ইঁদুরের থাবায় নষ্ট পৌনে ৫ লাখ মেট্রিক টন ফসল

সংসদ রিপোর্টার

অনলাইন ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, রোববার, ৮:৩৫ | সর্বশেষ আপডেট: ৯:০৫

বিগত ৫ বছরে ইঁদুর ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৮০৫ মেট্রিক টন ফসল নষ্ট করেছে। ফসল রক্ষায় ইঁদুর নিধনে সরকার বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছে। আজ সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ তথ্য জানান কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক। অধিবেশনে এ সংক্রান্ত প্রশ্নটি উত্থাপন করেন সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য হাবিবা রহমান খান।

কৃষিমন্ত্রী আরো জানান, ইঁদুরের আক্রমণে ২০১৮ সালে ১ লাখ ৪ হাজার ৪৯২ মেট্রিক টন, ২০১৭ সালে ৯০ হাজার ৩৮৫ মেট্রিক টন, ২০১৬ সালে ৮৮ হাজার ৮৪৪ মেট্রিক টন, ২০১৫ সালে ৯৪ হাজার ৩৮৮ মেট্রিক টন এবং ২০১৪ সালে ৯৬ হাজার ৬৯৬ মেট্রিক টন ফসলের ক্ষতি হয়েছে।

একই প্রশ্নের লিখিত জবাবে মন্ত্রী জানান, প্রতি বছর ইঁদুরের আক্রমণে আমন ধানের ৫-৭ শতাংশ, গমের ৪-১২ শতাংশ, আলু ৫-৭ শতাংশ, আনারস ৬-৯ শতাংশ নষ্ট হয়। ইঁদুরের কারণে গড়ে মাঠে ফসলের ৫-৭ শতাশং এবং গুদামজাত শস্য ৩-৫ শতাংশ ক্ষতি করে থাকে। এরমধ্যে ২০১৮ সালে ইঁদুরের আক্রমণে প্রায় এক লাখ মেট্রিক টন ফসলের ক্ষতি হয়।

সরকারি দলের সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে ড. রাজ্জাক জানান, রেজিস্ট্রেশন বিহীন অবৈধ ও নিম্নমানের কীটনাশক বিক্রি বন্ধের লক্ষ্যে সরকার বালাইনাশক আইন ২০১৮ প্রণয়ন করেছে। নতুন বালাইনাশক বিধিমালা প্রণয়নের কাজ চলছে। মাঠ পর্যায়ে প্রত্যেক উপজেলায় বালাইনাশক ডিলারের দোকান, গুদাম পরিদর্শন করতে বালাইনাশক পরিদর্শক রয়েছেন।
নিম্নমানের বালাইনাশক পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। এছাড়া আইন প্রয়োগকারী সংস্থা সদা তৎপর রয়েছে। কোথাও কোন ভেজাল, অননুমোদিত নিম্নমানের বালাইনাশক পাওয়া গেলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেয়া হয় বলে জানান কৃষিমন্ত্রী।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Md. Harun al Rashid

২০২০-০২-১৬ ০৯:৫১:৫৭

Allow export of live rats to rodent eating countries like china,south korea etc then farmers will be incentivised to catch live rats and crops will be saved.

আপনার মতামত দিন



অনলাইন অন্যান্য খবর

বেড়েই চলছে চালের দাম

৩০ মার্চ ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত