দিনে নূরের সংবাদ সম্মেলন, রাতে ‘কোপানোর’ হুমকি

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ৬ ডিসেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ২:০২ | সর্বশেষ আপডেট: ২:১৭

প্রকল্প কর্মকর্তার সঙ্গে ১৩ কোটি টাকার ঠিকাদারি কাজে তবদিরের অভিযোগটি মিথ্যা ও ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নূর। গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ দাবি করেন। একই সঙ্গে উল্লেখ করেন, তিনটি সংবাদমাধ্যম তথ্য বিকৃত করে ব্যক্তিগত ফোনালাপ প্রচার করেছে। ২৪ ঘন্টার ভেতর তারা ক্ষমা না চাইলে আইনের আশ্রয় নেবেন বলেও জানিয়েছেন নূর। এদিকে এই প্রেস ব্রিফিংয়ের পর তাকে ‘কোপানোর’ হুমকি দেয়া হয়েছে জানিয়ে রাতে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন ডাকসুর ভিপি।  
এর আগে দুর্নীতির অভিযোগ এনে নূরকে বহিষ্কারের দাবিতে বৃহস্পতিবার ডাকসু ভবনের সামনে মানববন্ধন করে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠন। ডাকসু ভবনে গিয়ে নূরের কক্ষে তালাও লাগিয়ে দেন তারা। পরে বিষয়টি নিয়ে মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন করেন ডাকসুর ভিপি।
নূর বলেন, কোনো প্রকল্প কর্মকর্তার সাথে কোনো কথা বলা কিংবা কোনো তদবির করিনি।...এটি একটি পরিকল্পিত ঘটনা।
আমাকে ও আমার সংগঠন তারুণ্যের স্পন্দন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদকে বিতর্কিত করে তুলে ধরতেই রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় এমন হীন চক্রান্তের আয়োজন করা হয়েছে।
ডাকসু ভিপি বলেন, মঙ্গলবার নিউজ টোয়েন্টিফোর ও ডিবিসি চ্যানেলে তার কথোপকথনের একটি অডিও ক্লিপের খ-িতাংশ ‘বিকৃতভাবে’ প্রচার করে ‘ভুল ব্যাখ্যা’ দেওয়া হয়েছে।
‘যা আমার সম্মানহানি ও জনমনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করেছে। অডিওটির প্রথম অংশের কথোপকথন ছিল আমার খালা ও আমার পরিচিত এক ভাইয়ের সাথে। যেখানে আমার খালার কনস্ট্রাকশান ফার্মের ১৩ কোটি টাকার একটি কাজের ব্যাংক গ্যারান্টি নিয়ে ভাইয়ের সাথে আলোচনা করেছিলাম। যা একান্তই ব্যক্তিগত ও পারিবারিক ব্যবসা সংক্রান্ত বিষয়।
তিনি বলেন, কিন্তু নিউজ টোয়েন্টিফোর ও ডিবিসি চ্যানেলে কথোপকথনটির বিভিন্ন খ-িতাংশ বিকৃতভাবে প্রচার করে এবং আমি জনৈক প্রকল্প কর্মকর্তার কাছে ১৩ কোটি টাকার ঠিকাদারি কাজের তদবির করি, এই মর্মে খবর প্রচার করে। একইভাবে বাংলাদেশ প্রতিদিন অনলাইনেও একই সংবাদ প্রকাশ করে। কিন্তু প্রকৃত সত্য হচ্ছে, সেখানে আমি কোনো প্রকল্প কর্মকর্তার সাথে কোনো কথা বলা কিংবা কোনো তদবির করিনি।
‘অডিও ক্লিপটির দ্বিতীয় অংশে অন্য ব্যক্তির সাথে কথোপকথন নিয়ে নিউজ টোয়েন্টিফোর ও বাংলাদেশ প্রতিদিন-এ বলা হয়েছে আমি প্রবাসী কোন এক ব্যক্তির কাছে আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছি এবং ডিবিসি চ্যানেলে প্রচার করা হয়েছে, টেক্সাস প্রবাসী বিএনপি নেতার কাছে আর্থিক সহযোগিতা চেয়েছি। কিন্তু প্রকৃত ঘটনাটি ছিল, জনৈক প্রবাসী ব্যক্তি ফোন করে আমাকে সহযোগিতার কথা বললেও আমি তা নাকচ করে দেই।’
ভিপি নুর আরো বলেন, তথ্য-বিকৃত করে ভুল সংবাদ পরিবেশেন করায় নিউজ টোয়েন্টিফোর, ডিবিসি ও বাংলাদেশ প্রতিদিন কর্তৃপক্ষকে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। একই সাথে দায়িত্বশীল গণমাধ্যম হিসেবে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে খবর প্রচার ও প্রকাশের আহ্বান জানাই। তা না হলে তিনটি গণমাধ্যম ছাত্রসমাজ বর্জনসহ আইনি ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবে।
এদিকে দিনে প্রেস ব্রিফিংয়ের পর রাতে নুরকে একটি নম্বর থেকে কল করে কোপানোর হুমকি দেয়া হয় বলে অভিযোগ করেন। গতকাল রাতে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে নুরুল হক নুর এ কথা জানান।
তিনি লেখেন, ‘০১৮৫২৬৬২৬৪৭ এই নাম্বার থেকে ফোন করে যেখানে পাবে কোপাবে বলে আমাকে হুমকি দিয়েছে।’ ‘এই ফোনকল ফাঁস করে অপরাধীদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্র কি কোনো ব্যবস্থা নেবে?’ জানতে চান নুর।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

সৌদি আরবে ধরপাকড় চলছেই

১৬ দিনে ফিরেছেন ১৬১০ বাংলাদেশি

১৭ জানুয়ারি ২০২০





অনলাইন সর্বাধিক পঠিত