বৃহত্তর ঐক্যে সরকারের বিদায় হবে -রব

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ৭ নভেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার
বৃহত্তর ঐক্যে সরকারের বিদায় করা হবে বলে জানিয়েছেন, জেএসডির সভাপতি আ স ম আবদুর রব। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত ‘রক্তের অক্ষরে শপথের স্বাক্ষর, আবরার হত্যার বিচার চাই’ এক কর্মসূচি উদ্বোধন অনুষ্ঠানে একথা বলেন তিনি। কর্মসূচি উদ্বোধনের আগে ড. কামাল হোসেন তার মতিঝিলের চেম্বারে প্রথম স্বাক্ষর করেন। আ স ম রব বলেন, শুধু আবরার হত্যার সুষ্ঠু বিচারের দাবি নয়, এই সরকারের বিদায়ের জন্য রক্ত দিয়ে স্বাক্ষর করে শপথ করছি। বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য গঠন করে এই সরকারের বিদায় করব। বর্তমান সরকারের উদ্দেশ্যে রব বলেন, কত রক্ত চাই আপনাদের? রক্তের বন্যায় ভেসে যাবে সকল অন্যায়। যত রক্ত চান রক্ত দিব কিন্তু জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। সরকারি দল থেকে বলা হচ্ছে আবরারের বিচারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
তাহলে আমরা আন্দোলন করছি কেন? আবরার এর বিচার হয় নাই। তিনি আরো বলেন, মঙ্গলবার এক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রী ও শিক্ষকদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। কিছুদিন আগে এক অধ্যক্ষকে পানিতে ফেলে দিয়েছে ছাত্রলীগ, এসবের বিচারও এখনো হয়নি। বাংলাদেশে বৃটিশ আমল থেকে কেউ এই স্বৈরাচারী পন্থায় ক্ষমতায় বেশি দিন থাকতে পারেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে আ স ম আবদুর রব বলেন, আপনিও পারবেন না। আপনাদেরকেও ক্ষমতা ছেড়ে দিতে হবে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দপ্তর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টুর পরিচালনায় অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন, গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক ড. রেজা কিবরিয়া, বিকল্প ধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. নূরুল আমিন বেপারী, গণফোরামের অধ্যাপক আবু সাঈদ, মেজর জেনারেল (অব.) আমসা আমিন, এডভোকেট মহসিন রশীদ, জেএসডির সহ সভাপতি তানিয়া রব, বিকল্প ধারা বাংলাদেশের মহাসচিব এড. শাহ আহমেদ বাদল, গণফোরামের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মেজর (অব.) আফসারী, বিকল্প ধারা বাংলাদেশের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব আজমিরি বেগম ছন্দা প্রমুখ।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সেতুর অভাবে ১০ গ্রামের মানুষের একমাত্র ভরসা নৌকা

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের না পালানোর আহ্বান

বেরোবির প্রথম সমাবর্তন ২০২০ সালে

এ অপেক্ষার শেষ কখন?

সারা ভারতে এনআরসি হবে: অমিত শাহ

পরিবহন শ্রমিক ধর্মঘটে অচল দেশ

জাতীয় নির্বাচন নিয়ে জনসন-করবিনের মধ্যে ঝাঁঝালো বিতর্ক

‘আত্মরক্ষার্থে বাংলাদেশকে দায়ি করছে মিয়ানমার’

বৈদেশিক ঋণ নির্ভরতায় ঝুঁঁকি বাড়ছে: সিপিডি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ

ভারতে ব্যাংক প্রতারণার অভিযোগে দুই বাংলাদেশিসহ ৪ বিদেশি গ্রেপ্তার

‘ভারতের নির্বাচনে কিছু রাজনৈতিক দল বাংলাদেশি অনুপ্রবেশের রাজনীতি করে’

মির্জাপুরে নিখোঁজ এনজিও কর্মীর লাশ উদ্ধার

একেই বলে গণতন্ত্র

একটি খামোশ ধ্বনি

ট্রাম্পের ফোনালাপ অনুচিত