ

রকমারি

| ১০ ডিসেম্বর ২০১৬, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫৬
তিতাস পেশায় চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট, সোমক কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার।শুক্রবার ছিল তিতাস-সোমকের বিয়ে। জোকা ডায়মন্ড পার্কের তিতাস মজুমদার। ঠাকুরপুকুরের গৌড়নগরের বাসিন্দা সোমক চট্টোপাধ্যায়। শুক্রবার সাত পাকে বাঁধা পড়লেন এই দুই তরুণ-তরুণী! কিন্তু আর পাঁচটা বিয়ের থেকেও একটা জায়গায় অন্যরকম হয়ে থাকল এই বিয়ে। কারণ, তাঁদের বিয়ের ঘটকালির কৃতিত্ব দাবি করতেই পারে কলকাতার পথ-কুকুররা।

তিতাস পেশায় চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট, সোমক কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার। কিন্তু পড়াশোনা, পেশার বাইরেও তাঁদের ভালবাসা ছিল পথ-কুকুরদের প্রতি। সেই সূত্রেই বছর দুয়েক আগে দু’জনের আলাপ। একসঙ্গে সারমেয়দের জন্য কাজ করা শুরু। ঠাকুরপুকুরে সোমকের বাড়িতে পথকুকুরদের চিকিৎসার জন্য অপারেশন থিয়েটার, থাকার জায়গা— সবই রয়েছে। কুকুরদের জন্য কাজ করতে করতেই তিতাস-সোমকের মন দেওয়া নেওয়া। দু’জনেই বুঝতে পারেন, তাঁদের চার হাত একহাত হলে চারপেয়ে এই প্রাণীগুলিরই মঙ্গল। তাই ঘর বাঁধার সিদ্ধান্ত নেন দু’জনে। শুক্রবার ছিল তিতাস-সোমকের বিয়ে। কিন্তু যাদের জন্য একে অপরের কাছে আসা, জীবনের এই দিনটিতে তাদের ভুলে থাকা যায় না! তাই বিয়ের ব্যস্ততার মধ্যেই কার্যত নিজেদের হাতে করে পথকুকুরদের জন্য বিশেষ চিকেন বিরিয়ানি করেছেন তিতাস এবং সোমক।আর পাঁচজন অতিথির মতো আমন্ত্রণপত্র বিলি করে এই অতিথিদের নিমন্ত্রণ করা সম্ভব হয়নি। তাই বৃহস্পতিবার থেকে বেহালা, জোকা, ঠাকুরপুকুর, টালিগঞ্জ এলাকার পথকুকুরদের ঘুরে ঘুরে এই স্পেশাল বিরিয়ানি খাওয়াচ্ছেন তিতাস এবং সোমক।শুক্রবার বিয়ে মিটতেই বেরিয়ে পড়েছিলেন নবদম্পতি। গভীর রাত পর্যন্ত কুকুরদের খাওয়ানোর পরেই যেন তাঁদের বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পূর্ণ হল।ভোজ অবশ্য এখনও শেষ হয়নি। বরপক্ষ, কনপক্ষ মিলিয়ে সারমেয় সংখ্যা যে অনেক। রবিবার তিতাস-সোমকের বৌভাতের অনুষ্ঠান। সেদিন পর্যন্ত সারমেয়দের ভূরিভোজ! তিতাস এবং সোমককে বর-বধূ বেশে দেখেও অবশ্য সারমেয় বাহিনীর আচরণে বিশেষ বদল নজরে পড়েনি। তারা বরং বেশি ব্যস্ত ছিল স্পেশাল চিকেন বিরিয়ানিতে!

সুত্রঃ এবেলা
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন