করোনায় মৃতের সংখ্যায় চীনকে ছাড়ালো বাংলাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার

প্রথম পাতা ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৩১

করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণহানির তালিকায় চীনকে টপকে গেল বাংলাদেশ। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরো ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়ালো ৪ হাজার ৭৫৯ জনে। চীনে এ পর্যন্ত ৪ হাজার ৬৩৪ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। দেশে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১ হাজার ৮১২ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৩৩২ জন শনাক্ত হয়েছেন। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

এতে আরো জানানো হয়, ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৫১২ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট ২ লাখ ৪৩ হাজার ১৫৫ জন সুস্থ হয়েছেন। বর্তমানে ৯৪টি পরীক্ষাগারে করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ৮৪৭টি নমুনা সংগ্রহ এবং ১৪ হাজার ২১৬টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।
এখন পর্যন্ত ১৭ লাখ ৪২ হাজার ৬৯৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১২ দশমিক ৭৫ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭১ দশমিক ৬৬ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৪০ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ২২ জন এবং ৪ জন নারী। এখন পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৭০৮ জন পুরুষ এবং ১ হাজার ৫১ জন নারী মারা গেছেন। মৃত্যুর শতকরা হিসাবে পুরুষ ৭৭ দশমিক ৯২ শতাংশ এবং নারী ২২ দশমিক শূন্য ৮ শতাংশ। একদিনে হাসপাতালে ২৫ এবং বাসায় ১ জন মারা গেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের বয়স বিবেচনায় ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ২ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৩ জন, ৫১ পথকে ৬০ বছরের মধ্যে ১১ জন এবং ৬০ বছরের উপরে ১০ জন রয়েছেন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৪ জন, রাজশাহী বিভাগে ২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ১ জন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৫২৩ জন এবং ছাড় পেয়েছেন ১ হাজার ৭০১ জন। এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ৫ লাখ ১৬ হাজার ৪৪১ জন এবং ছাড় পেয়েছেন ৪ লাখ ৬৭ হাজার ৯৪ জন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন ৪৯ হাজার ৩৪৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৪৩০ জন আর ছাড় পেয়েছেন ৭১৮ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৭৭ হাজার ২০৯ জন এবং ছাড় পেয়েছেন ৫৯ হাজার ৩৬২ জন। এখন আইসোলেশনে আছেন ১৭ হাজার ৮৪৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রান্ত ফোনকল এসেছে ৫১ হাজার ৫৭৪টি এবং এ পর্যন্ত  ফোনকল ২ কোটি ৪৬ লাখ ৪ হাজার ৯০৮টি।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ৩১শে ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়। এরপর ধীরে ধীরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে এবং মহামারি রূপ নেয়। বাংলাদেশে করোনার নমুনা পরীক্ষা শুরু হয় ২১শে জানুয়ারি। গত ৮ই মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) জানিয়েছে। আর করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় তার ১০ দিন পর ১৮ই মার্চ।

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

দিনভর কান্না-আকুতি

আকামার মেয়াদ বাড়লো ২৪ দিন

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

দ্বিতীয় ঢেউ

সর্বত্র উদ্বেগ মোকাবিলার প্রস্তুতি

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিক্কি এশিয়ান রিভিউ’র রিপোর্ট

চীন থেকে বাংলাদেশকে দূরে রাখতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা কূটনীতি

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশে অর্থনৈতিক প্রভাব বিস্তৃত করেছে চীন। এ সময়ে দক্ষিণ এশিয়ায় একটি ‘উদীয়মান’ মিত্রের মন জয় ...

গু ড নি উ জ

ডেঙ্গুতে করোনা প্রতিরোধ!

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

রোহিঙ্গা হলেই কি বাংলাদেশি?

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

দেশে এসে বিপাকে লাখো প্রবাসী

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

সরকারি কেনাকাটায় অস্বাভাবিক দাম নিয়ে সতর্কতার নির্দেশ

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

 বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পে কেনাকাটায় অস্বাভাবিক দাম নিয়ে সতর্কতা জারি করে ছয়টি নির্দেশনা দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। ...



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত



দিনভর কান্না-আকুতি

আকামার মেয়াদ বাড়লো ২৪ দিন

শনাক্ত ৩,৫০,০০০ ছাড়ালো, মৃত্যু ৫০০০ ছুঁই ছুঁই

দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ে শঙ্কা যে কারণে

সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ

টিকিটের জন্য হাহাকার