ন্যুড সেলফি বন্ধক রাখলে সহজে মিলবে লোন!

রকমারি

| ৭ ডিসেম্বর ২০১৬, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪০
আক্ষরিক অর্থেই সামাজিক অবক্ষয়। ইন্টারনেটের যুগে যা প্রতিদিন রোজ ঘটছে। অবস্থা এমন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে, যেখানে নারী শরীরও ঋণ-বন্ধক। তামাম বিশ্বের সামাজিক অবক্ষয়ের অন্যতম নিদর্শন চিনের এই ঘটনা। চিনে একটি ফাইনান্স কোম্পানি শুধু মহিলাদেরই ঋণ দিচ্ছে। শর্ত একটাই, ওই কোম্পানির কাছে পাঠিয়ে দিতে হবে ঋণগ্রহীতার নগ্ন সেলফি ও আসল নাম-সহ সরকারি পরিচয়পত্র। বন্ধক হিসেবে। ঋণ পরিশোধ না করতে পারলেই, ভাইরাল করে দেওয়া হবে ওই নগ্ন সেলফি। মান-সম্মান সব ধুলোয়। গোটা বিষয়টি ফাঁস হয়, যখন দেখা যায়, ১০ গিগাবাইট নগ্ন সেলফি পোস্ট করা হয়েছে ওয়েবসাইটে। অর্থাত্‍‌, এই মহিলারা সময় মতো ঋণ পরিশোধ করতে পারেননি। Jiedaibao (JD ক্যাপিটাল) নামে চিনের একটি অনলাইন ফাইনান্স কোম্পানি শুরু করেছিল এই নোংরা ব্যবসা। ঋণ পরিশোধ না করায় ১৬০ জন মহিলার পাঠানো নগ্ন সেলফি পোস্ট করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেটে। ব্যাঙ্ক থেকে ঋণ পেয়েই অর্থের জন্য এই ফাইনান্স কোম্পানির দ্বারস্থ হয়েছেন বহু মহিলা। তদন্তে নেমে দেখা গিয়েছে, চিনে ২ হাজার ৬০০টি সংস্থা ফেঁদে বসেছে এই ধরনের P2P (peer-to-peer) ব্যবসা। দেখা গিয়েছে, ঋণের সুদ নির্ভর করছে মহিলার শরীরের গড়ন ও দরকারের উপর। ঋণ গ্রহীতাদের থেকে কোনও কোনও ক্ষেত্রে নেওয়া হয়েছে আত্মীয়-স্বজনের পরিচয়ের বিস্তারিত তথ্যও। ঋণ শোধ করতে না পারলে ওই ন্যুড সেলফি ইন্টারনেট ও আত্মীয়-স্বজনদেরও পাঠিয়ে দেবে সংস্থাটি। ঘটনাটি ফাঁস হওয়ার পর রীতিমতো চিন্তিত চিন প্রশাসন। কী ভাবে ইন্টারনেটের এই ব্যবহার রোখা যায়, তার জন্য তত্‍‌পর হচ্ছে প্রশাসন।

সুত্রঃ এই সময়
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন