মুসলিম পেশাজীবীদের প্লাটফর্ম এক্সিকিউটিভ মুসলিম

প্রবাসীদের কথা

অনলাইন ডেস্ক | ৭ ডিসেম্বর ২০১৬, বুধবার
সমগ্র বিশ্বের মুসলামান পেশাজীবীদের সামনে এগিয়ে নিতে সম্প্রতি চালু হয়েছে এক্সিকিউটিভ মুসলিম (ইএম) নামে নতুন এক পোর্টাল। বিশ্বের সফল ও প্রতিভাবান মুসলমানদের সারা বিশ্বে পরিচিত করার লক্ষ্যে পোর্টালটি তৈরি করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক মাহবুবুর রশিদ।www.executivemuslim.com ঠিকানায় গিয়ে যে কোনো মুসলিম ইএম-এর সদস্য হতে পারবেন। গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে রশিদ জানান, প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বে দক্ষ মুসলিম পেশাজীবীদের এক প্লাটফর্মে আনা এবং তাদের মেধা, দক্ষতা, যোগ্যতা এবং প্রতিভা অনুযায়ী জীবনের অবস্থান আর উন্নত করাই ইএম-এর মূল লক্ষ্য। সমগ্র মুসলিম উদ্যোক্তা-পেশাজীবীরা-কর্পোরেট হাউস পারস্পরিক যোগাযোগ অর্থাৎ নেটওয়ার্ক এর মাধ্যমে, ছোট বড় কোম্পানি স্পন্সরশিপ এর মাধ্যমে সারা বিশ্বের দরবারে নিজেকে তুলে ধরবে। এর বাইরে কোম্পানিগুলো নিজের পণ্যের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আমাদের কর্মকা-ে সামিল হতে পারবে। ব্যাক্তিগত প্রচারণা ছাড়াও, আমাদের দেশের সকল সফল প্রতিষ্ঠানগুলো চাইলে নিজেদের পরিচিতি ইএম-এর মাধ্যমে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিতে পারবে।
রশিদ আরও বলেন, এটা কোন ধর্মীয় সংগঠন বা ধর্ম প্রচারের প্লাটফর্ম নয়। শুধুমাত্র পিছিয়ে থাকা মুসলিম সম্প্রদায়কে সামনে এগিয়ে নেয়ার প্রত্যয়ে এই প্রচেষ্টা। সারা পৃথিবীতে মুসলিমরা পেশাজগতে যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও অনেক পিছিয়ে। যদিও আগে থেকে অবস্থা অনেক উন্নত হয়েছে। তারপরও আমরা মনে করি তারা তাদের যোগ্যতা, দক্ষতা, মেধা, প্রতিভা আর পছন্দ অনুযায়ী নিজের পেশা বেছে নিতে পারছেনা যথাযথ সুযোগের অভাবে। আর এই কাজটাই করবে ইএম। সামাজিক দায়বদ্ধতার পাশাপাশি মেধাবি ছাত্রদের বৃত্তি, শিক্ষা সমাপ্ত হওয়ার পর দ্রুত পেশা জীবনে ঢুকে যেতে সাহায্য, যাকাত এবং চ্যারিটি ফান্ড এর মধ্যমে আর্থ সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন, লাইফ স্টাইল এর ব্যাপারে পরামর্শ প্রদান এসকল কাজ এই কার্যক্রমের অংশ।
রশিদ জানান, লিনকডিন, মনস্টার, নকরি এদের সাথে আপাত দৃষ্টিতে এক মনে হলেও এসকল কোম্পানি সুধুমাত্র নিয়োগ প্রদানের ক্ষেত্রে সাহায্য করে থাকে। আর ইএম এক্ষেত্রে ছাত্রদের বৃত্তি প্রদান, পরামর্শ এবং ছাত্র জীবন শেষে কোথায় কাজ করবে, কোন পেশা বেছে নিবে এসকল পরামর্শের পাশাপাশি চাকুরী পাওয়ার ক্ষেত্রে ব্যাপক সহায়তা করবে। এক্ষেত্রে ইএম অনেকটা অভিভাবক হিসেবে তার দায়িত্ব পালন করবে। আর মধ্যপ্রাচ্যের বাজারে দক্ষ জনশক্তি নিয়োগে এক অনন্য ভুমিকা পালন করবে। ইএম একটি প্রফেশনাল উদ্যোগ। এখানে বিভিন্ন দেশের অভিজ্ঞ পেশাজীবীদের দ্বারা পরিচালিত। এখানে আইটি বিশেষজ্ঞ, চার্টার্ড একাউনটেনট, মানব সম্পদ কর্মী, মিডিয়া ও মার্কেটিং এক্সপার্ট, চ্যারিটিবিশেষজ্ঞ, ইউএন কর্মী, সাংবাদিক এমনকি ইসলামি শরিয়াহ বিশেষজ্ঞ রয়েছেন।
মাহবুবুর রশিদ প্রায়২০ বছর ধরে লন্ডন এবং দুবাই শহরে হেড-হান্টার হিসেবে কর্মরত। সারা পৃথিবীতে দক্ষ কর্মী নিয়োগে অভিজ্ঞ বিশেষজ্ঞ এবং সাম্প্রতিক সময়ে পবিত্র মক্কার ক্বাবা শরিফ এক্সটেনশন প্রকল্পে প্রকৌশলী নিয়োগে সৌদি সরকারের কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করেছেন। ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে তিনি বলেন, আমার বাবা একজন বাংলাদেশী। জীবিকার তাগিদে ব্রিটেনে গেলেও সুযোগের অভাবে দক্ষ পেশাজীবী হতে না পারলেও ব্যবসায়ী হিসেবে সফল ছিলেন। আর তার সন্তান হিসেবে আমার প্রচেষ্টা থাকবে বাংলাদেশের দক্ষ জনশক্তিকে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দিতে। খুব শীঘ্রই আমরা বাংলাদেশে সভা-সেমিনার করব। আর বাংলাদেশ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশে কার্যক্রমে সম্পৃক্ত হওয়ার ইচ্ছা রাখি।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন