শিক্ষার্থীদের রাস্তায় ঘুরতে দেখলে ব্যবস্থা, ডিসি-এসপিকে নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার

শিক্ষাঙ্গন ১৮ মার্চ ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:২২

জেলা প্রশাসন ও পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে কোন শিক্ষার্থীকে রাস্তায় ঘুরতে দেখলে তাদের বাড়িতে পাঠানোর ব্যবস্থা নিতে বলেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এছাড়াও তারা সন্তানদের বাসায় অবস্থান নিশ্চিত করতে অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

বুধবার মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গত ১৬ই মার্চ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক আদেশের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার লক্ষ্যে ১৮ই মার্চ থেকে ৩১শে মার্চ পর্যন্ত সকল ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কোচিং সেন্টারগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করা হয়েছিল। শিক্ষার্থীরা যাতে বাসায় অবস্থান করে তা নিশ্চিত করতে অভিভাবকদের অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, অনেক শিক্ষার্থী ও অভিভাবক এ ছুটিকে সাধারণ ছুটি হিসেবে গণ্য করে বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এমনকি অনেকে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত ভ্রমনেও যাচ্ছেন স্বপরিবারে। একই আদেশে কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করা হলেও পত্র-পত্রিকার মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, কিছু কোচিং সেন্টার তাদের কোচিং কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে ফলে আমাদের শিক্ষার্থী ও সারাদেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়ছে। এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট সকলকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আজ পুনরায় চিঠি দেয়া হয়েছে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

রিপন

২০২০-০৩-১৮ ১৯:০৫:৪৯

ভরদুপুরে বইখাতার ব্যাগ ঝুলিয়ে হনহন করে হেঁটে যাচ্ছে ছেলেটি। রোজকার চেনা দৃশ্য। তবে, আজ মুখে মাস্ক নেই। মুখোমুখি হতেই জিজ্ঞেস করি, "ইশকুল বন্ধ ঘোষণা করে নি বুঝি তোমাদের? সারা দেশেই তো বন্ধ ঘোষণা করা হয়ে গেছে বলেই জানি।" ছেলেটির জবাব, "জি, স্কুল বন্ধ। তবে, প্রাইভেট খোলা। তাই প্রাইভেটে যাচ্ছি।" বুঝলাম প্রাইভেট বাণিজ্য বন্ধ হয় নি মাস্টারদের। পড়াটি ক্লাসে ঠিকমতো না পড়িয়ে প্রাইভেট পড়ানোর ছুতোয় ব্যাচের পর ব্যাচ নিয়ে বসে ওরা। রমরমা বাণিজ্য। বন্ধ হয় নি এই ভর করোনাতেও। বন্ধ হয় না কখনও। বলি, শিক্ষাক্রম শিক্ষাসূচি কি ওই বয়সের শিক্ষার্থীদের উপযোগী করে বিনির্মিত হয় নি যে, নিয়মিত ক্লাসের বাইরেও আলাদাভাবে প্রাইভেট কোচিং করতে হবে ওদেরকে ঝড় বিষ্টি করোনা উপেক্ষা করে? দেশজোড়া শ্রেণিপাঠনার পরিবীক্ষণ, পরিদর্শন, তত্ত্বাবধানের কোন রেওয়াজ চালু আছে কি শিক্ষামন্ত্রণালয়ের? নাকি, আমাকেই আবার ব্যাখ্যা করতে হবে পরিবীক্ষণ, পরিদর্শন, তত্ত্বাবধান পদগুলো জনপ্রশাসন. শিক্ষাপ্রশাসনসমেত তামাম প্রশাসনের ক্ষেত্রে কী অর্থ বহন করে? আমার চে' কত কম যোগ্যতা নিয়ে ওরা মোটা বেতনে কাজ করছে শিক্ষামন্ত্রণালয়ে, ভাবতে অবাক লাগে!

আপনার মতামত দিন



শিক্ষাঙ্গন অন্যান্য খবর



শিক্ষাঙ্গন সর্বাধিক পঠিত



প্রধানমন্ত্রীর লেখা চিঠি পৌঁছে যাবে আজকেই

১৭ই মার্চের প্রাথমিকের সকল কর্মসূচি বাতিল