পাওনা ৫০০০০ কোটি রুপি উদ্ধারে ভারতে ৯ আমিরাতি ব্যাংক

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪৭

সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে ঋণ নিয়ে খেলাপি হয়েছেন বহু ভারতীয়। এবার সেই বিপুল পরিমাণ ঋণ উদ্ধারে ভারতে আসছে আমিরাতের অন্তত ৯টি ব্যাংক। ভারতীয় মুদ্রায় এই ঋণের পরিমাণ প্রায় ৫০ হাজার কোটি রুপি। অর্থ উদ্ধারে ভারতীয় আদালতে মামলা দায়ের করতে যাচ্ছে ব্যাংকগুলো। এ খবর দিয়েছে ভারতের ইকোনমিক টাইমস পত্রিকা। খবরে বলা হয়, গত মাসে ভারত সরকার আমিরাতের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করে। আমিরাতে ঋণ সংক্রান্ত দেওয়ানি মামলা ছেড়ে পালিয়ে যাওয়া ভারতীয়দের ঠেকাতে এই চুক্তি সই করে সরকার। মূলত চুক্তিতে আমিরাতি আদালতের দেওয়া রায় ভারতেও প্রয়োগযোগ্য করা হয়েছে।
সেই চুক্তি অনুযায়ীই, আমিরাত-ভিত্তিক ব্যাংকগুলো ভারতীয় আইনি ফার্মগুলোর দ্বারস্থ হয়েছে। শিগগিরই মামলা দায়ের হবে ভারতের ইনসলভেন্সি কোর্টে।

খবরে বলা হয়, ঋণের বেশিরভাগই নিয়েছে ভারতীয় কোনো কোম্পানির দুবাই বা আবুধাবি ভিত্তিক সাবসিডিয়ারি বা শাখা প্রতিষ্ঠান। তবে কিছু ক্ষেত্রে ব্যক্তিবিশেষও ঋণ নিয়ে চম্পট দিয়েছেন। কর্পোরেট ঋণের হারই বেশি। চুক্তি অনুযায়ী, আমিরাতি আদালতের রায় ভারতে প্রয়োগ করার কাজ শুরু করতে চায় আমিরাতি ব্যাংকগুলো। অনেক মামলা প্রায় ১০-১৫ বছরের পুরনো। ভারত সরকার ১৭ই জানুয়ারি একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে, যার অধীনে কিছু আমিরাতি আদালতের জারি করা দেওয়ানি ডিক্রি ভারতেও প্রয়োগযোগ্য করা হয়। ভারতের শীর্ষস্থানীয় কর্পোরেট আইনজীবী এস প্রভাকর বলেন, ‘আমিরাতি আদালতের রায় প্রয়োগের মাধ্যমে ভারতীয় কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তিবিশেষকে দেওয়া ঋণের পাওনা অর্থ উদ্ধারের কোনো উপায় আমিরাত-ভিত্তিক ব্যাংকগুলোর এতদিন ছিল না। তবে সাম্প্রতিক ওই বিজ্ঞপ্তি জারির ফলে, ভারতেও ওই রায় প্রয়োগের প্রক্রিয়া তারা শুরু করতে পারবে।’

আপনার মতামত দিন



বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

ফেস মাস্কের রাজনীতি

৩ এপ্রিল ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



বেদনাদায়ক পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকুন

জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে যুক্তরাষ্ট্র- ট্রাম্প