চীন থেকে মার্কিন সাংবাদিকদের বহিষ্কার না করার আহ্বান

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২৫ মার্চ ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:০৬

চীন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি প্রভাবশালী পত্রিকার সাংবাদিকদের বহিষ্কার না করতে  সে দেশের সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ওইসব পত্রিকা কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে রয়েছে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল, নিউ ইয়র্ক টাইমস, ওয়াশিংটন পোস্ট। তারা এক খোলা চিঠিতে চীন কর্তৃপক্ষকে তাদের সিদ্ধান্ত পাল্টানোর আহ্বান জানিয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য গার্ডিয়ান। এতে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের ওই তিনটি বড় সংবাদ মাধ্যমের কমপক্ষে ১৩ জন সাংবাদিককে এ মাসের শুরুতে চীন ত্যাগ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে চীনা সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ‘অযৌক্তিক নিষ্পেষণের’ জবাবে সরকার এমন নির্দেশ দিয়েছে বলে বলা হয়। মঙ্গলবারের ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, চীন ও যুক্তরাষ্ট্র সরকারের মধ্যে কূটনৈতিক বিরোধে সমানভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মিডিয়া। করোনা ভাইরাস মহামারীতে বিশ্ব যখন হিমশিম খাচ্ছে, তখন এক সঙ্কটময় সময়ে সাংবাদিকদের বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
ওই চিঠিতে বলা হয়েছে,‘যেসব আমেরিকান আমাদের সংবাদ মাধ্যমের জন্য কাজ করছেন তাদেরকে জোরপূর্বক চীন ত্যাগের যে সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে তা পরিবর্তনের জন্য চীন সরকারের কাছে আমরা দৃঢ়তার সঙ্গে আহ্বান জানাচ্ছি। উপরন্তু, নিরপেক্ষ সংবাদ মাধ্যমের বিরুদ্ধে ক্রমবর্ধমান দমনপীড়ন, যার জন্য সাংবাদিকদের দেশত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে, তা শিথিল করার আহ্বান জানাচ্ছি।’
উল্লেখ্য, চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংগঠনগুলোকে যুক্তরাষ্ট্র সরকার ‘বিদেশী মিশন’ হিসেবে আখ্যায়িত করে তাদের ওপর কঠোর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের এমন পদক্ষেপকে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নিষ্পেষণ’ আখ্যায়িত করে মার্কিন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ওই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বেইজিং। এরই মধ্যে চীন থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের তিনজন সাংবাদিককে। চীন কর্তৃপক্ষ বলছে, ওই পত্রিকায় ‘বিদ্বেষপরায়ণ’ কলাম ছাপা হয়েছে। একে বর্ণবাদী হিসেবে দেখা হয়। তবে এই রিপোর্টের সঙ্গে বহিষ্কার করা ওই তিন সাংবাদিকের কোনই যোগসূত্র নেই। যে কোনো পরিস্থিতিতে বহিষ্কারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করবে বলে জানিয়ে দিয়েছে মার্কিন ওই সংবাদ মাধ্যমগুলো।

সাংবাদিকদের এভাবে বহিষ্কারের ফলে মুক্ত সংবাদ মাধ্যম নিয়ে আতঙ্ক ও নিন্দা করা হচ্ছে। ফরেন করেসপন্ডেন্টস ক্লাব অব চায়না বলেছে, সাংবাদিকদের বহিষ্কার ও অন্যদেরকে ভিসা অনিশ্চয়তার মধ্যে রাখার মাধ্যমে চীন অতিমাত্রায় বিদেশে সংবাদ পরিবেশনের ওপর শক্তি প্রয়োগ করে প্রভাব বিস্তার করছে। এ জন্য তারা ওইসব সাংবাদিককে শাস্তি দিচ্ছে, যারা এমন সব তথ্য প্রকাশ করেন যা কর্তৃপক্ষের পক্ষে যায় না এবং এজন্য তারা তাদেরকে নীরব করে দিতে চান।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০২০-০৩-২৫ ২০:০৩:২৭

Equal revange. Tit for tat.

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



বেদনাদায়ক পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকুন

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে যুক্তরাষ্ট্র- ট্রাম্প