১ টনের নতুন ইনভার্টার এসি উন্মোচন ওয়ালটনের

দেশ বিদেশ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ৮ নভেম্বর ২০১৯, শুক্রবার
এয়ার কন্ডিশনার বা এসি বিক্রিতে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। চলতি বছর দেশের বাজারে ৮২ হাজার ইউনিট এসি বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছিল ওয়ালটন। দুই মাস বাকি থাকতে এসি বিক্রির টার্গেট ছাড়িয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৮ সালের তুলনায় এই বছরের জানুয়ারি থেকে অক্টোবর মাস পর্যন্ত ১৯৩% বেশি এসি বিক্রি হয়েছে। বুধবার এসি বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন উপলক্ষে ওয়ালটন অফিসে আয়োজন করা হয় ‘এসি সেলস অ্যাচিভমেন্ট সেলিব্রেশন’ প্রোগ্রামের। এ সময় ১ টনের নতুন মডেলের স্মার্ট ইনভার্টার স্প্লিট এসি উদ্বোধন করেন ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এস এম নুরুল আলম রেজভী, পরিচালক এস এম মাহবুবুল আলম ও মাহবুব আলম মৃদুল। উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী পরিচালক ও বিপণন বিভাগের প্রধান সমন্বয়ক ইভা রিজওয়ানা নিলু, নির্বাহী পরিচালক এমদাদুল হক সরকার, এস এম জাহিদ হাসান, মো. হুমায়ূন কবীর, মো. রায়হান, আমিন খান, ড. সাখাওয়াত হোসেন, ওয়ালটন এসির গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের প্রধান সন্দীপ বিশ্বাস ও এসি সেলস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট বিভাগের প্রধান জাহিদুল ইসলাম। নতুন আসা ১ টনের এসিতে রয়েছে স্মার্ট কন্ট্রোল।
ফলে এটি ভয়েস কমান্ড ও স্মার্টফোনের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণযোগ্য। অর্থাৎ ‘ভয়েস কন্ট্রোল’ বা ‘অ্যামাজন ইকো’র মাধ্যমে রিমোট কন্ট্রোল ছাড়াই শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা বাড়ানো, কমানো, চালু বা বন্ধ করা যাবে।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

লিবিয়ায় বিমান হামলায় নিহত বাংলাদেশির পরিচয় শনাক্ত

লিবিয়ায় বিমান হামলায় বাংলাদেশিসহ নিহত ৭

বারকী শ্রমিক থেকে কোটিপতি, কারাগারে আলিম

বিদেশে সেলিম প্রধানের ২০০ কোটি টাকা

এলডিপিতে পাল্টাপাল্টি

সিলেটে পিয়াজ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড পথচারী গুলিবিদ্ধ

বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল, ব্যাংকসহ বিভিন্ন নিয়োগ পরীক্ষার জালিয়াত চক্রের সদস্য আটক

পিয়াজ কেলেঙ্কারির ঘটনায় ২৫০০ জনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

দাম কমার খবরে পিয়াজ ছেড়ে দিচ্ছেন আড়তদাররা

টিসিবি’র পিয়াজ বিক্রি, শৃঙ্খলায় পুলিশ

শেরপুরে বিএসএফ’র গুলিতে ২ বাংলাদেশি নিহত

শাকিব খানকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

সৃজিত-মিথিলার বিয়ে ২২শে ফেব্রুয়ারি!

বাংলাদেশিদের জন্য শ্রমবাজার খুলে দিতে পারে আরব আমিরাত

চিকিৎসা ব্যয় মেটাতে পারছেন না আহতরা

ভীতির পরিবেশ, অবিশ্বাসই ভারতের শ্লথ অর্থনীতির কারণ