সংসদে পাস হলেও আইনের লড়াই এবার শুরু হবে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:০৫

সংসদের দুই কক্ষে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি পাস হয়ে গেলেও এবার বিরোধীরা বিলটির বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ জানাতে চলেছে বলে ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে। কংগ্রেস নেতা ও সাবেক অর্থমন্ত্রী পি চিদাম্বরম বুধবারই এ লড়াইয়ের কথা জানিয়েছেন। লোকসভার পর বুধবার রাজ্যসভাতেও বিলটি নির্বিঘেœ পাস করিয়ে নিয়েছে সরকার। কয়েকবার সংশোধনের পর গতরাতে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, বিলটি ১২৫-৯৯ ভোটে পাস হয়েছে। বিলের বিরোধিতায় রাজ্যসভায় বিরোধীরা জোরালো যুক্তি তুলে ধরেছিলেন। এবার সংবিধানকে ক্ষুন্ন করার সেই যুক্তিতেই লড়াই হবে আদালতের কাঠগড়ায়, এমনটাই মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষক মহল। সেই লড়াইয়ে সরকারকে যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। বুধবার বিল পাসের পর কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী বলেছেন, সাংবিধানিক ইতিহাসে দেশের অন্ধকারতম দিন।
জয় হল সংকীর্ণমনা, ধর্মান্ধ গোঁড়াদের। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অবশ্য বলেছেন, ভারতের জন্য যুগান্তকারী দিন। সহমর্মিতা এবং সৌভ্রাতৃত্বের যে চিরন্তন ঐতিহ্য ভারত বহন করে সেই দিন থেকেও আজকের দিনটি যুগান্তকারী। প্রধানমন্ত্রী টুইটারে লিখেছেন, এই বিল বছরের পর বছর ধরে অত্যাচারের মুখোমুখি হওয়া বহু মানুষের কষ্ট লাঘব করবে। এই বিলটি পাস করানোর মাধ্যমে মোদী-শাহ জুটি বুঝিয়ে দিয়েছেন, দেশ কোন ধাঁচে চলবে সেটা তারাই ঠিক করবেন। নাগরিকত্ব বিল পাসের পর সরকার এতটাই আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছে যে, তারা জানিয়ে দিয়েছে বিরোধিতা সত্ত্বেও পশ্চিমবঙ্গ সহ গোটা ভারতেই এনআরসি চালু করা হবে। তবে বিলের বিরুদ্ধে যেভাবে উত্তর-পূর্ব ভারত ফুঁসে উঠেছে তার মোকাবিলাতেও এই জুটিকে যথেষ্ট বেগ পেতে হবে। বিরোধীরা ইতিমধ্যেই বিল নিয়ে এই জুটির উদ্যোগকে আগ্রাসী হিন্দুত্ব নীতির পরিচায়ক বলে বর্ণনা করেছে।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর

কলকাতা ডায়েরি

হাওড়া সেতুতে চালু হল লাইট এন্ড সাউন্ড শো

১১ জানুয়ারি ২০২০





ভারত সর্বাধিক পঠিত