সৌদি জোটের হামলায় ইয়েমেনে ৩১ বেসামরিক নিহত

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার

সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিমান হামলায় ইয়েমেনে নিহত হয়েছেন ৩০ জনেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক। দেশটির ইরান সমর্থিত হুতি বিদ্রোহীরা এমন দাবি করার পর জাতিসংঘের পর্যবেক্ষক দল তার সত্যতা নিশ্চিত করেছে। বেসামরিক মানুষের ওপর সৌদি জোটের এমন হামলাকে ‘শকিং’ বলে মন্তব্য করেছে। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।

শনিবার সৌদি আরবের একটি আধুনিক যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করে ইয়েমেনের হুতিরা। এরপরই দেশটির আল-জফ প্রদেশের ওই একই এলাকায় বিমান হামলা চালাতে শুরু করে সৌদি জোট। এতে অংশ নেয় সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিমান। ইয়েমেনে কর্মরত জাতিসংঘের কর্মকর্তারা হামলায় হতাহতের সংখ্যা নিশ্চিত করে একটি বিবৃতি প্রদান করেন। এতে বলা হয়, প্রাথমিকভাবে পাওয়া তথ্যানুযায়ী সৌদি জোটের হামলায় ৩১ ইয়েমেনি নিহত ও ১২ জন আহত হয়েছেন।
আল-জফ প্রদেশের আল-মসলুব জেলার আল-হাইজাহ এলাকায় ওই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার পর দ্রুততার সঙ্গে জাতিসংঘের মেডিকেল দল তাদেরকে চিকিৎসাসেবা প্রদান করে। অনেককে নিকটস্থ হাসপাতালগুলোতে প্রেরণ করা হয়। অবস্থা যাদের গুরুতর ছিল তাদেরকে রাজধানী সানাতেও পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘের কর্মকর্তারা। বিদ্রোহী গোষ্ঠী হুতি জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে রয়েছেন বেশ কয়েকজন নারী ও শিশু। হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে সৌদি আরব। দেশটির প্রেস এজেন্সি একটি বিবৃতি প্রকাশ করে এ নিয়ে। তবে তাদের ভূপাতিত হওয়া বিমানের পাইলটের ভাগ্যে কি ঘটেছে সেটি এতে উল্লেখ করা হয়নি।

সৌদি যুদ্ধবিমান ভূপাতিত
সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন জোটের একটি যুদ্ধবিমান ইয়েমেনে বিধ্বস্ত হয়েছে। বিমানটি সৌদি আরবের। ইয়েমেনের উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ আল জাওফে এটি বিধ্বস্ত হয়। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা এসপিএ বলছে, ইয়েমেনি সেনা ইউনিটের কাছে সহযোগী একটি মিশন পরিচালনাকালে সৌদি টর্নেডো যুদ্ধবিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। ইয়েমেনের বিদ্রোহী হুতিরা দাবি করেছে তারা শুক্রবার রাতে ওই বিমানটিকে গুলি করে ভূপাতিত করেছে। ২০১৫ সাল থেকে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে যাচ্ছে সৌদি আরব নেতৃত্বাধীন জোট। রাজধানী সানা থেকে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সরকারকে হুতিরা উৎখাত করার পর এই জোট সেখানে হস্তক্ষেপ করে। হুতিরা বলেছে, তারা শুক্রবার রাতে ওই যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করতে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে। তবে এতে কি পরিমাণ হতাহত হয়েছে সে বিষয়ে বা কি কারণে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে সে বিষয়ে সৌদি আরব বিস্তারিত কিছু জানায়নি। তবে তারা শনিবার সেখানে অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান চালিয়েছে। এতে ‘অনিচ্ছাকৃতভাবে’ কিছু বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

সাক্ষাৎকারে ড. দেবী শেঠী

এক মাসে ভারতে ভয়াল থাবা বসাতে পারে করোনা (ভিডিও)

৭ এপ্রিল ২০২০

সরকারের জন্য বড় আঘাত

কেমন আছেন জনসন! 

৭ এপ্রিল ২০২০

করোনা আতঙ্ক

এও কি সম্ভব!

৭ এপ্রিল ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত